Advertisement
১৬ জুলাই ২০২৪
National news

ধর্ষণে বাধা, ছাত্রীকে পিটিয়ে মেরে ঝুলিয়ে দেওয়া হল গাছে

পশ্চিম উত্তরপ্রদেশের মৈনপুরী জেলায় মঙ্গলবার এই ঘটনা ঘটেছে।

অলংকরণ: তিয়াসা দাস।

অলংকরণ: তিয়াসা দাস।

সংবাদ সংস্থা
মৈনপুরী শেষ আপডেট: ০৩ অক্টোবর ২০১৮ ১৪:৪৬
Share: Save:

১৫ বছরের একটি মেয়েকে রাস্তায় পিটিয়ে মারা হল। তার পর তার দেহটিকে ঝুলিয়ে দেওয়া হল গাছে। তারই দোপাট্টা দিয়ে।

পশ্চিম উত্তরপ্রদেশের মৈনপুরী জেলায় মঙ্গলবার এই ঘটনা ঘটেছে। পুলিশ জানাচ্ছে, একাদশ শ্রেণির ওই ছাত্রী স্কুলে গিয়েছিল গাঁধী জয়ন্তী অনুষ্ঠানে। অনুষ্ঠান শেষ হওয়ার পর স্কুল থেকে বাড়ি ফেরার পথেই আক্রান্ত হয় ছাত্রীটি। তার ওপর চড়াও হয় জনাচারেক দুষ্কৃতী। ছাত্রীটিকে প্রথমে ধর্ষণের চেষ্টা করা হয়। ছাত্রীটি বাধা দিতেই তারওপর ঝাঁপিয়ে পড়ে চার জন। তারা রাস্তায় ফেলে বেধরক মারধর করতে থাকে ছাত্রীটিকে। প্রচণ্ড মারধরের চোটে ছাত্রীটির মৃত্যু হলে দোপাট্টা দিয়ে ছাত্রীর দেহটিকে গাছে ঝুলিয়ে দেয় দুষ্কৃতীরা।

পুলিশ তিন জনকে গ্রেফতার করেছে। এক জন এখনও পলাতক। ছাত্রীর দেহটি পাঠানো হয়েছে ময়নাতদন্তের জন্য। তার রিপোর্ট পেলে ছাত্রীটি ধর্ষিত হয়েছিল কি না, পুলিশ সে ব্যাপারে নিশ্চিত হবে।

আরও পড়ুন- জন্মদিনের খেলনা তো আসবেই, খেলবে কে!​

আরও পড়ুন- মুসলিম বলে সুবিচার পাননি, তাই হিন্দু হলেন আখতার!​

চার বছর আগে এই মৈনপুরী থেকে ১১৪ কিলোমিটার দূরে অনেকটা একই ধরনের ঘটনা ঘটেছিল। ওই সময় দুই বোনকে গর্ণধর্ষণের পর খুন করে তাদের দেহগুলি গাছে ঝুলিয়ে দেওয়া হয়। দেশজুড়ে বিক্ষোভ হয়েছিল ওই ঘটনার প্রতিবাদে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

UP Rape MAINPURI ধর্ষণ
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE