Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৮ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

মৃত পাক সেনার কপালে বাঁধা ক্যামেরা, ‘মুণ্ডচ্ছেদের জন্য’ আনা ছুরিও উদ্ধার

প্রত্যাঘাতে মারা গিয়েছে ব্যাটের দুই সদস্যও। তাদের এক জনের দেহে তল্লাশি চালিয়ে তাজ্জব হয়ে গিয়েছেন সেনা কর্তারা। ব্যাটের ওই সদস্যের হেডব্যান্ড

নিজস্ব প্রতিবেদন
২৪ জুন ২০১৭ ১৬:৪০
নিহত পাক সেনা এবং তার কাছ থেকে উদ্ধার হওয়া হেড ক্যামেরা এবং অস্ত্র।

নিহত পাক সেনা এবং তার কাছ থেকে উদ্ধার হওয়া হেড ক্যামেরা এবং অস্ত্র।

নিয়ন্ত্রণরেখা পেরিয়ে এ দেশের ভিতরে প্রায় ৬০০ মিটার ঢুকে পড়ে পাক বর্ডার অ্যাকশন টিম (ব্যাট)। গত বৃহস্পতিবার ভরদুপুরে জম্মু-কাশ্মীরের পুঞ্চ সেক্টরে ঢুকে তারা রীতিমতো হামলা চালায়। ঘটনায় দুই ভারতীয় জওয়ানের মৃত্যু হয়েছে। প্রত্যাঘাতে মারা গিয়েছে ব্যাটের দুই সদস্যও। তাদের এক জনের দেহে তল্লাশি চালিয়ে তাজ্জব হয়ে গিয়েছেন সেনা কর্তারা।

ব্যাটের ওই সদস্যের হেডব্যান্ডে লাগানো ছিল গোপন ক্যামেরা। শুধু তাই নয়, তার সঙ্গে একে সিরিজের রাইফেল, ম্যাগাজিন, হ্যান্ড গ্রেনেডের পাশাপাশি বিশেষভাবে তৈরি কয়েকটি ধারালো অস্ত্র পাওয়া গিয়েছে। যা দেখে সেনা কর্তারা নিশ্চিত, সীমান্ত পেরিয়ে ভারতীয় জওয়ান খুন এবং দেহ বিকৃত করে তাঁদের মাথা কেটে নেওয়ার পিছনে রয়েছে এই বাহিনীর প্রত্যক্ষ মদত। এ দিনও সেই উদ্দেশেই তারা নিয়ন্ত্রণরেখা পেরিয়েছিল।

আরও পড়ুন: পেড নিউজ কাণ্ডে মধ্যপ্রদেশের মন্ত্রীকে সরাল নির্বাচন কমিশন

Advertisement

সেনা সূত্রে খবর, ব্যাটের পোশাকে পাঁচ-সাত জন বৃহস্পতিবার বেলা ২টো নাগাদ নিয়ন্ত্রণরেখা পেরিয়ে ভারতে প্রবেশ করে। কাশ্মীরের পুঞ্চ এলাকায় নিয়ন্ত্রণরেখা পেরিয়ে ৬০০ মিটার ঢুকে পড়ে তারা। সে সময় নিয়ন্ত্রণরেখার ও পার থেকে গুলি ছুড়ে তাঁদের ‘কভার’ দেওয়া হচ্ছিল। ভারতীয় সেনাও তাদের আটকাতে গুলি চালায়। একটা সময়ে পুঞ্চের সেনা পোস্টের প্রায় কাছে পৌঁছে যায় তারা। সেই সময়েই সেনার গুলিতে প্রাণ যায় এক ব্যাট সদস্যদের। গুলিতে দু’জন অনুপ্রবেশকারী মারা গেলেও এক জনের দেহ উদ্ধার করে সেনা। বাকিরা ফের সীমান্ত পেরিয়ে পালিয়ে যায় পাকিস্তানে। এক সেনা কর্তা জানিয়েছেন, ভারতীয় সেনার গুলিতে অন্য এক জন ব্যাট সদস্যও মারা গিয়েছে। তবে ‘কভার ফায়ারিং’-এ তার দেহ ও-পারে ফিরিয়ে নিয়ে গিয়েছে পাক সেনা। ওই হামলায় দুই ভারতীয় জওয়ানের মৃত্যু হয়।


ওই পাক সেনার কাছ থেকে আরও যা যা উদ্ধার করা হয়েছে



এ ভাবে নিয়ন্ত্রণরেখা পেরিয়ে ব্যাট বাহিনীর হানার পরে ভারতীয় সেনা কর্তারা একটা বিষয়ে প্রায় নিশ্চিত। অতীতে ভারতীয় সেনা জওয়ানদের খুন করে যে ভাবে তাঁদের দেহ বিকৃতি করে মাথা কেটে নিয়ে যাওয়া হয়েছে, তাতে এই ধরনের অস্ত্রশস্ত্রই ব্যবহার করা হয়েছে। আর গোটাটার পিছনে পাক সেনার সরাসরি হাত রয়েছে। সেনার দাবি, যে ভাবে গুলি ছুড়ে হামলাকারীদের ‘কভার’ করা হচ্ছিল এবং যে কায়দায় মৃতদেহ ফিরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে তাতে এটা প্রমাণিত। কারণ, পাক সেনা বাহিনীকে এমন প্রশিক্ষণই দেওয়া হয়।

হেডব্যান্ডের ক্যামেরার ডেটা খতিয়ে দেখা হবে, ওই সময় তা লাইভ ছিল কি না! তাদের দাবি, হয়তো গোটা হামলার ‘লাইভ’ ভিডিও পাক সেনা শিবির থেকে পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছিল। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক সেনা কর্তা জানিয়েছেন, গোটা ঘটনা তদন্ত করা হচ্ছে। ওই ক্যামেরার তথ্য খতিয়ে দেখার পর এ ব্যাপারে নিশ্চিত হওয়া যাবে।

ছবি: টুইটার।



Tags:
Indian Army LOC Behead Pakistan BAT Line Of Controlভারতীয় সেনাপাকিস্তান

আরও পড়ুন

Advertisement