Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৯ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

প্লাজমা থেরাপির পর এ বার কি বাতিলের পথে রেমদেসিভির

করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের তাণ্ডবের মুখে অক্সিজেনের পাশাপাশি রেমদেসিভিয়ারের জন্যও হাহাকার চলছে দেশে। ওষুধটির দেদার কালোবাজারির অভিযোগ উঠছে।

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি ২০ মে ২০২১ ০৭:৩৩
প্রতীকী ছবি।

প্রতীকী ছবি।

কোভিডের চিকিৎসা পদ্ধতির তালিকা থেকে সদ্য বাদ পড়েছে প্লাজ়মা থেরাপি। শীঘ্রই সেই বাতিলের তালিকায় রেমদেসিভিয়ারের নামও জুড়তে পারে বলে দাবি করলেন দিল্লির গঙ্গা রাম হাসপাতালের চেয়ারপার্সন ডি এস রানা।

করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের তাণ্ডবের মুখে অক্সিজেনের পাশাপাশি রেমদেসিভিয়ারের জন্যও হাহাকার চলছে দেশে। ওষুধটির দেদার কালোবাজারির অভিযোগ উঠছে। রানা সংবাদ সংস্থা এএনআই-কে বলেছেন, ‘‘কোভিডের চিকিৎসায় রেমদেসিভিয়ার কাজ করে, এমন কোনও প্রমাণ মেলেনি। যে সমস্ত ওষুধের কার্যকারিতা নেই, সেগুলিকে বাদ দিতেই হবে।’’ রানার মতে, এই মুহূর্তে কোভিডের বিরুদ্ধে মাত্র তিনটি ওষুধ কাজ করছে। প্লাজ়মা থেরাপি বা রেমদেসিভিয়ারের মতো যাবতীয় পরীক্ষামূলক চিকিৎসা পদ্ধতি শীঘ্রই বাতিল হতে পারে। এ কথা ঠিক যে, বৈজ্ঞানিক ভিত্তিতেই প্লাজ়মা চিকিৎসা শুরু হয়েছিল। কিন্তু গত বছর দেখা যায়, প্লাজ়মা দিলেও রোগীর অবস্থার বিশেষ পরিবর্তন হচ্ছে না। তা ছাড়া, বিষয়টি সহজলভ্যও নয়।

দেশে ২৪ ঘণ্টায় কোভিডে মৃতের সংখ্যা আজ প্রথম বার সাড়ে চার হাজার পেরিয়েছে। পরিসংখ্যান বলছে, আমেরিকায় গত জানুয়ারির দৈনিক মৃত্যুর রেকর্ডকে এ দিন পেরিয়ে গিয়েছে ভারত। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক অবশ্য জানিয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় সারা দেশে করোনা-আক্রান্তের চেয়ে কোভিডজয়ীর সংখ্যাটা এক লক্ষেরও বেশি। এই সময়ের মধ্যে ভারতে রেকর্ড সংখ্যক, ২০ লক্ষেরও বেশি করোনা পরীক্ষা হয়েছে। সংক্রমণের হার নেমেছে ১৩.৩১ শতাংশে। দিল্লিতে সংক্রমণের গ্রাফ নামছে। গত ২৪ ঘণ্টায় রাজধানীতে করোনা পজ়িটিভ ৩৮৪৬ জন। গত ৫ এপ্রিলের পরে সংক্রমণ এতটা নামেনি দিল্লিতে। অনেকের তাই সন্দেহ, লকডাউনের মেয়াদ আরও বাড়াতে পারে অরবিন্দ কেজরীবাল সরকার। দিল্লির চিকিৎসকদের অবশ্য বাড়তি চিন্তা হয়ে দাঁড়িয়েছে ব্ল্যাক ফাঙ্গাসের সংক্রমণ। হাসপাতালগুলিতে এই রোগে সংক্রমিতদের সংখ্যা বাড়ছে, যাঁদের অনেকেই কোভিডজয়ী। বিশেষজ্ঞদের একাংশ এ নিয়ে ক্রমাগত সতর্ক করে বলছেন যে, কোভিড রোগীদের চিকিৎসায় স্টেরয়েড যেন বুঝেসুজে ব্যবহার করা হয়।

Advertisement

প্রথম ভারতীয় শহর হিসেবে মুম্বইয়ে নিজস্ব উদ্যোগে প্রতিষেধক আমদানি করার লক্ষ্যে গত সপ্তাহেই গ্লোবাল টেন্ডার ডেকেছিল বৃহন্মুম্বই পুরসভা। এক কোটি স্পুটনিক-ভি প্রতিষেধক আনাতে চায় তারা। পুর-কমিশনার ইকবাল সিংহ চহাল জানিয়েছেন, ওই টিকা আনাতে সাতশো কোটি টাকা খরচ ধরা হয়েছে। টেন্ডারে ইতিমধ্যেই হায়দরাবাদের দু’টি সংস্থা ও লন্ডনের একটি সংস্থা সাড়া দিয়েছে। তাদের কাছে স্পুটনিকের ডিস্ট্রিবিউটরশিপ রয়েছে। ১৮-৪৪ বছর বয়সিদের জন্য ১০ কোটি এবং বয়স্কদের জন্য ৫ কোটি টিকা লাগবে বলে ধরে নিয়েই এগোচ্ছে পুরসভা। চহাল বলেন, ‘‘১৫ কোটি টিকা পেলে ৬০ দিনের মধ্যে সারা শহরের টিকাকরণ শেষ করার পরিকল্পনা রয়েছে আমার। এ ভাবেই সংক্রমণের তৃতীয় ঢেউকে ঠেকানো যাবে বলে আমি নিশ্চিত।’’ দেশ-বিদেশের প্রায় সমস্ত গুরুত্বপূর্ণ টিকা উৎপাদক সংস্থার কাছেই ২৫ মে-র মধ্যে দরপত্র আহ্বান করা হয়েছে। এ দিকে, ওড়িশা পুলিশ জানিয়েছে, গত ২৭ দিনে তাদের তত্ত্বাবধানে ১৪টি রাজ্যে তরল অক্সিজেনের ৯১৯টি ট্যাঙ্কার পৌঁছে দেওয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন

Advertisement