×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

০৭ মার্চ ২০২১ ই-পেপার

বিনোদন

বেঁচে থাকলে ৩৫-এর হতেন, কী অবস্থায় দাঁড়িয়ে সুশান্ত মৃত্যুরহস্যের তদন্ত?

নিজস্ব প্রতিবেদন
২২ জানুয়ারি ২০২১ ১৬:০২
২১ জানুয়ারি ছিল সুশান্ত সিংহ রাজপুতের জন্মদিন। বিশ্বে থাকলে ৩৫-এ পা দিতেন অভিনেতা।

৩৪ বছর বয়সি অভিনেতা সুশান্তের আকস্মিক মৃত্যু সংবাদে ভেঙে পড়েছিল গোটা দেশ। তাঁর মৃত্যু ঘিরে সকলের মনেই দানা বেঁধেছিল নানা সংশয়। ৭ মাস পর তাঁর মৃত্যুর রহস্য কী অবস্থায় রয়েছে?
Advertisement
২০২০ সালের ১৪ জুন মুম্বইয়ে নিজের অ্যাপার্টমেন্টে তাঁর ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার করেছিল পুলিশ। তার পর মুম্বই পুলিশের হাতে তদন্তভার যায়।

তদন্তের প্রাথমিক রিপোর্টে মুম্বই পুলিশ এটাকে আত্মহত্যা বলে। কিন্তু মুম্বই পুলিশের সে দাবি মানতে চাননি প্রায় কেউই।
Advertisement
সুশান্তের মৃত্যুর প্রায় এক মাস পরে তাঁর বাবা কেকে সিংহ বিহার পুলিশে অভিযোগে জানান সুশান্তের প্রেমিকা রিয়া চক্রবর্তীর বিরুদ্ধে। অভিযোগ ছিল, সুশান্তকে আর্থিক এবং মানসিক ভাবে ভেঙে ফেলেছিলেন রিয়া। সে কারণেই মৃত্যুর পথ বেছে নেন সুশান্ত।

সুশান্তের পরিবার এবং তাঁর অজস্র ভক্ত প্রিয় নায়কের মৃত্যুরহস্যের বিচার চেয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় সরব হন। তার পর ঘটনার তদন্তভার নেয় সিবিআই।

এর পর অভিনেতার মৃত্যুতে মাদকযোগ সামনে আসার পরেই সিবিআইয়ের সঙ্গে নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো (এনসিবি) সমান্তরাল পথে তদন্ত শুরু করে।

এনসিবি তদন্ত চালিয়ে রিয়া চক্রবর্তী এবং তাঁর ভাই-সহ একাধিক সন্দেহভাজন ব্যক্তিকে হেফাজতে নিতে শুরু করে।

কিন্তু এখনও পর্যন্ত রিয়ার বিরুদ্ধেও সুশান্তের মৃত্যুতে জড়িত থাকার বিষয়ে কোনও মজবুত প্রমাণ পেশ করতে পারেনি তদন্তকারী সংস্থা। তাই পরে জামিনে মুক্ত হন রিয়া।

রিয়ারও পাল্টা অভিযোগ ছিল, ভুয়ো প্রেসক্রিপশন দিয়ে সুশান্তকে কিছু ওষুধ খেতে বলেছিলেন তাঁর দিদিরা। বেআইনি ওষুধ ও বিভিন্ন ধরনের ওষুধের মিশ্রণের ফলেই সুশান্তের মৃত্যু হয়েছে বলে দাবি করেন তিনি।

গত অক্টোবর মাসে সুশান্তের ভিসেরা রিপোর্ট পুনরায় পরীক্ষা করেন অল ইন্ডিয়া ইনস্টিটিউট অব মেডিক্যাল সায়েন্সেস (এমস)-এর চিকিৎসকেরা।

সিবিআই-কে চিকিৎসকেরা জানিয়েছিলেন, সুশান্তের মৃত্যুর কারণ বিষক্রিয়ায় হয়নি। তার পরেও সরাসরি সংস্থার তরফে কোনও রিপোর্ট প্রকাশ করা হয়নি।

নিরপেক্ষ এবং সঠিক তদন্তের জন্য সিবিআইকে নিযুক্ত করেছিল শীর্ষ আদালত। কিন্তু তার কিছু দিন পর থেকেই অভিনেতার মৃত্যুর তদন্তের অভিমুখ সম্পূর্ণ ভাবে মাদকযোগের দিকে ঘুরে যায়।

সিবিআই এখনও পর্যন্ত তাঁদের অবস্থান নিয়ে কোনও মন্তব্য প্রকাশ করেনি। দ্রুত তদন্ত রিপোর্ট সামনে আনার জন্য জনস্বার্থ মামলা হয়েছে শীর্ষ আদালতে।

সুশান্তের জন্মদিনে তাঁর অনুপস্থিতিতেও বিশেষ করে রাখতে চান দিদি শ্বেতা সিংহ কীর্তি। অনুরাগীদের কাছে তিনি ৩ জন করে অসহায় মানুষকে সাহায্য করে সুশান্তের আত্মার জন্য শান্তি কামনা করার আর্জি জানিয়েছেন।

তাঁর স্মৃতিতে ইউনিভার্সিটি অব ক্যালিফোর্নিয়া-বার্কলেতে ৩৫ হাজার ডলারের সুশান্ত সিংহ রাজপুত মেমোরিয়াল ফান্ড গঠন করা হয়েছে। অ্যাস্ট্রোফিজিক্স নিয়ে পড়তে ইচ্ছুকরা এই ফান্ডের জন্য আবেদন করতে পারেন।

সম্প্রতি মকর সংক্রান্তি উপলক্ষে ‘কাই পো চে’ ছবির ঘুড়ি ওড়ানোর ভিডিয়ো ক্লিপ সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেছিলেন পরিচালক অভিষেক কপূর।

টেলিভিশনের দীর্ঘ সফরের পরে অভিষেকের এই ছবি দিয়েই বলিউডে পা রেখেছিলেন সুশান্ত। পরে অভিষেকের ‘কেদারনাথ’-এ অভিনয় করেছেন তিনি।

এ ছাড়াও ‘এম এস ধোনি: দ্য আনটোল্ড স্টোরি’, ‘পিকে’, ‘শুদ্ধ দেশি রোম্যান্স’, ‘ডিটেক্টিভ ব্যোমকেশ বক্সি’-র মতো ছবিতে অভিনয় করেছেন তিনি। তাঁর শেষ মুক্তিপ্রাপ্ত ছবি ‘দিল বেচারা’।