×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

০৫ মার্চ ২০২১ ই-পেপার

লড়াইয়ের হুমকি দিয়ে আলফায় বাঙালি যুবক

রাজীবাক্ষ রক্ষিত 
গুয়াহাটি ২০ জানুয়ারি ২০১৯ ০৫:০৩
হৃদয় সরকার

হৃদয় সরকার

এ বার এক বাঙালি তরুণও যোগ দিল আলফায়! অন্তত তেমনটাই সন্দেহ পুলিশ ও পরিবারের। এডিজি (স্পেশ্যাল ব্রাঞ্চ) পল্লব ভট্টাচার্য জানান, খবর পেয়ে তাকে ফেরানোর চেষ্টা করেও ব্যর্থ হয়েছে অসম ও নাগাল্যান্ড পুলিশ। হৃদয় সরকার ওরফে বাপন নামে ওই যুবক বন্ধুদের জানিয়েছে, আলফা শিবিরে পৌঁছেই সে একে-৫৬ হাতে ছবি পাঠাবে।

নাগরিকত্ব সংশোধনীর প্রস্তাব ওঠার পর থেকে রাজ্যের অনেক যুবক আলফায় যোগ দিয়েছে। তার মধ্যে ছাত্র নেতা যেমন আছে, তেমনই আছে চাকুরিজীবীও। কিন্তু বাঙালিদের বিরুদ্ধে সংগ্রামের হুমকি দেওয়া আলফায় অতীতেও খুব বেশি বাঙালির যোগদানের নজির নেই।

পুলিশ জানায়, ধুবুড়ির গোলকগঞ্জের বাসিন্দা হৃদয় ১৫ জানুয়ারি থেকে নিখোঁজ। তাঁর পরিবার জানায়, বিহুর দিন পিঠের সামগ্রী কিনতে বেরিয়ে ছেলে আর ফেরেনি। পরে সে ‘জয় আই অহম’ লিখে এসএমএস করে জানায়, আলফায় যোগ দিতে যাচ্ছে। ফেসবুকের মাধ্যমে হৃদয় বন্ধুদের জানিয়েছে, তাকে নিয়ে কুড়িজন যুবক দু’টি গাড়িতে তিনসুকিয়া, নাগাল্যান্ড হয়ে ইতিমধ্যেই মায়ানমার ঢুকেছে। আগামী কাল তারা আলফা স্বাধীনের শিবিরে পৌঁছবে। তাঁদের সঙ্গে কৃষ্ণ নামে এক সেনা জওয়ানও রয়েছে বলে সে জানায়। পাঠিয়েছে বেশ কয়েকটি ছবিও।

Advertisement

আরও পড়ুন: কানহাইয়া-চার্জশিট নিলই না আদালত

পরিবারের বক্তব্য, হৃদয়ের সেনাবাহিনীতে যোগ দেওয়ার ইচ্ছা ছিল। ভালবাসত আগ্নেয়াস্ত্র। কিন্তু দেশ সেবার বদলে দেশদ্রোহী সংগঠনে যোগ দেওয়ার ইচ্ছে ছেলের কী ভাবে হল— তা ভেবে পাচ্ছেন না বাবা-মা। দরিদ্র পরিবারের ছেলে হৃদয় সরকারি চাকরির পরীক্ষার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছিল। পল্লববাবু জানান, নামনি অসমের কয়েকজন যুবক আলফা স্বাধীনে যোগ দিতে চলেছে সেই খবর ছিল। হৃদয়ের খবর পেয়েই আমরা তাকে ফেরানোর চেষ্টা চালাই। নাগাল্যান্ড পুলিশকেও জানানো হয়। কিন্তু পুলিশ তাদের ধরার আগেই দলটি মন জেলার সীমানা পার হয়ে মায়ানমারে ঢুকে যায়।

Advertisement