Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৬ অক্টোবর ২০২১ ই-পেপার

জিন্নাকে টেনে বিহারে পুরনো পথে বিজেপি

নিজস্ব সংবাদদাতা
নয়াদিল্লি ১৭ অক্টোবর ২০২০ ০৫:১৬
—ফাইল চিত্র।

—ফাইল চিত্র।

বিহারের বিধানসভা ভোটে ‘পাকিস্তান’ এনে ফেলল বিজেপি।

কংগ্রেস বিহারে ‘জিন্নার সমর্থক’-কে প্রার্থী করেছে বলে আজ কেন্দ্রীয় মন্ত্রী গিরিরাজ সিংহ অভিযোগ তুললেন। তাঁর আঙুল দ্বারভাঙার জল্লে থেকে কংগ্রেস প্রার্থী, আলিগড় মুসলিম বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন ছাত্র-নেতা মশকুর উসমানির দিকে। আড়াই বছর আগে ওই বিশ্ববিদ্যালয় থেকে মহম্মদ আলি জিন্নার ছবি সরানোর দাবি তুলেছিল বিজেপি। ছাত্র সংসদের তৎকালীন সভাপতি উসমানি তার প্রতিবাদ করেছিলেন।

গিরিরাজের প্রশ্ন, কংগ্রেস কি দেশভাগের জন্য দায়ী জিন্নাকে সমর্থন করে? কংগ্রেস ও মহাজোটের নেতাদের উত্তর দিতে হবে, তাঁদের প্রার্থী জিন্নাকে সমর্থন করেন কি না। টুইটারে বিজেপি সভাপতি জে পি নড্ডা লেখেন, ‘‘কংগ্রেসের যে-হেতু সুশাসনের বিষয়ে কিছু বলার নেই, তাই তারা ‘ভারত ভাগ’ নিয়ে নোংরা কৌশল শুরু করেছে। রাহুল গাঁধী পাকিস্তানের প্রশংসা করছেন। চিদম্বরম বলছেন, কংগ্রেস ৩৭০ অনুচ্ছেদ ফেরাতে চায়। লজ্জাজনক!’’

Advertisement

কংগ্রেস-আরজেডি-বাম নেতারা বলছেন, এটা বিজেপির পুরনো চাল। ভোটের মেরুকরণ করতে, অন্য সব বিষয় থেকে নজর ঘোরাতে যে কোনও ভোটেই বিজেপি পাকিস্তান টেনে আনে। ২০১৭-য় গুজরাতের বিধানসভা ভোটের সময়ে নরেন্দ্র মোদী অভিযোগ করেছিলেন, পাকিস্তান গুজরাতের ভোটে নাক গলানোর চেষ্টা করছে। মনমোহন সিংহের নাম টেনে আনতেও দ্বিধা করেননি তিনি।

আবার পাঁচ বছর আগে যখন বিজেপির বিরুদ্ধে নীতীশ কুমার-লালু প্রসাদ জোট বেঁধেছিলেন, তখন অমিত শাহ বিহারে অভিযোগ তুলেছিলেন, আরজেডি-জেডিইউ জোট জিতলে পাকিস্তানে বাজি ফাটানো হবে। সম্প্রতি স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী নিত্যানন্দ রাই দাবি করেছেন, আরজেডি-কংগ্রেস জোট জিতলে বিহার কাশ্মীরি সন্ত্রাসবাদীদের স্বর্গরাজ্য হয়ে উঠবে।

কংগ্রেসের ব্যাখ্যা, আলিগড়ে অশান্তি তৈরি করতে জিন্নার ছবি সরানোর দাবি তুলেছিলেন স্থানীয় বিজেপি সাংসদ সতীশ গৌতম। উসমানির নেতৃত্বে পড়ুয়ারা তার প্রতিবাদ জানিয়ে বলেছিলেন, ১৯৩৮ থেকেই বিশ্ববিদ্যালয়ে জিন্নার ছবি ঝুলছে। ওই সময়ে দেশের অন্য নেতাদের সঙ্গে জিন্নাকেও ছাত্র সংসদের সাম্মানিক সদস্যপদ দেওয়া হয়েছিল। বম্বে হাইকোর্টেও জিন্নার ছবি রয়েছে। উসমানিকে ‘জিন্না সমর্থক’-বলাটা বিজেপির মেরুকরণেরই চেষ্টা।

আরও পড়ুন

Advertisement