Advertisement
২৬ নভেম্বর ২০২২
Jammu and Kashmir

হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু ধৃত পাক জঙ্গির

শনিবার জম্মু-কাশ্মীরের রাজৌরি জেলায় একটি হাসপাতালে চিকিৎসা চলাকালীন হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেল পাক জঙ্গি তবারক হোসেন।

সেনার গুলিতে আহতও হয়েছিল সে।

সেনার গুলিতে আহতও হয়েছিল সে। প্রতীকী ছবি।

সংবাদ সংস্থা
জম্মু শেষ আপডেট: ০৪ সেপ্টেম্বর ২০২২ ০২:৩১
Share: Save:

সীমান্তে অনুপ্রবেশের সময় ভারতীয় সেনার হাতে দিন পনেরো আগে ধরা পড়েছিল পাক জঙ্গি তবারক হোসেন (৩২)। সেনার গুলিতে আহতও হয়েছিল সে। সেই জঙ্গি শনিবার জম্মু-কাশ্মীরের রাজৌরি জেলায় একটি হাসপাতালে চিকিৎসা চলাকালীন হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেল।

Advertisement

পাক অধীকৃত কাশ্মীরের কোটালির সবজকোট গ্রামের বাসিন্দা তবারক এর আগেও একবার ধরা পড়েছিল। প্রথমবার তাকে ছেড়ে দেয় ভারত সরকার। দ্বিতীয় বার ফের সীমান্ত দিয়ে ভারতে প্রবেশ করতে গিয়ে ফের বাহিনীর হাতে ধরা পড়ে যায়।

সেনা সূত্রে জানা গিয়েছে, তবারক লস্কর-ই- তৈবার প্রশিক্ষিত জঙ্গি এবং পাক সেনার এজেন্ট। ভারতীয় সেনা ছাউনিতে হামলা চালানোর জন্য তাকে পাঠানো হয়। কিন্তু সীমান্ত পার করে ভারতে প্রবেশ করতে গিয়ে সেনা বাহিনীর হাতে ধরা পড়ে যায় সে। গুলিতে গুরুতর জখম হয়। তাকে সেনা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে অস্ত্রোপচার চলাকালীন হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেল তবারক। জানা গিয়েছে, অস্ত্রোপচার চলাকালীন তার রক্তের প্রয়োজন হয়। সেই সময় দু’জন সেনা জওয়ান রক্ত দেন। কিন্তু তাতেও ওই পাক জঙ্গিকে বাঁচানো যায়নি।

এক সেনা আধিকারিক বলেন, “আইনি প্রক্রিয়ায় জন্য রবিবার পুলিশের হাতে তবারকের দেহ তুলে দেওয়া হবে।” বাহিনীর অন্য এক আধিকারিক জানান, জেরার মুখে তবারক স্বীকার করেছিল যে, সে পাক-বাহিনীর এজেন্ট। ভারতে এসে সেনা ছাউনিতে হামলা চালানোর জন্য তাকে ৩০ হাজার পাকিস্তানি মুদ্রা দেওয়া হয়েছিল।

Advertisement
(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.