×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৪ এপ্রিল ২০২১ ই-পেপার

প্রশংসা সত্ত্বেও প্রশ্নের মুখে রাহুল, যোগীরা  

নিজস্ব প্রতিবেদন 
নয়াদিল্লি ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ ০১:৫৮
যোগী আদিত্যনাথ

যোগী আদিত্যনাথ

ঋতুস্রাব নিয়ে তথ্যচিত্র ‘পিরিয়ড, এন্ড অব সেন্টেন্স’-এ উত্তরপ্রদেশের গ্রাম হাপুরের কথা উঠে এসেছে। তথ্যচিত্রটি অস্কার পাওয়ার পরে অভিনন্দন জানাতে ভোলেননি সে রাজ্যের বিজেপি সরকারের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ।

তিনি টুইটারে লিখেছেন, ‘‘হাপুরের প্যাড উইমেন স্নেহা আর তাঁর বন্ধুরা সব বিরুদ্ধ শক্তির সঙ্গে লড়াই করে ঋতুস্রাব নিয়ে প্রচলিত ধ্যানধারণা ভেঙে দিয়েছেন। তাঁদের কাজের মাধ্যমে গোটা দুনিয়াকে অনুপ্রেরণা জুগিয়েছেন। অস্কারের জন্য গুনীত মোঙ্গা আর তাঁর টিমকে আন্তরিক শুভেচ্ছা। এটি স্বাস্থ্য, সচেতনতার, এবং পিরিয়ড: শাস্তির শেষ।’’

টুইট করেছেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গাঁধীও। তাঁর মন্তব্য, ‘‘এই ছবির সঙ্গে জড়িত সবাইকে অভিনন্দন। একটা গুরুত্বপূর্ণ ছবি তৈরি করেছেন আপনারা। শিল্পকলা সব সময়েই অসাধারণ পথে যে কোনও চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হতে পারে। আপনাদের ছবি যে স্বীকৃতি পেল, তা থেকে বাকিরাও কাজে অনুপ্রেরণা খুঁজে পাবে।’’

Advertisement

দেশ জুড়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সরকার স্বচ্ছতা অভিযান, শৌচাগার নির্মাণে নানা প্রকল্প, এমনকি ঋতুস্রাব নিয়ে কুসংস্কার ভাঙতে ‘প্যাডম্যান’-এর মতো ছবিতে উৎসাহ দিচ্ছে ঠিকই। কিন্তু কার্যক্ষেত্রে অনেক প্রতিবেদনে উঠে আসছে, প্রত্যন্ত সব গ্রামে ছবিটা মোটেই সে ভাবে বদলায়নি। উল্টে ‘প্যাডম্যান’-এর প্রচারে গ্রামে গ্রামে স্বাস্থ্যসম্মত স্যানিটারি ন্যাপকিনের ব্যবহার করার কথা বলা হলেও বিজেপি সরকার ন্যাপকিনে জিএসটি চাপিয়ে একপ্রস্ত বিতর্কের মুখে পড়েছিল। পরে অবশ্য সে পথ থেকে ১৮০ ডিগ্রি সরে ন্যাপকিনে জিএসটি শূন্য করে দেন তৎকালীন ভারপ্রাপ্ত অর্থমন্ত্রী পীযূষ গয়াল। তবে একটি মহলের আশঙ্কা, জিএসটি শূন্য হলেও তৈরির খরচ না কমায় আখেরে কোনও সুরাহাই হয়নি। তার সঙ্গে জুড়েছে শবরীমালায় ঋতুমতী মহিলাদের প্রবেশ-বিতর্ক। কংগ্রেস বা বিজেপি, দু’দলই সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ সত্ত্বেও কেরলের ওই মন্দিরে ঋতুমতী মহিলাদের প্রবেশ নিয়ে আপত্তি জানিয়ে এসেছে। এই অবস্থানের পরেও ‘পিরিয়ড, এন্ড অব সেন্টেন্স’ নিয়ে যোগী-রাহুলদের এত মাতামাতি কেন, প্রশ্ন উঠছে নানা মহলে।

Advertisement