Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৪ অগস্ট ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

‘দেওয়াল না তুলে সেতু বানান’, দিল্লির তিন সীমানা আটকানো নিয়ে কেন্দ্রকে কটাক্ষ রাহুলের

কাঁটাতারের বেড়া, অস্থায়ী দেওয়াল তুলে সিঙ্ঘু, টিকরি এবং গাজিপুর সীমানাকে নিরাপত্তার দুর্গে পরিণত করেছে দিল্লি পুলিশ।

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি ০২ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ১৩:৪৯
Save
Something isn't right! Please refresh.
গ্রাফিক: শৌভিক দেবনাথ।

গ্রাফিক: শৌভিক দেবনাথ।

Popup Close

রাস্তায় দেওয়াল না তুলে সেতু তৈরি করুন। চলতি আন্দোলন ঘিরে সরকারের সঙ্গে কৃষকদের বেড়ে চলা দূরত্বের দিকে ইঙ্গিত করে রাহুল গাঁধী আজ এই মন্তব্য করেছেন। দিল্লির তিন সীমানা আটকানোর ছবি টুইট করে কেন্দ্রকে খোঁচা দিলেন কংগ্রেস নেতা।

কৃষি আইন নিয়ে কৃষকদের পাশে দাঁড়িয়ে লাগাতার কেন্দ্রের বিরুদ্ধে তোপ দেগেছেন রাহুল। মঙ্গলবারও তার অন্যথা হল না। এ বার কটাক্ষের সুরেই কেন্দ্রকে বিঁধলেন তিনি। গত সপ্তাহেই সাংবাদিক বৈঠকে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলে তাঁকে বলতে শোনা গিয়েছিল, সরকার কৃষকদের মারছে, হুমকি দিচ্ছে। এই আইন প্রত্যাহার করে নেওয়া উচিত সরকারের।

আগামী ৬ ফেব্রুয়ারি দেশ জুড়ে তিন ঘণ্টার ‘চাক্কা জ্যাম’-এর ডাক দিয়েছে কৃষক সংগঠনগুলো। দুপুর ১২টা থেকে ৩ পর্যন্ত চলবে এই কর্মসূচি। পরিস্থিতির যাতে অবনতি না ঘটে তার জন্য আগেভাগেই পদক্ষেপ করেছে প্রশাসন। সিঙ্ঘু, টিকরি এবং গাজিপুর সীমানাকে নিরাপত্তার দুর্গে পরিণত করেছে দিল্লি পুলিশ। কাঁটাতারের বেড়া, অস্থায়ী দেওয়াল তুলে তিন-চার স্তরের নিরাপত্তার বলয়ে ঘিরে ফেলেছে ওই তিন এলাকার আন্দোলনস্থল।

Advertisement

সেই ছবি প্রকাশ্যে আসার পর টুইট করেন রাহুল গাঁধী। কেন্দ্র সরকারকে খোঁচা দিয়ে তিনি বলেন, ‘দেওয়াল না তুলে, সেতু বানান’।

গত ২৬ জানুয়ারি কৃষক আন্দোলনকে ঘিরে হিংসা ছড়িয়েছিল দিল্লিতে। দফায় দফায় পুলিশের সঙ্গে বিক্ষোভকারীদের সংঘর্ষে দু’পক্ষের অনেকেই আহত হন। গ্রেফতার করা হয় ৮৪ জন বিক্ষোভকারীকে। সেই ঘটনার পর দিল্লি পুলিশ এবং সরকার আর ঝুঁকি নিতে চায়নি। কৃষক সংগঠনগুলো ‘চাক্কা জ্যাম’ ঘোষণা করতেই আরও মজবুত করা হয়েছে ওই তিন সীমানার নিরাপত্তা।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)


Something isn't right! Please refresh.

Advertisement