Advertisement
২২ সেপ্টেম্বর ২০২৩
Gurmeet Ram Rahim Singh

হানিপ্রীতকে ‘রুহদি’ নাম রাম রহিমের

ধর্ষণ ও খুনের দায়ে ২০ বছরের জেল খাটছেন রাম রহিম। তিনি গ্রেফতার হওয়ার পরে ডেরা সমর্থকদের হিংসায় অন্তত ৩৮ জনের মৃত্যু হয়েছিল।

রাম রহিম-হানিপ্রীত। ফাইল চিত্র।

রাম রহিম-হানিপ্রীত। ফাইল চিত্র।

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি শেষ আপডেট: ২৭ অক্টোবর ২০২২ ০৭:৩৭
Share: Save:

হরিয়ানায় আসন্ন পুরভোটের মুখে ৪০ দিনের প্যারোলে জেল থেকে বেরিয়েছেন তিনি। ভার্চুয়াল সৎসঙ্গ করেছেন, মিউজ়িক ভিডিয়ো বানিয়েছেন। স্বঘোষিত ধর্মগুরু গুরমিত রাম রহিম সিংহ এ বার একই মেজাজে তাঁর তথাকথিত দত্তক কন্যা হানিপ্রীত ইনসানের নতুন নামও বাতলে দিলেন।

ধর্ষণ ও খুনের দায়ে ২০ বছরের জেল খাটছেন রাম রহিম। তিনি গ্রেফতার হওয়ার পরে ডেরা সমর্থকদের হিংসায় অন্তত ৩৮ জনের মৃত্যু হয়েছিল। সেই দাঙ্গা-হাঙ্গামায় ইন্ধন দেওয়া এবং ডেরা সাচা সৌদা প্রধানকে পালাতে সাহায্য করার অভিযোগে গ্রেফতার হয়েছিলেন হানিপ্রীত ইনসান ওরফে প্রিয়ঙ্কা তানেজা। সংবাদ সংস্থার খবর, এ বার রাম রহিম বলেছেন, ‘‘আমাদের কন্যার নাম হানিপ্রীত। অনেকে তাঁকে ‘দিদি’ বলে ডাকেন। কিন্তু এতে একটা জটিলতাও হয়, কারণ সবাই তো দিদি। তাই আমরা এখন তাঁর নাম দিয়েছি ‘রুহানি দিদি’। উচ্চারণ করতে যাতে সুবিধে হয়, তাই এই নামটাকেও একটু আধুনিক করে বলা যায়, ‘রুহদি’।

৪১ বছরের হানিপ্রীত সমাজমাধ্যমে নিজের পরিচয় দেন ‘পাপার দেবদূত’ বলে। খুন ও দুই শিষ্যাকে ধর্ষণের অভিযোগে জেলে যাওয়া ‘পাপা’ অর্থাৎ রাম রহিম আসলে নির্দোষ বলেই তাঁর দাবি। মাঝে মাঝে ‘পাপার’ ‘সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ডেরও’ সঙ্গী হন তিনি। সিনেমা থেকে মিউজ়িক ভিডিয়ো— সবই করেছেন রাম রহিম। এমনকি এ বার জেল থেকে বেরোনোর পরে দীপাবলি উপলক্ষে নতুন মিউজ়িক ভিডিয়ো বানিয়ে তা ছেড়েছেন নিজের ইউটিউব চ্যানেলে। সেই গানের গীতিকার, সুরকার, গায়ক, পরিচালক— সবই তিনি নিজে। দু’দিনের মধ্যেই সেই গানের সাড়ে সাত কোটি ভিউ, লক্ষাধিক লাইক। রাম রহিমের মিউজ়িক ভিডিয়োর বিশেষত্ব হল, অটোটিউনে সুর বসানো কণ্ঠ আর ঝলমলে পোশাক। নতুন ভিডিয়োটি অবশ্য মূলত পুরনো ভিডিয়োর কোলাজ। তাতে হানিপ্রীতকেও দেখা যায়নি।

বার বার প্রশ্ন উঠছে, বিজেপি-শাসিত হরিয়ানায় পুরভোটের মুখে এমন এক জন দাগি আসামি ছাড়া পান কী করে? ফেব্রুয়ারিতে পঞ্জাবের ভোটের আগেও একই রকম তিন সপ্তাহের রেহাই পেয়েছিলেন রাম রহিম। বিরোধীদের প্রশ্ন, কেন এখনও ‘পিতাজি’ ডেকে রাম রহিমের শরণে আসছেন কারনালের মতো শহরের মেয়র-সহ বিজেপি নেতা-নেত্রীরা? তবে কি নেপথ্যে রয়েছে ভোট টানার কৌশল? হরিয়ানার মুখ্যমন্ত্রী মনোহরলাল খট্টরের বক্তব্য, ‘‘এ নিয়ে আমি কিছু বলতে চাই না। সংশোধনাগারের নিজস্ব নিয়ম আছে। আমার পক্ষে কিছু বলা ঠিক হবে না।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE