Advertisement
২২ জুলাই ২০২৪
Vande Bharat

বন্দে ভারতে পাথর ছুড়লে ৫ বছরের সাজা! কড়া হুঁশিয়ারি দিল রেল

২০১৯ সালের ফেব্রুয়ারিতে বন্দে ভারত উদ্বোধন হয়। তার পর থেকেই তেলঙ্গানা, বিহার, উত্তরপ্রদেশ, ছত্তীসগঢ় এবং পশ্চিমবঙ্গে বন্দে ভারতে পাথর ছোড়ার ঘটনা ঘটেছে।

Vande Bharat stone pelting

বন্দে ভারতে পাথর ছোড়ার ঘটনায় আরও কঠোর হল রেল। ফাইল চিত্র।

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি শেষ আপডেট: ২৯ মার্চ ২০২৩ ১৩:২৭
Share: Save:

বন্দে ভারত এক্সপ্রেসে একাধিক বার পাথর ছোড়ার ঘটনার পর এ বার কঠোর সিদ্ধান্ত নিল রেল। বন্দে ভারতে পাথর ছুড়লে অভিযুক্তদের পাঁচ বছরের জন্য জেলে পাঠানো হবে। পাথর ছোড়ার ঘটনা রুখতে মঙ্গলবার এমনই সতর্কবার্তা দিল দক্ষিণ-মধ্য রেল। তা ছাড়া এই ধরনের দুষ্কৃতীমূলক ঘটনায় যাতে কোনও রকম প্রশ্রয় না দেওয়া হয়, জনসাধারণের উদ্দেশে সেই আবেদনও জানানো হয়েছে রেলের তরফে।

তেলঙ্গানার একাধিক জায়গা থেকে বন্দে ভারতে একাধিক বার পাথর ছোড়ার ঘটনার পরই এই কঠোর পদক্ষেপ করল দক্ষিণ-মধ্য রেল। রেল সূত্রে খবর, কাজিপেট, খাম্মাম, কাজিপেট-ভঙ্গির এবং এলুরু-রাজমুন্দ্রি শাখায় বন্দে ভারতকে লক্ষ্য করে বেশ কয়েক বার পাথর ছোড়ার ঘটনা ঘটেছে। সংবাদ সংস্থা পিটিআই জানিয়েছে, এ বছরের জানুয়ারিতেই বন্দে ভারতের উপর ন’বার হামলা চালানো হয়েছে।

২০১৯ সালের ফেব্রুয়ারিতে বন্দে ভারত উদ্বোধন হয়। তার পর থেকেই তেলঙ্গানা, বিহার, উত্তরপ্রদেশ, ছত্তীসগঢ় এবং পশ্চিমবঙ্গে বন্দে ভারতে পাথর ছোড়ার ঘটনা ঘটেছে। এক প্রেস বিজ্ঞাপ্তি জারি করে দক্ষিণ-মধ্য রেল জানিয়েছে, ট্রেনে পাথর ছোড়া ফৌজদারি অপরাধ। রেলের আইনের ১৫২ ধারায় অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থার কথা উল্লেখ রয়েছে। সেখানে বলা হয়েছে, এই অপরাধে অভিযুক্তদের পাঁচ বছর পর্যন্ত জেল হতে পারে। রেলসুরক্ষা বাহিনী (আরপিএফ) সূত্রে খবর, বন্দে ভারতে পাথর ছোড়ার ঘটনায় এখনও পর্যন্ত ৩৯ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। একাধিক মামলা দায়ের করা হয়েছে।

জনসাধারণের মধ্যে সচেতনতা বাড়াতে এবং এই ধরনের কাজ থেকে বিরত রাখতে আরপিএফ নানা পদক্ষেপ করেছে ইতিমধ্যেই। যে সব গ্রামের পাশে রেললাইন রয়েছে, সেই সব গ্রামে যাতে পাথর ছোড়ার ঘটনা না ঘটে, তাই গ্রামপ্রধানদের সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে প্রচার চালানো হচ্ছে। পাশাপাশি, যে সব এলাকায় পাথর ছোড়ার ঘটনা বেশি ঘটেছে বা ঘটতে পারে, সেগুলি চিহ্নিত করে রেল সুরক্ষা কর্মী মোতায়েন করা হয়েছে।

নয়াদিল্লি থেকে কানপুর এবং ইলাহাবাদ হয়ে বারাণসী পর্যন্ত প্রথম বন্দে ভারত ট্রেনটি চালু হয়েছিল ২০১৯-এর ফেব্রুয়ারিতে। কিন্তু ‘ট্রেন-১৮’ নামে এই ট্রেনের পরীক্ষামূলক যাত্রার সময়েই তাতে ঢিল পড়েছিল। ভেঙে গিয়েছিল জানলার কাচ। এর পর ফেব্রুয়ারি থেকে এপ্রিল, এই দু’মাসে কমপক্ষে ১২ বার ঢিল মেরে প্রথম বন্দে ভারত ট্রেনের কাচ ভাঙা হয়েছিল। তা-ও আবার বিজেপি শাসিত উত্তরপ্রদেশে। দিল্লি থেকে বারাণসীর দিকে যাত্রা করার সময়। গুজরাতের গান্ধীনগর থেকে মুম্বইগামী বন্দে ভারতের তৃতীয় ট্রেনেও একাধিক বার পাথর ছোড়ার ঘটনা ঘটেছে। দিল্লি-উনা, চেন্নাই-মাইসুরু এবং বিলাসপুর-নাগপুরগামী বন্দে ভারতেও বিক্ষিপ্ত ভাবে পাথর ছোড়ার ঘটনা ঘটে। পশ্চিমবঙ্গেও একাধিক বার পাথর ছোড়ার ঘটনা ঘটেছে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Vande Bharat Stone Pelting
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE