Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৮ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

ফের প্ররোচনায় বিজেপি, ভারত মুসলিমদের জন্য নয়, মন্তব্য কাটিয়ারের

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ ১৯:৫০
বিজেপি সাংসদের মন্তব্য বিরূপ প্রতিক্রিয়ার জন্ম দিয়েছে রাজনৈতিক শিবিরে। —ফাইল চিত্র।

বিজেপি সাংসদের মন্তব্য বিরূপ প্রতিক্রিয়ার জন্ম দিয়েছে রাজনৈতিক শিবিরে। —ফাইল চিত্র।

ফের বেফাঁস মন্তব্য বিজেপি সাংসদের। ভারতে কেন থাকেন মুসলিমরা, কেন পাকিস্তান বা বাংলাদেশে যান না? প্রশ্ন তুললেন উত্তরপ্রদেশের ফায়ারব্র্যান্ড হিন্দুত্ববাদী নেতা বিনয় কাটিয়ার। বিতর্কিত, বেফাঁস এবং উত্তেজক মন্তব্যের জন্য কাটিয়ার বার বার শিরোনামে এসেছেন আগেও। কিন্তু উত্তরপ্রদেশের কাসগঞ্জে সাম্প্রদায়িক অশান্তির রেশ কাটার আগেই যে ভাবে সে রাজ্যের এক বিজেপি সাংসদ এই রকম মন্তব্য করলেন, তাতে তীব্র প্রতিক্রিয়া তৈরি হয়েছে রাজনৈতিক শিবিরে।

বিশ্ব হিন্দু পরিষদের যুব সংগঠন বজরঙ্গ দলের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি বিনয় কাটিয়ার। অযোধ্যায় বাবারি ধ্বংস কাণ্ড এবং রাম মন্দির আন্দোলনের একেবারে সামনের সারির মুখ বিনয় কাটিয়ার। তাজমহল একটি মন্দিরের উপর তৈরি হয়েছে বলে যে তত্ত্ব সম্প্রতি খাড়া করার চেষ্টা চলছে, বিনয় কাটিয়ার সেই তত্ত্বের সমর্থক। তাজমহলের নাম বদলে তেজমহল করার দাবিও তিনি তুলেছেন সম্প্রতি। এ বার তিনি দাবি তুললেন, যাঁরা বন্দে মাতরম বলেন না এবং ভারতের জাতীয় পতাকাকে শ্রদ্ধা করেন না, তাঁদের শাস্তি দিতে হবে।

অল ইন্ডিয়া মজলিসে ইত্তেহাদুল মুসলিমিন-এর (এআইএমআইএম) প্রধান তথা সাংসদ আসাদুদ্দিন ওয়েইসি সম্প্রতি দাবি তুলেছেন, যাঁরা ভারতীয় মুসলিমদের ‘পাকিস্তানি’ বলেন, আইন করে তাঁদের অন্তত তিন বছরের কারাদণ্ডের ব্যবস্থা করতে হবে। ওয়েইসির বক্তব্য, জিন্নার দ্বিজাতি-তত্ত্বের বিপক্ষে গিয়ে কোটি কোটি মুসলিম ভারতেই থেকে গিয়েছিলেন। তাই ভারতীয় মুসলিমদের ‘পাকিস্তানি’ আখ্যা দিলে তাঁদের অপমান করা হয়।

Advertisement

আরও পড়ুন: সংসদে রুদ্রমূর্তি মোদীর, নেহরু-গাঁধী পরিবারকে তীব্র আক্রমণ

ওয়েইসির মন্তব্যেরই জবাব দিতে চেয়েছেন কাটিয়ার। বুধবার তিনি বলেছেন, ‘‘ভারতে থাকা উচিত নয় মুসলিমদের। জনসংখ্যার ভিত্তিতে তাঁরা দেশকে ভাগ করেছেন। তার পরেও তাঁরা এখানে কেন? মুসলিমদেরকে তো তাঁদের ভাগ দিয়ে দেওয়া হয়েছে। তাঁদের বাংলাদেশ বা পাকিস্তানে যাওয়া উচিত।’’

আরও পড়ুন: প্রশ্ন তুলছেন কেন, চার বছরে নিজে কী করলেন বলুন: কটাক্ষে রাহুল

উত্তরপ্রদেশ থেকে নির্বাচিত বিজেপি সাংসদ আরও বলেছেন, ‘‘যাঁরা বন্দে মাতরমকে শ্রদ্ধা করেন না, যাঁরা দেশের জাতীয় পতাকাকে অসম্মান করেন, অথবা যাঁরা পাকিস্তানের পতাকা তোলেন’’, আইন প্রণয়ন করে তাঁদের শাস্তির ব্যবস্থা করা উচিত। কাসগঞ্জে সাম্প্রতিক অশান্তির পিছনে ‘পাকিস্তান-পন্থী’ লোকজনের হাত রয়েছে বলেও বিনয় কাটিয়ার দাবি করেছেন।



Tags:
Vinay Katiyar BJP MP Polarization Communal Politicsবিনয় কাটিয়ারবিজেপি

আরও পড়ুন

Advertisement