মারা গেলেন বর্ষীয়ান অভিনেত্রী বিদ্যা সিংহ। বৃহস্পতিবার মুম্বইয়ের একটি হাসপাতালে মৃত্যু হয় তাঁর। বয়স হয়েছিল ৭১ বছর। সপ্তাহের শুরুর দিকে শ্বাসকষ্ট নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন অভিনেত্রী। ফুসফুসের সমস্যায় ভুগছিলেন তিনি।

১৯৪৭ সালে জন্ম হয় বিদ্যার। আঠেরো বছর বয়সে মডেলিং দিয়ে কেরিয়ারের শুরু। তাঁর বাবা ছিলেন প্রযোজক রানাপ্রতাপ সিংহ। ১৯৭৪ সালে ‘রাজা কাকা’ ছবির মধ্য দিয়ে কেরিয়ার শুরু করেন বিদ্যা। সেই বছরই মুক্তি পায় তাঁর অভিনীত ‘রজনীগন্ধা’। ছবিটির পরিচালক বাসু চট্টোপাধ্যায় হয়ে ওঠেন বিদ্যার মেন্টর। এর পরে তিনি ‘ছোটি সি বাত’, ‘মুক্তি’, ‘পতি পত্নী অওর উয়ো’, ‘স্বয়ম্বর’, ‘কয়েদী’র মতো ছবিতে অভিনয় করেন। বিদ্যার লাবণ্য ও অভিনয় নজর কেড়েছিল সকলের।

প্রথম স্বামী ভেঙ্কটেশ্বরন আইয়ারের মৃত্যুর পরে দ্বিতীয় বার বিয়ে করেন নেতাজি ভীমরাও সালুঙ্কেকে। পরে বিবাহবিচ্ছেদ হয়। ১৯৯৬ সাল নাগাদ অভিনেত্রী দত্তক নেন এক কন্যাসন্তানকে। বিবাহবিচ্ছেদের পরে বেশ কয়েক বছর ইন্ডাস্ট্রি থেকে দূরেই সরে ছিলেন বিদ্যা। পরে অভিনয় করেন ‘কাব্যাঞ্জলি’, ‘ভাবী’ জাতীয় ধারাবাহিকে। সলমন খান অভিনীত ‘বডিগার্ড’ ও ‘কুলফিকুমার বাজেওয়ালা’ ধারাবাহিকে শেষ বার অভিনয় করেছিলেন বিদ্যা। বর্ষীয়ান এই অভিনেত্রীর মৃত্যুতে শোকস্তব্ধ গোটা ইন্ডাস্ট্রি।