Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৮ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

কয়লা মামলা

ফের কাঠগড়ায় মনমোহন

এক বারের সমন স্থগিত হয়েছিল শীর্ষ আদালতে। কিন্তু কয়লা কেলেঙ্কারি মামলায় প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংহের দিকে ফের আঙুল উঠল।

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি ১৮ অগস্ট ২০১৫ ০৩:৩৭
Save
Something isn't right! Please refresh.
Popup Close

এক বারের সমন স্থগিত হয়েছিল শীর্ষ আদালতে। কিন্তু কয়লা কেলেঙ্কারি মামলায় প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংহের দিকে ফের আঙুল উঠল। এ বার তাঁকে অভিযুক্ত হিসেবে সমন পাঠানোর আবেদন জানিয়েছেন ঝাড়খণ্ডের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী মধু কোড়া। তিনি নিজেও এই মামলায় অভিযুক্ত।

কুমারমঙ্গলম বিড়লার সংস্থা হিন্দালকোকে বেআইনি ভাবে কয়লাখনি দেওয়ার অভিযোগে সমন পেয়েছিলেন মনমোহন। হিন্দালকো কয়লাখনি পাওয়ার সময়ে কয়লা মন্ত্রকের দায়িত্বেও ছিলেন তিনি। সেই সমন সুপ্রিম কোর্টে স্থগিত হয়ে যায়। তাতে সাময়িক ভাবে স্বস্তি পেয়েছিলেন মনমোহন। ওই সমনকে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত বলে পুরোপুরি মনমোহনের পাশে দাঁড়ায় কংগ্রেস। বিজেপি সরকারই মনমোহনের বিরুদ্ধে প্রতিশোধের রাজনীতি করছে বলে দাবি করেছিল তারা। শীর্ষ আদালতে শুনানির আগে দলের শীর্ষ নেতাদের সঙ্গে মনমোহনের বাড়িতে মিছিল করে গিয়ে পাশে থাকার বার্তা দিয়েছিলেন সনিয়া গাঁধী। কিন্তু আজ বিশেষ সিবিআই বিচারক ভরত পরাশরের এজলাসে পেশ করা মধু কোড়ার আর্জি ফের তাঁকে প্যাঁচে ফেলতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। পরাশরের এজলাস থেকেই হিন্দালকো মামলায় সমন জারি হয়েছিল। ১৪ সেপ্টেম্বর ফের ওই মামলার শুনানি হবে।

ঝাড়খণ্ডের অমরকোন্ডা মুরগাডঙ্গল খনি জিন্দল গোষ্ঠীকে বেআইনি ভাবে দেওয়ায় অভিযুক্ত মধু কোড়া। সেই মামলারও শুনানি চলছে পরাশরের এজলাসে। আজ তাঁর পক্ষে সেখানে জানানো হয়েছে, ওই কয়লাখনি দেওয়ার সময়েও কয়লা মন্ত্রকের দায়িত্বে ছিলেন মনমোহন। সাক্ষ্যপ্রমাণ দেখে বোঝা যাচ্ছে, তিনিই ‘‘চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত’’ নিয়েছিলেন। তাই অভিযুক্তের তালিকা থেকে তাঁকে বাদ দেওয়া যায় না। সেই সঙ্গে প্রাক্তন শক্তিসচিব আনন্দ স্বরূপ, প্রাক্তন খনি ও ভূতত্ত্ব সচিব জয়শঙ্কর তিওয়ারিকেও অভিযুক্ত হিসেবে সমন পাঠানোর আর্জি জানিয়েছেন মধু কো়ড়ার আইনজীবীরা। ২৮ অগস্ট ফের এই মামলার শুনানি হবে।

Advertisement


Something isn't right! Please refresh.

আরও পড়ুন

Advertisement