Advertisement
১৪ জুন ২০২৪
Anubrata Mondal

দুষ্কর্মের সুফল পাবেন না অনুব্রত: কোর্ট

রাউস অ্যাভিনিউ কোর্টের বিশেষ আদালতের মত, দিল্লিতে ইডি-র জিজ্ঞাসাবাদ পিছিয়ে দিতে, তদন্তের প্রক্রিয়া প্রলম্বিত করতেই অনুব্রত মণ্ডল দিল্লি হাই কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছেন।

অনুব্রত মণ্ডল।

অনুব্রত মণ্ডল। ফাইল চিত্র।

প্রেমাংশু চৌধুরী
নয়াদিল্লি শেষ আপডেট: ২৮ জানুয়ারি ২০২৩ ০৬:২১
Share: Save:

এক দিকে তিনিই ইডি-র দিল্লিতে জিজ্ঞাসাবাদ পিছিয়ে দেবেন। তারপরে ইডি নির্দিষ্ট সময়ে চার্জশিট পেশ করতে পারেনি বলে জামিন চাইবেন। অনুব্রত মণ্ডলকে তাঁর নিজের ‘দুষ্কর্মের সুফল’ তুলতে দেওয়া যায় না বলে রাউস অ্যাভিনিউ কোর্টের বিশেষ আদালত রায় দিল।

রাউস অ্যাভিনিউ কোর্টের বিশেষ আদালতের মত, দিল্লিতে ইডি-র জিজ্ঞাসাবাদ পিছিয়ে দিতে, তদন্তের প্রক্রিয়া প্রলম্বিত করতেই অনুব্রত মণ্ডল দিল্লি হাই কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছেন। একই মামলায় অভিযুক্ত তাঁর দেহরক্ষী সেহগল হোসেনের ক্ষেত্রেও দিল্লিতে নিয়ে এসে জিজ্ঞাসাবাদ ঠেকাতে সর্বোচ্চ আদালত পর্যন্ত গিয়েও লাভ হয়নি। তা সত্ত্বেও অনুব্রত একই পথে গিয়েছেন। আপাত ভাবে তদন্তের প্রক্রিয়া প্রলম্বিত করতে ও ইডি-র জিজ্ঞাসাবাদ পিছিয়ে দিতেই তিনি এ কাজ করেছেন।

প্রসঙ্গত, ২ ফেব্রুয়ারি হাই কোর্টে অনুব্রতের ওই মামলার শুনানি হবে। তার আগে রাউস অ্যাভিনিউ কোর্টের এই রায়ে ইডি-র তদন্তকারী অফিসাররা উজ্জীবিত। তাঁরা আশা করছেন, হাই কোর্টের রায়ও অনুব্রতের বিরুদ্ধেই যাবে।

গরু পাচার মামলায় তাঁকে গ্রেফতার করার পরেও ইডি ৬০ দিনের মধ্যে চার্জশিট দায়ের করতে পারেনি বলে অনুব্রত জামিনের আর্জি জানিয়েছিলেন। গত মঙ্গলবারই সেই জামিনের আর্জি খারিজ হয়ে গিয়েছিল। জামিনের আর্জি খারিজের যুক্তি হিসেবে এরপরে বিস্তারিত রায়ে বিশেষ আদালতের বিচারক রঘুবীর সিংহ বলেছেন, অনুব্রত নিজেই তাঁকে দিল্লিতে হাজির করানোর প্রক্রিয়া ঠেকাতে দিল্লি হাই কোর্টে গিয়েছেন। ফলে ইডি-র তাঁকে হেফাজতে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের প্রক্রিয়াই পিছিয়ে গিয়েছে। এখন আবার অনুব্রতই ৬০ দিন পেরিয়ে গেলেও ইডি চার্জশিট দায়ের করেনি বলে জামিন চাইছেন। তাঁকে নিজের দুষ্কর্মের সুফল তুলতে দেওয়া যায় না।

সিবিআই প্রথমে গরু পাচার মামলায় অনুব্রতকে গ্রেফতার করেছিল। তারপরে ইডি গত ১৭ নভেম্বর তাঁকে আসানসোল জেলেই গ্রেফতার করে। পরের দিনই ইডি অনুব্রতকে দিল্লিতে নিয়ে এসে জিজ্ঞাসাবাদ করার জন্য রাউস অ্যাভিনিউ কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিল। বিশেষ আদালতের বিচারক রঘুবীর সিংহ তাঁর রায়ে বলেছেন, প্রথমে অনুব্রত রাউস অ্যাভিনিউ কোর্টের এক্তিয়ার নিয়ে প্রশ্ন তুলে দিল্লি হাই কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিল। হাই কোর্ট বলে দেয়, রাউস অ্যাভিনিউ কোর্টই নিজের এক্তিয়ার ঠিক করবে। তারপরে আদালত অনুব্রতকে দিল্লিতে হাজির করানোর পরোয়ানা জারির পর তার বিরুদ্ধে দিল্লি হাই কোর্টে মামলা হয়েছে। যার ফয়সালা এখনও হয়নি। ফলে ইডি অনুব্রতকে এখনও নিজেদের হেফাজতে পায়নি।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Anubrata Mondal Cattle Smuggling Scam Delhi
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE