• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

বিরিয়ানি, চিকেন চাপ, বৃষ্টিতে লংড্রাইভ! সুবানের জন্মদিন সাজিয়ে দিলেন 'কৃষ্ণকলি'

১
কেক কাটছেন সুবান, পাশে তিয়াসা। নিজস্ব চিত্র।

প্ল্যান ছিল অনেক। কিন্তু সব ভেস্তে দিল লকডাউন, করোনা। পাহাড়ের কোলে, নিরিবিলিতে, ইচ্ছা ছিল এ বছরের জন্মদিনটা পালন করার,  তা আর হল কই? সে যাই হোক, বরের জন্মদিন তো আর বিনা সেলিব্রেশনে যেতে দেওয়া যায় না, তাই তিয়াসাই হাল ধরলেন। সুবানের এ বছরের জন্মদিনটা প্রায় নিজের হাতেই সাজিয়ে দিলেন মনের মতো।

সবটাই কিন্তু সারপ্রাইজ। ঘুণাক্ষরেও টের পেতে দেননি বরকে। শুটিংয়ে যাননি। সকাল থেকেই প্ল্যান করেছেন তিয়াসা।  পাহাড়ের কোলে হাতে হাত রেখে প্রকৃতি দেখতে পারেননি তো কী? বৃষ্টিভেজা শহরে গাড়ি করেই বেরিয়ে পড়লেন ওঁরা। তারপর দু'পাশ দেখতে দেখতে, ভালবাসায় সিক্ত হতে হতে চললেন লং ড্রাইভে...

বাড়তি পাওনা ছিল তিয়াসার গান। "কাল সারাদিন আমায় গান শুনিয়েছে", হেসে বলে উঠলেন সুবান।

সুবানকে কেক খাইয়ে দিচ্ছেন তিয়াসা। নিজস্ব চিত্র। 

এখানেই কিন্তু শেষ নয়। বাড়ি ফিরে আর এক সারপ্রাইজ! সুবানের বন্ধুদের সঙ্গে আগে থেকেই কথা বলে নিয়ে আসা হল কেক। জমিয়ে চলল খাওয়া দাওয়াও। চিকেনচাপ, বিরিয়ানি। এক দিনের তো ব্যাপার। ডায়েট-টায়েট চুলোয় যাক। বিরিয়ানিটা কি বউয়ের হাতের? প্রশ্ন শুনেই লজ্জা পেয়ে সুবান বললেন, "খুব চেষ্টা করেছিল বিরিয়ানি বানানোর। সেটা আর এ বার হল না। এক জনকে বলে দেওয়া হয়েছিল। তিনিই বানিয়ে দিয়ে গিয়েছেন"।

বন্ধুরা মিলে। নিজস্ব চিত্র।

আর পায়েস? "প্রতি বার জন্মদিনে আমি গোবরডাঙ্গা যাই। বাবা-মা তো ওখানেই থাকেন। এ বারেও ভেবেছিলাম যাব। ওখানে করোনার প্রভাব একেবারেই নেই। এ দিকে কলকাতায় রোজই বাড়ছে। তাই আমরা কলকাতা থেকে ইচ্ছে করেই আর সেখানে যাইনি। কে কী ভাববে। আর সে জন্যই মায়ের হাতের পায়েসটাও এ বার তোলাই থাকল ", বললেন সুবান। কাল সারা দিন সুবানকে কাছে পেয়ে খুশি তিয়াসাও। ব্যস্ত শিডিউলে এ রকম দিন আর ক'টাই বা মেলে? তবে এই জন্মদিনে বাবা-মা'কে খুব মিস করেছেন সুবান, তা বলছিলেন বারেবারেই। 

 যা যা করা গেল না, তা নিয়ে একটু মন খারাপ হলেও তিয়াসার স্বামীকে খুশি রাখার চেষ্টা সব কিছুই ভুলিয়ে দিয়েছে সুবানকে। শুধু রিল লাইফেই নয়, রিয়েল লাইফেও যে তিয়াসা অলরাউণ্ডার, প্রমাণ মিলেছে কালই।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন