Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০৪ জুলাই ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

Shruti Das: নববর্ষে নিজেকে ভালবাসার শপথ শ্রুতির, ফের সোচ্চার মেয়েদের পোশাক-বর্ণ বৈষম্যের বিরুদ্ধে

‘পুষ্পা’ শ্রুতিকে নতুন মন্ত্রে দীক্ষিত করেছে, নিজেকে ভালবাসতে হবে! তা হলেই মুখ বন্ধ সবার।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ০১ জানুয়ারি ২০২২ ২০:৫০
Save
Something isn't right! Please refresh.
নতুন বছরে নতুন শপথ শ্রুতির

নতুন বছরে নতুন শপথ শ্রুতির

Popup Close

আগুন ঝরালেন শ্রুতি দাস। খোলা চুল। ঊর্ধ্বাঙ্গ ঢাকা ঢিলেঢালা জামায়। কোমরে ছোট স্কার্ট। পায়ে স্টিলেটো। সব মিলিয়ে লাস্যময়ী তিনি। এই সাজে ২০২২-এর প্রথম দিনেই সপাটে ব্যঙ্গ করে সোচ্চার হলেন বর্ণ বৈষম্যের বিরুদ্ধে। ‘পুষ্পা: দ্য রাইজ’-এর গান দিয়ে ফের বিতর্ক উসকে দিলেন। অভিনেত্রী কটাক্ষ ছুঁড়েছেন সেই সব পুরুষদের দিকে, যাঁরা মেয়েদের গায়ের রং, পোশাক নিয়ে সারা ক্ষণ নাক সিঁটকোতে ব্যস্ত!

২০২১ চলে গিয়েছে। অপমানগুলো যে রয়েই গিয়েছে। তাই যেন মনে করিয়ে দিলেন তিনি। একই সঙ্গে ভাল থাকার শপথও নিলেন। গানের তালে বার্তা দিলেন, আর কারওর কোনও কথা কানে তুলবেন না। পাত্তা দেবেন না কাউকে। কালো বলে কেউ তাঁকে কটাক্ষে বিঁধলে বয়েই যাবে তাঁর। ‘পুষ্পা’ তাঁকে নতুন মন্ত্রে দীক্ষিত করেছে, নিজেকে ভালবাসতে হবে। তা হলেই মুখ বন্ধ সবার।

দক্ষিণী ছবির পরে 'পুষ্পা'র গানও বাজারে হটকেক! ব্যবসার নিরিখে, জনপ্রিয়তায় হলিউডি ছবি ‘স্পাইডারম্যান’কে ঘোল খাইয়ে ছেড়েছে এই ছবিটি। এ বার সেই পথে হাঁটছে 'পুষ্পা'র গান ‘ও বলেগা ইয়া উঁহু বলেগা শালা’-ও। ‘পরম সুন্দরী’র মতোই এই গানের সঙ্গেও রিল ভিডিয়ো বানানোর হিড়িক বাড়ছে। সবার আগে সেই সুযোগ কাজে লাগিয়েছেন শ্রুতি। গানের তালে কখনও চুল সরিয়ে দেখিয়েছেন বক্ষদেশ! কখনও ক্যামেরার মুখোমুখি সাহসী ভঙ্গিতে।

Advertisement

কণিকা কপূরের গাওয়া গানের সারমর্ম কী? হিন্দি ভার্সন অনুযায়ী, শাড়ি বা ছোট পাশ্চাত্য পোশাক যা-ই পরুক, নারীকে ‘খারাপ’ বলতে পুরুষ বেশি ক্ষণ সময় নেয় না। আরও বলা হয়েছে, ফর্সা রঙের প্রতি এখনও পুরুষ দুর্বল। গায়ের রং চাপা হলেই মুখ ফিরিয়ে নেয় আজও। এই যদি পুরুষ চরিত্র, তা হলে এদের নিয়ে কেন মাথা ঘামায় নারী? বদলে নিজেকেই বেশি করে ভালবাসলেই তো পারে!

জন্মের পর থেকে এই দু’টি কারণে শ্রুতি প্রতি মুহূর্তে লাঞ্ছিত, অপমানিত। অভিনয়ে আসার পর থেকে সেই অপমান বেড়েছে আরও। অপদস্থ করতে ‘যৌন কর্মী’র তকমাও তাঁর গায়ে সেঁটে দেওয়া হয়েছে। শ্রুতি প্রতিবাদ করেছেন। তাতে তাঁকে ঘিরে বিতর্ক বরং বেড়েছে। পরিচালক স্বর্ণেন্দু সমাদ্দারের সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক প্রকাশ্যে আসতে শ্রুতিকে এ কথাও শুনতে হয়েছে, ‘ভবিষ্যৎ গোছাতে বাবার বয়সী লোককে ফাঁসিয়েছে!’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)


Something isn't right! Please refresh.

Advertisement