Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০৬ ডিসেম্বর ২০২১ ই-পেপার

৩০ নভেম্বর থেকে ঝাড়খণ্ডে পাঁচ দফায় ভোট, ফল ২৩ ডিসেম্বর, ঘোষণা কমিশনের

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি ০১ নভেম্বর ২০১৯ ১৬:৫৯
সাংবাদিক বৈঠকে সুনীল অরোরা। ছবি: টুইটার

সাংবাদিক বৈঠকে সুনীল অরোরা। ছবি: টুইটার

৩০ নভেম্বর থেকে পাঁচ দফায় বিধানসভা ভোট হতে চলেছে ঝাড়খণ্ডে। ফল ঘোষণা হবে ২৩ ডিসেম্বর। শুক্রবার এ কথা ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন।

মহারাষ্ট্র ও হরিয়ানা বিধানসভা নির্বাচনের ফল ঘোষণার কয়েকদিনের মধ্যেই ঝাড়খণ্ডের ভোট নির্ঘণ্ট ঘোষণা করল নির্বাচন কমিশন। এ দিন নয়াদিল্লিতে সাংবাদিক বৈঠক করে এই ঘোষণা করেন মুখ্য নির্বাচন কমিশনার সুনীল অরোরা। গত বারের মতো, এ বারও পাঁচ দফায় ওই রাজ্যে ভোট হবে বলে জানিয়েছেন তিনি। ৩০ নভেম্বর থেকে শুরু হচ্ছে ঝাড়খণ্ডের নির্বাচনী লড়াই। ওই দিন রাজ্যের ১৩টি আসনে ভোট হবে। ৭ ডিসেম্বর রাজ্যে দ্বিতীয় দফায় ভোট হবে ২০টি বিধানসভা আসনে। ঝাড়খণ্ডে তৃতীয় দফায় ভোট হচ্ছে ১২ ডিসেম্বর। ওই দিন রাজ্যের ১৭ আসনে ভোট হবে। চতুর্থ দফায় অর্থাৎ ১৬ ডিসেম্বর রাজ্যের ১৫ আসনে ভোট হবে। পঞ্চম অর্থাৎ শেষ দফায় ভোট হবে ১৯ ডিসেম্বর, রাজ্যের ১৬টি আসনে। এ জন্য ২০ শতাংশ ভোটগ্রহণ কেন্দ্রও ওই রাজ্যে বাড়ানো হয়েছে। কমিশন জানিয়েছে, ঝাড়খণ্ড ও পশ্চিমবঙ্গে ভোটের পরিস্থিতি খতিয়ে দেখে নির্বাচন কমিশনের বিশেষ প্যানেল। তার পরই ভোটের দিনক্ষণ নিয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

ঝাড়খণ্ডে মোট ৮১টি বিধানসভা আসন রয়েছে। মহারাষ্ট্র ও হরিয়ানার মতো ওই রাজ্যেও ক্ষমতায় রয়েছে বিজেপি। তাদের সঙ্গে জোট সঙ্গী হিসাবে রয়েছে আজসু (অল ঝাড়খণ্ড স্টুডেন্টস ইউনিয়ন)। ওই রাজ্যে বিজেপির দখলে রয়েছে মোট ৩৫ টি আসন ও আজসু-র দখলে রয়েছে ১৭ টি আসন। গত লোকসভা নির্বাচনেও ঝাড়খণ্ডে দুর্দান্ত ফল করে বিজেপি। কার্যত গেরুয়া ঝড়
দেখা যায় রঘুবর দাসের রাজ্যে। মোট ১৪টি লোকসভা আসনের মধ্যে ১২টি দখল করে পদ্মশিবির। সেই ঝড় এ বারও দেখা যাবে বলেই মনে করছে বিজেপি শিবির। বিজেপির বিরুদ্ধে লড়াইয়ের জন্য কোমর বাঁধছে কংগ্রেস ও ঝাড়খণ্ড মুক্তি মোর্চা (জেএমএম)। তবে তাদের মধ্যে এখনও আসন ভাগাভাগি হয়ে ওঠেনি। লোকসভা ভোটে কংগ্রেস-সহ অন্যান্য বিরোধীরা দেশ জুড়ে ধাক্কা খেলেও, মহারাষ্ট্র ও হরিয়ানার বিধানসভা নির্বাচনের লড়াইতে খানিকটা হলেও জমি ফিরে পেয়েছে। সেই আবহে এবার জমে উঠল ঝাড়খণ্ডের ভোট যুদ্ধও।

Advertisement

আরও পড়ুন

Advertisement