×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৫ জুন ২০২১ ই-পেপার

বিজেপি শাসিত হরিয়ানায় দুই কাশ্মীরি ছাত্রকে মারধর, হেনস্থা

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ ১৩:০০
আক্রান্ত এক ছাত্র।

আক্রান্ত এক ছাত্র।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী যখন কাশ্মীরিদের উদ্দেশে বার্তা দিচ্ছেন, ‘গলে লাগ যা’, ঠিক তখনই বিজেপি শাসিত হরিয়ানায় আক্রান্ত হলেন দুই কাশ্মীরি ছাত্র।শুক্রবারের নমাজ সেরে ফেরার পথে তাঁদের উপর চড়াও হয় জনা পনেরোর একটি দল। তাঁদের বেধড়ক মারধর করা হয়। তাঁদের বাইক আছড়ে ফেলে ভেঙে দেওয়া হয় দু’জনের হেলমেটও।এই দু’জনই হরিয়ানা কেন্দ্রীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভূগোলের ছাত্র। এই ঘটনায় তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন জম্মু ও কাশ্মীরের মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতি। তীব্র প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ওমর আবদুল্লাও। এর পরই তড়িঘড়ি অভিযুক্তদের মধ্যে তিন জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তৈরি হয়েছে বিশেষ তদন্তকারী দল (সিট)।

শুক্রবার ঘটনাটি ঘটেছে হরিয়ানার মহেন্দ্রগড়ে। তেইশ বছরের আফতাব আহমেদ এবং বছর বাইশের আমজাদ আলি স্নাতকোত্তরের ছাত্র। বাড়ি কাশ্মীরে। পড়াশোনার জন্য মহেন্দ্রগড়ে থাকেন তাঁরা। শুক্রবারের সাপ্তাহিক নমাজ পর্ব শেষ করে সবে মাত্র নিজেদের গন্তব্যে রওনা হয়েছিলেন ওই দুই কাশ্মীরি ছাত্র। তখনই তাঁদের পথ আটকায় জনা পনেরোর একটি দল। কিছু বুঝে ওঠার আগেই ওই দু’জনকে তারা মারধর করে বলে অভিযোগ। তাঁদের মাথায়, হাতে-পায়ে গুরুতর চোট লাগে। বাজারের মধ্যে এই ঘটনা ঘটলেও হামলাকারীদের আটকাতে কেউ এগিয়ে আসেননি। পরে গুরুতর আহত অবস্থায় দু’জনকেই হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়।

এর পরই ঘটনার গুরুত্ব বুঝে দ্রুত তদন্ত শুরু করে পুলিশ। গঠন করা হয় বিশেষ তদন্তকারী দল (সিট)। মহেন্দ্রগড়ের পুলিশ সুপার কমলদীপ গয়াল জানিয়েছেন, তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখা হচ্ছে। ইতিমধ্যেই তিন জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। আক্রান্ত দুই ছাত্রের অবস্থা স্থিতিশীল। কেন হামলা, সে বিষয়ে পুলিশের তরফে কিছু জানানো হয়নি। কাশ্মীরের বাসিন্দা বলেই তাঁদের হামলা হয়েছে, এমন মনে করার কোনও কারণ নেই বলে জানিয়েছেন গয়াল।

Advertisement

আরও পড়ুন: ভারত নয়, আমার বন্দিদশার জন্য দায়ী পাকিস্তান: হাফিজ

কী ঘটেছিল শুক্রবার?

আক্রান্ত আফতাবের কথায়, ‘‘তখন দুপুর আড়াইটে। আমরা নমাজ সেরে মোটরবাইক করে বিশ্ববিদ্যালয়ের পথে রওনা হই। মাত্র কিছুটা যাওয়ার পরই পথ আটকানো হয়। ঘিরে ফেলা হয় আমাদের। বাজারের মধ্যেই লাঠি-ইট দিয়ে মারধর করা হয়। ভেঙে দেওয়া হয় আমাদের দু’জনের হেলমেটও।’’ তবে, কেন মারধর করা হল, সে বিষয়ে কিছুই বুঝে উঠতে পারেননি আফতাবরা। হামলাকারীদের চেনেন না বলেও জানিয়েছেন তাঁরা।


ঘটনাটি প্রকাশ্যে আসার পরই তা নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন জম্মু ও কাশ্মীরের মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতি। হরিয়ানার মুখ্যমন্ত্রী মনোহরলাল খট্টরকে ট্যাগ করে টুইটও করেন তিনি। ঘটনার দ্রুত ও নিরপেক্ষ তদন্ত দাবি করেছেন মুফতি। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে টুইটে ট্যাগ করে জম্মু ও কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ওমর আবদুল্লা বলেছেন, ‘‘এই ঘটনা ভয়াবহ। লালকেল্লায় দাঁড়িয়ে প্রধানমন্ত্রী মোদী যে ঘোষণা করেছেন, এই ঘটনা তার বিরুদ্ধে যাচ্ছে।’’




Tags:
Kashmiri Students Jammu And Kashmir Haryana Studentজম্মু ও কাশ্মীর

Advertisement