Advertisement
১৯ জুলাই ২০২৪
K Kavitha

‘১০০ কোটি টাকা ঘুষের বিনিময়ে বেআইনি সুবিধা নিয়েছেন’! কবিতার বিরুদ্ধে চার্জশিটে অভিযোগ ইডির

দিল্লির আবগারি দুর্নীতি মামলায় গত ১৫ মার্চ দুপুরে কবিতার হায়দরাবাদের বাড়িতে হানা দিয়েছিল ইডি। সে দিনই তাঁকে গ্রেফতার করা হয়েছিল। বর্তমানে কবিতা তিহাড় জেলে বন্দি।

কে কবিতা।

কে কবিতা। — ফাইল চিত্র।

আনন্দবাজার অনলাইন ডেস্ক
কলকাতা শেষ আপডেট: ০৩ জুন ২০২৪ ১৯:৪০
Share: Save:

দিল্লির আবগারি দুর্নীতি মামলায় ধৃত ভারত রাষ্ট্র সমিতি (বিআরএস)-র নেত্রী কে কবিতার বিরুদ্ধে ১০০ কোটি টাকা ঘুষ দেওয়ার অভিযোগ আনল এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি)। প্রকাশিত একটি খবরে দাবি, দিল্লির আদালতে ইডি জানিয়েছে, ঘুষের বিনিময়ে সরকারি নীতিতে বদল ঘটিয়ে দিল্লিতে মদের দোকানের লাইসেন্স বণ্টনের ক্ষেত্রে বেআইনি সুবিধা পেয়েছিলেন তেলঙ্গানার প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী কে চন্দ্রশেখর রাও (কেসিআর)-এর কন্যা কবিতা।

দিল্লির আবগারি দুর্নীতি মামলায় গত ১৫ মার্চ দুপুরে কবিতার হায়দরাবাদের বাড়িতে হানা দেয় ইডি। চলে তল্লাশি এবং জিজ্ঞাসাবাদ। তার পর বিকেলে বাড়ি থেকেই তাঁকে গ্রেফতার করে দিল্লি নিয়ে যাওয়া হয়। ইডির গ্রেফতারি ‘বেআইনি’ বলে দাবি করেন কবিতা। ইডির গ্রেফতারিকে চ্যালেঞ্জ করে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিলেন চন্দ্রশেখরের কন্যা। যদিও শীর্ষ আদালত কবিতার আবেদনে সাড়া দেয়নি। এখনও জেলেই রয়েছেন তিনি।

প্রসঙ্গত, এর আগে আর এক কেন্দ্রীয় সংস্থা সিবিআই আদালতে দাবি করেছিল, দক্ষিণের এক মদ ব্যবসায়ীর কাছ থেকে ১০০ কোটি টাকা নেওয়ার ব্যাপারে কবিতার সক্রিয় ভূমিকা ছিল। কেন্দ্রীয় সংস্থাটির তরফে দাবি করা হয়েছিল, ২০২২ সালের ১৬ মার্চ দক্ষিণ ভারতের এক মদ ব্যবসায়ী দিল্লিতে গিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর অফিসে গিয়ে অরবিন্দ কেজরীওয়ালের সঙ্গে দেখা করেন। ব্যবসা করার জন্য কেজরীওয়ালের সহায়তা চেয়েছিলেন ওই ব্যবসায়ী। দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী তাঁকে আশ্বস্ত করেছিলেন। পাশাপাশি এই বিষয়ে আলোচনা করার জন্য কবিতার সঙ্গে যোগাযোগ করতে বলেছিলেন। এমনকি, সুবিধা পাইয়ে দেওয়ার জন্য টাকারও লেনদেন হয়েছিল। সেই ‘লেনদেনেরই’ উৎস সন্ধানে নেমে কবিতার বিরুদ্ধে চার্জশিট দিল সিবিআই।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE