Advertisement
০৬ ডিসেম্বর ২০২২
Ajay Mishra Teni

Ajay Mishra Teni: ঘেউ ঘেউ করতে করতে কুকুর গাড়িকে তাড়া করবেই! ফের ঘৃণাভাষণ অজয় মিশ্র টেনির

কৃষি আইনের প্রতিবাদে বিক্ষোভরত কৃষকদের গায়ের উপর গাড়ি তুলে দেন অজয়ের ছেলে আশিস। তাতে ঘটনাস্থলেই চার কৃষক এবং এক সাংবাদিকের মৃত্যু হয়।

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী অজয় মিশ্র টেনি।

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী অজয় মিশ্র টেনি। ফাইল ছবি।

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি শেষ আপডেট: ২৩ অগস্ট ২০২২ ১৮:৫২
Share: Save:

আবার ঘৃণাভাষণ দিয়ে শিরোনাম দখল উত্তরপ্রদেশের লখিমপুর খেরির বিজেপি নেতা তথা কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী অজয় মিশ্র টেনির। সরাসরি কৃষকদের নাম না করে বললেন, ‘‘ঘেউ ঘেউ করতে করতে কুকুর গাড়িকে তাড়া করবেই। কারণ এটাই তাদের স্বভাব।’’ পাশাপাশি কৃষকনেতা রাকেশ টিকায়েতকেও আপত্তিকর ভাষায় আক্রমণ করেছেন অমিত শাহের মন্ত্রকের প্রতিমন্ত্রী অজয়।

Advertisement

গাড়ির চাকায় বিক্ষোভরত কৃষকদের পিষে মারার মামলায় জেলবন্দি ছেলে আশিস। আর বাবা অজয় বললেন, ‘‘ধরুন, আমি গাড়িতে লখনউ যাচ্ছি। গাড়ি ভালই গতিতে ছুটছে। কুকুররা চিৎকার করবেই। তারা হয় ঘেউ ঘেউ করবে, বা গাড়ির পিছনে তাড়া করবে। কারণ, এটাই তাদের স্বভাব, আমাদের নয়।’’

প্রসঙ্গত, অজয় সরাসরি কৃষকদের নাম করেননি। কিন্তু যে প্রেক্ষিতে অমিত শাহের ডেপুটি এ কথা বলেছেন, তাতে নিজের ছেলের কৃতকর্মের কথাই অজয় বলতে চেয়েছেন বলে মনে করছেন রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকরা। যদিও এত দিনে ছেলের কীর্তি নিয়ে একটি কথাও বলতে শোনা যায়নি অজয়কে। কিন্তু তাঁর সাম্প্রতিকতম মন্তব্যে অনেকেই গত বছরের ৩ অক্টোবরের ঘটনার যোগ খুঁজে পাচ্ছেন। সে দিন কৃষি আইনের বিরুদ্ধে বিক্ষোভরত কৃষকদের গায়ের উপর দিয়ে গাড়ি উঠিয়ে দিয়ে চার জন কৃষক এবং এক সাংবাদিককে পিষে মারেন বলে অভিযোগ। এই ঘটনার পর গোলমালে আরও তিন কৃষকের মৃত্যু হয়।

এরই পাশাপাশি কৃষক নেতা রাকেশ টিকায়েতকেও আপত্তিকর ভাষা ব্যবহার করে আক্রমণ করেন বিজেপি সাংসদ। ঘটনাচক্রে, লখিমপুর খেরি এলাকায় সম্প্রতি মন্ত্রিত্ব থেকে অজয়ের বহিষ্কার চেয়ে কৃষক সমাবেশের আয়োজন করেছিলেন রাকেশ। সেখানে কৃষকদের অংশগ্রহণ ছিল চোখে পড়ার মতো। তার পরই পাল্টা সমাবেশের আয়োজন করে বিজেপি। তাতেই স্থানীয় সাংসদ অজয় কৃষকদের নিয়ে এই মন্তব্য করেন।

Advertisement

অজয়ের এই মন্তব্য নিয়ে রাকেশের পাল্টা খোঁচা, ‘‘অজয়ের ছেলে কৃষকদের খুন করার অভিযোগে জেলে রয়েছেন। তাই রেগে গিয়ে তিনি এই সব বলছেন। ওঁর ব্যথা আমি বুঝতে পারছি।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.