Advertisement
০৫ ডিসেম্বর ২০২২

‘এ নচি তোমার কী দশা!’ কেন আক্ষেপ করলেন শিলাজিৎ?

চেহারায় মিল অনেক। দু’জনেরই গালে চাপ দাড়ি। তা বলে নচিকেতা চক্রবর্তী হয়ে যাবেন শিলাজিৎ মজুমদার?

শিলাজিৎ। ফাইল ছবি।

শিলাজিৎ। ফাইল ছবি।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ১৪ ডিসেম্বর ২০২০ ১৬:০১
Share: Save:

চেহারায় মিল অনেক। দু’জনেরই গালে চাপ দাড়ি। এক নজরে দেখলে হয়ত নাক-মুখেও মিল খুঁজে পাওয়া যাবে। তা বলে নচিকেতা চক্রবর্তী হয়ে যাবেন শিলাজিৎ মজুমদার? সেটাই হল সম্প্রতি। এই সাদৃশ্য থেকেই টোল প্লাজার এক অফিসার গুলিয়ে ফেললেন নচিকেতা-শিলাজিৎকে!

Advertisement

ঠিক কী ঘটেছে? সম্প্রতি গাড়ি নিয়ে বেরিয়েছিলেন শিলাজিৎ। টোল প্লাজায় গাড়ি দাঁড়াতেই অফিসার তাঁকে বলেন, ‘‘আপনাকে চেনা চেনা লাগছে স্যার।’’ শিলাজিৎও ফিরিয়ে বলেন, ‘‘আমারও তোমাকে চেনা চেনা লাগছে!’’ অফিসার গাড়ির নম্বর জানতে চাইলে তাঁকে তা জানান শিল্পী।

তত ক্ষণে গাড়ির স্টিয়ারিং বাজিয়ে গুনগুনিয়ে গানও ধরে ফেলেছেন তিনি। এমন সময় গাড়ির ভিতরে থাকা এক নারীকণ্ঠ বলে ওঠেন, ‘‘শিলাজিৎদা কেমন আছ? অনেকের প্রশ্ন।’’ অর্থাৎ, সেই সময়ে লাইভে ছিলেন তিনি। তখনই শিলাজিতের মাথায় চাপে দুষ্টু বুদ্ধি।

‘‘এক মিনিট দ্যাখ, তোরা বিশ্বাস করবি কি না দ্যাখ,’’ বলেই সেই টোল প্লাজা অফিসারকে বলে ওঠেন, ‘‘আমার নাম নচিকেতা।’’ বলতে না বলতেই অফিসার পুরো বিনয়ের অবতার। হাতের গোড়ায় ‘জীবনমুখী গান’-এর কিংবদন্তি শিল্পীকে পেয়ে আনন্দের চোটে হাতই বাড়িয়ে দিয়েছেন হাত মেলানোর জন্য। কথায় একরাশ অস্বস্তি, ‘‘স্যার, স্যার, আমি বুঝতে পারছিলাম না…।’’

Advertisement

গাড়ির ভিতরে সবাই হেসে খুন। হাত বাড়িয়ে করমর্দন করেন গায়কও। বলেন, ‘‘নচিকেতাকে ভুলে যেও না গুরু।’’ তারপরেই ক্যামেরার দিকে ফিরে ছড়া কেটে রসিকতা, ‘‘এ নচি তোমার কী দশা! আমাকে দেখে ‘তুমি’ ভাবে, লোকে ভাবে বসা!’’

শিলাজিতের রসিকতায় মাত নেটপাড়া।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.