Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২০ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

শীতের আগমনের মধ্যেই দক্ষিণে ঘূর্ণিঝড়ের শঙ্কা 

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ২৪ নভেম্বর ২০২০ ০৫:০২
বরফ-সাদা: মাথা বাঁচিয়ে। সোমবার শ্রীনগর শহরতলিতে। পিটিআই

বরফ-সাদা: মাথা বাঁচিয়ে। সোমবার শ্রীনগর শহরতলিতে। পিটিআই

এক দিকে দেশে শীতের সূচনা অন্য দিকে দক্ষিণ ভারতে ঘূর্ণিঝড়ের ভ্রুকুটি।

রাজধানীতে আজ, সোমবার উষ্ণতা নামল ৬.৩ ডিগ্রি সেলসিয়াসে। যা স্বাভাবিকের থেকে পাঁচ ডিগ্রি কম। মৌসম ভবন জানিয়েছে, ২০০৩ সালের পরে চলতি নভেম্বরের এই উষ্ণতাই সর্বনিম্ন। রবিবার দিনের বেলায় সর্বনিম্ন ও সর্বোচ্চ চাপমাত্রা ছিল যথাক্রমে ৬.৯ এবং ২৪.২। মৌসম ভবনের রিজিয়োনাল ফোরকাস্টিং সেন্টারের প্রধান কুলদীপ শ্রীবাস্তব জানিয়েছেন, সফদরজং অবজ়ারভেটরির তথ্য অনুযায়ী ২০০৩ সালের (৬.১) পরে নভেম্বরে সর্বনিম্ন উষ্ণতা (৬.৩) আজই। তিনি জানিয়েছেন, লোধী রোডের আবহাওয়া কেন্দ্রে পারদ নেমেছে ৬.৪ ডিগ্রিতে। পশ্চিম হিমালয় থেকে বয়ে আসা ঠান্ডা বায়ুর প্রভাবেই এই পারদ পতন বলে মত শ্রীবাস্তবের।

সমতলের ক্ষেত্রে পর পর দু’দিন উষ্ণতা ১০ ডিগ্রি বা তার কম থাকলে এবং স্বাভাবিকের থেকে ৪.৫ ডিগ্রি উষ্ণতা কম থাকলে তাকে শৈত্যপ্রবাহ ঘোষণা করে মৌসম ভবন।

Advertisement

পারদ নামছে লখনউয়েও। ২০১৭ সালের পরে চলতি বছরের নভেম্বরের সকালেই সব চেয়ে কম উষ্ণতার সাক্ষী থাকল লখনউ (৯.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস)।

গত বছরের ২০ নভেম্বরে ১২.৬ ডিগ্রি এবং ২০১৮-র ৮ নভেম্বরে উষ্ণতা ছিল ১০.২। ২০১৭ সালে অবশ্য গত কয়েক বছরের তুলনায় সবচেয়ে কম উষ্ণতা দেখা গিয়েছিল (৮ ডিগ্রি)। বেনারসে রাতে অবশ্য এক দশকে সবচেয়ে কম উষ্ণতা (৯.৪) এ বারেই। কানপুরেও গত এক দশকের মধ্যে চলতি নভেম্বরেই উষ্ণতা সর্বনিম্ন (১০)।

অন্য দিকে বঙ্গোপসাগরে উদ্ভূত নিম্নচাপের জেরে আগামিকাল, মঙ্গলবার প্রবল ঘূর্নিঝড় নিভার তামিলনাড়ু ও পুদুচেরির দিকে ধেয়ে আসছে বলে জানিয়েছে মৌসম ভবন। ২৪ থেকে ২৬ তারিখের মধ্যে তামিলনাড়ু, পুদুচেরির পাশাপাশি অন্ধ্রপ্রদেশের দক্ষিণ উপকূলীয় অংশ, রায়লসীমা ও তেলঙ্গানায় এই ঝড় আছড়ে পড়বে বলে পূর্বাভাস মৌসম ভবনের। আজ থেকেই দক্ষিণ ভারতের উপকূলীয় রাজ্যগুলিতে শুরু হয়েছে বৃষ্টিপাত।

তামিলনাড়ুর আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে, চেন্নাইয়ের দক্ষিণে ৭৪০ কিলোমিটার দূরে অবস্থান করছে নিম্নচাপটি। জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা কমিটি (এনসিএমসি) জানিয়েছে, ঘূর্ণিঝড় নিভার-এর পূর্বাভাসের ভিত্তিতে আপাতত সমুদ্রে যেতে বারণ করা হয়েছে মৎস্যজীবীদের।

আরও পড়ুন

Advertisement