×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২৫ জুন ২০২১ ই-পেপার

হাই ভোল্টেজ তারের সংস্পর্শে বাসে আগুন, রাজস্থানে অগ্নিদগ্ধ হয়ে মৃত ৬, আহত ৩০

সংবাদ সংস্থা
জয়পুর ১৮ জানুয়ারি ২০২১ ০৯:১০
অগ্নিদগ্ধ সেই বাস। ছবি সৌজন্য টুইটার।

অগ্নিদগ্ধ সেই বাস। ছবি সৌজন্য টুইটার।

হাই ভোল্টেজ তারের সংস্পর্শে এসে বাসের ভিতরেই পুড়ে মৃত্যু হল ৬ জনের। আহত অন্ততপক্ষে ৩০ জন। শনিবার মধ্যরাতে ঘটনাটি ঘটেছে রাজস্থানের জালোর জেলার মহেশপুরা গ্রামে।

পুলিশ সূত্রে খবর, ৪০ জন যাত্রী নিয়ে বেসরকারি বাসটি জালোর থেকে অজমেরের বেওয়ার যাচ্ছিল। বাসের ভিতরে পুণ্যার্থীরা ছিলেন। তাঁরা জৈন মন্দির পরিদর্শন করে বেওয়ারে ফিরছিলেন। ফেরার পথে বাসচালক পথ ভুল করে মহেশপুরা গ্রামের মধ্যে ঢুকে পড়েন। তখনই রাস্তার পাশে হাইভোল্টেজ তারের সংস্পর্শে এসে যায় বাসটি। সঙ্গে সঙ্গে আগুন ধরে যায় তাতে। গ্রামবাসীরা চিৎকার শুনে ছুটে এসে বাস যাত্রীদের অধিকাংশকেই উদ্ধার করেন। কিন্তু তত ক্ষণে গোটা বাসে দাউ দাউ করে আগুন ধরে যায়। চালক ও কন্ডাকটর-সহ ৬ জন বাসের ভিতরেই আটকে পড়েন। অগ্নিদগ্ধ হয়ে মৃত্যু হয় প্রত্যেকের।

জালোরের ডেপুটি পুলিশ সুপার এস পি হিম্মত সিংহ জানিয়েছেন, আহতদের মধ্যে কয়েক জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। তাঁদের জোধপুরে পাঠানো হয়েছে। বাকিদের জালোরেই চিকিৎসা চলছে। মৃত যাত্রীদের দেহ তাঁদের পরিবারের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে।

Advertisement

আরও পড়ুন: বিধানসভা ভোটে প্রার্থী দেবে শিবসেনা, তৃণমূলের পাশে দাঁড়াতেই সিদ্ধান্ত উদ্ধবের!

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এই ঘটনায় দুঃখপ্রকাশ করে টুইট করে বলেন, ‘জালোর বাস দুর্ঘটনা অত্যন্ত মর্মাহত। এই ঘটনায় বেশ কিছু মানুষের মৃত্যু হয়েছে। তাঁদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানাই। আহতদের দ্রুত সুস্থতা কামনা করছি।’

মুখ্যমন্ত্রী অশোক গহলৌত এই ঘটনায় দুঃখপ্রকাশ করে বলেছেন, ‘মহেশপুরার কাছে বাস দুর্ঘটনা অত্যন্ত দুর্ভাগ্যজনক। ৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। আহত হয়েছেন অনেকে। নিহতদের পরবিবারে প্রতি সমবেদনা জানাচ্ছি। আহতদের দ্রুত আরোগ্য কামনা করছি।’

Advertisement