×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৯ এপ্রিল ২০২১ ই-পেপার

বিনোদন

বয়সের সঙ্গে গ্ল্যামার বেড়েই চলেছে এই টেলি তারকাদের

নিজস্ব প্রতিবেদন
১৬ অগস্ট ২০১৮ ১০:৫৪
বয়স হলে নাকি চেহারায় তার ছাপ পড়ে। অথচ বছরের পর বছর সিলভার স্ক্রিনে কাজ করার পর যেন এঁদের বয়স কমছে, বাড়ছে গ্ল্যামার। টেলিভিশনের প্রথম দিনগুলির সঙ্গে মিল প্রায় নেই বললেই চলে। এক ধারাবাহিক থেকে আরেক ধারাবাহিকে আমূল পরিবর্তনও ঘটে গিয়েছে সেই তারকাদের। এক ঝলকে দেখে নেওয়া যাক সেই সব সেলেবদের পরিবর্তনের কাহিনি।

২০০৯ সালে ‘ইয়ে রিশতা ক্যায়া কেহলতা হ্যয়’ সিরিয়াল থেকে জনপ্রিয় হয়েছিলেন হিনা খান। অক্ষরার চরিত্রে অভিনয় করে একাধিক পুরস্কারও জিতেছিলেন হিনা। কিন্তু সেই সিরিয়ালের হিনার লুক পরবর্তী কালে অনেকটাই পাল্টে গিয়েছিল। পরে ‘বিগ বস’ হাউসেও ঝড় তুলেছিলেন এই অভিনেত্রী। ‘খতরো কে খিলাড়ি’ তেও দেখা গিয়েছিল হিনা খানকে।
Advertisement
শুরুটা ২০০৭ ‘কিউকি সাঁস ভি কভি বহু থি’ দিয়ে। তবে একতা কপূরের ছবি ‘কৃষ্ণা কটেজ’ও জনপ্রিয়তা দিয়েছিল অভিনেত্রী অনিতা হসনন্দিনিকে। পরে আরও নানান ভাষায় ছবি করেছেন। করেছেন একাধিক সিরিয়ালও। খুব সম্প্রতি ‘ইয়ে হ্যয় মহব্বতে’ সিরিয়ালটিতেও দেখা গিয়েছিল অনিতাকে। পরবর্তী কালে অনিতারও বিপুল পরিবর্তন লক্ষ্য করা গিয়েছে।

২০০৯ সালে ‘পবিত্র রিস্তা’ সিরিয়ালটি জনপ্রিয়তার শিখরে বসিয়েছিল অভিনেতা সুশান্ত সিংহ রাজপুতকে। ডাক পেয়েছিলেন বড় পর্দায় অভিনয় করার। একাধিক সুপারহিট ছবিও দিয়েছেন বলিউডকে। সেই সুশান্তের চেহারাতেও কিন্তু পরবর্তী কালে অনেক পরিবর্তন দেখা গিয়েছিল।
Advertisement
টেলি সিরিয়ালের জগতে তাঁর ডেবিউ হয়েছিল ২০০৬ সালে ‘কসম সে’ সিরিয়ালটি দিয়ে। পরে একাধিক হিন্দি ছবিতেও দেখা গিয়েছিল প্রাচী দেশাইকে। ফারহান আখতার থেকে ইমরান হাসমি অনেকের সঙ্গেই অভিনয় করেছিলেন প্রাচী। কিন্তু সেই প্রথম সিরিয়ালের প্রাচীর সঙ্গে আজকে সিনেমার প্রাচীকে চেনা দায়।

এক দশকেরও বেশি ছোট পর্দায় কাজ করছেন করিশ্মা তন্না। দিন যত যাচ্ছে, ততই যেন অচেনা হয়ে যাচ্ছেন অভিনেত্রী। শুরুটা ডেলি সোপ দিয়ে হলেও পরবর্তীকালে বেশ কিছু সিনেমা করেছেন। একাধিক রিয়্যালিটি শো’তেও তাঁকে দেখা গিয়েছে। সম্প্রতি ‘সঞ্জু’ ছবিতেও দেখা গিয়েছে করিশ্মাকে।

২০০৭ সালে ‘কিউকি সাঁস ভি কভি বহু থি’ থেকে জনপ্রিয় হয়েছিলেন মৌনী রায়। তার পরে একের পর এক সিরিয়াল করে গিয়েছেন। সম্প্রতি অক্ষয় কুমারের ‘গোল্ড’ ছবিতে দেখা গেল তাঁকে। সময় যত যাচ্ছে, ততই যেন সুন্দরী হয়ে উঠছেন মৌনী। ১১ বছর আগের এই মৌনীকে এখন চেনাই দায়।

সোশ্যাল মিডিয়াতে বোল্ড অবতারে প্রায়শই দেখা মেলে নিয়া শর্মার। এই নিয়া শর্মারই ডেলি সোপ ‘জামাই রাজা’ খুবই পপুলার হয়েছিল। সেরা পঞ্চাশ ‘সেক্সিয়েস্ট এশিয়ান উইমেন’-এর তালিকায় দুই নম্বরে নিজের নামটি লিখিয়ে ফেলেছিলেন নিয়া। এই নিয়া কাজ করছেন বছর সাতেক। ২০১১ সালে ‘এক হাজারো মে মেরি বহেনা হ্যায়’ দিয়ে শুরু তাঁর কেরিয়ার।

টেলিভিশনে একাধিক সিরিয়ালে দেখা গিয়েছে অভিনেত্রী আমনা শরিফকে। ২০০৩ সালে ‘কহি তো হোগা’-তে রাজীব খান্ডেলওয়ালের সঙ্গে আমনার রসায়নও পছন্দ হয়েছিল দর্শকদের। ‘আলু চাট’-সহ কয়েকটি ছবিতে অভিনয় করেছেন আমনা।

২০০৬ সালে ‘কসৌটি জিন্দেগি কি’ দিয়ে তাঁর অভিনয় জীবনের শুরু। তবে জনপ্রিয়তা এসেছিল ‘দিল মিল গ্যায়ে’ থেকে। পরে একাধিক ধারাবাহিকেও দেখা গিয়েছিল কর্ণ সিংহ গ্রোভারকে। ‘অ্যালোন’, ‘হেট স্টোরি থ্রি’ ইত্যাদি ছবিতেও অভিনয় করেছেন। যত দিন যাচ্ছে কর্ণ যেন আরও হ্যান্ডসাম হয়ে উঠছেন।

২০০৬ সালে ‘কসৌটি জিন্দেগি কি’ দিয়ে কেরিয়ার শুরু করেন জেনিফার উইঞ্জেটে। পরে ‘দিল মিল গ্যায়ে’-তেও দেখা গিয়েছিল তাঁকে। করেছেন আরও বেশ কিছু সিরিয়াল। কিন্তু এক যুগ আগের এই জেনিফার যেন নিজের বয়সটা আটকে রেখে দিয়েছেন।

২০০৯ সালে ‘কিতনি মহব্বত হ্যায়’ দিয়ে কেরিয়ার শুরু কর্ণ কুন্দ্রার। কখনও ডেলি সোপ তো কখনও আবার রিয়্যালিটি শো। সিনেমাও করেছেন কর্ণ। এই কর্ণেরও লুক থেকে বডি সব কিছুতেই এসেছে বেশ কিছু পরিবর্তন।