×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২২ জুন ২০২১ ই-পেপার

প্রবাসে পৌষ পার্বণ, বেঙ্গালুরুতে বাঙালিদের জন্য বসল পৌষালি মেলা

নিজস্ব সংবাদদাতা
বেঙ্গালুরু ১৯ জানুয়ারি ২০২১ ২১:১৪
বেঙ্গালুরুর রামকৃষ্ণ মিশন প্রাঙ্গণে পৌষালি মেলার উদ্বোধন।

বেঙ্গালুরুর রামকৃষ্ণ মিশন প্রাঙ্গণে পৌষালি মেলার উদ্বোধন।
নিজস্ব চিত্র

পৌষ পার্বণে মায়ের হাতের স্বাদ পাওয়া প্রবাসী বাঙালির কল্পনাবিলাস। তবু নস্টালজিয়া আর বঙ্গসন্তান পাশাপাশি হাঁটে। পাওয়া যাবে না জেনেও তীব্র হয় না-পাওয়া ছুঁয়ে দেখার ইচ্ছে। আর সেই ইচ্ছেই বেঙ্গালুরুর বাঙালিদের দুর্গাপুজো কমিটিকে উদ্যোগী করল এই পৌষ পার্বণে প্রবাসের মাটিতে ঘরের স্মৃতি তাজা করার। গত রবিবার, ১৭ জানুয়ারি, বেঙ্গালুরুতে দুর্গাপুজো কমিটির সদস্যরা আয়োজন করেছিলেন এক পৌষালি মেলার।

লক্ষ্য ছিল, বাঙালির ঐতিহ্যের সঙ্গে জড়িয়ে থাকা ‘পিঠে-পুলি’ উৎসবের মেজাজকে প্রবাসে নিয়ে আসা। বেঙ্গালুরুর রামকৃষ্ণ মিশন প্রাঙ্গণে আয়োজন হয়েছিল পিঠে-পুলি উৎসবের। ছিল পিঠে-পায়েসের মতো বাংলার অতুলনীয় স্বাদের সব পার্বণী পদ। এই অতিমারির আবহেও বেঙ্গালুরুর বাসিন্দা বহু বাঙালি এসেছিলেন শুধু পিঠে-পুলির আকর্ষণে।

এক আয়োজকের কথায়, ‘‘আগে নানারকম পিঠে-পুলি বানাতেন ঠাকুমা-দিদিমারা। আজকের ছোট পরিবারে তার অভাব বোধকরি আমরা। সে জন্যই আমাদের সদস্যেরা বেঙ্গালুরুর বাঙালিদের জন্য এই পৌষালি মেলার আয়োজন করেছে।’’

Advertisement
পৌষালি উৎসবে নবান্নের রং।

পৌষালি উৎসবে নবান্নের রং।
নিজস্ব চিত্র।


শুধু খাওয়াদাওয়াই নয়, ছিল নানা অনুষ্ঠানের আয়োজন ছিল এই উৎসবে। নবান্নের সঙ্গে রঙ মিলিয়ে মহিলারা সেজেছিলেন উজ্জ্বল সবুজ পোশাকে। পৌষালি মেলা থেকে উপার্জিত টাকায় দুঃস্থ ও দরিদ্রদের শীতের কম্বল দেওয়া হবে বলেও জানিয়েছেন, বেঙ্গালুরু দুর্গাপুজো কমিটি।

Advertisement