Advertisement
১৫ জুন ২০২৪
Union Budget 2023

প্রতিরক্ষা খাতে বরাদ্দ বেড়ে ৫ লক্ষ ৯৪ হাজার কোটি টাকা! গুরুত্ব আত্মনির্ভরতায়

২০২২ সালের বাজেট বক্তৃতায় প্রতিরক্ষা খাতে ৫ লক্ষ ৩৯ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দের কথা ঘোষণা করেছিলেন অর্থমন্ত্রী। যদিও মুদ্রাস্ফীতির কথা মাথায় রাখলে এ বারের বৃদ্ধি খুব বেশি নয়।

প্রতিরক্ষায় বাড়ল বরাদ্দ, মোদী সরকারের আত্মনির্ভরতার স্লোগানেই গুরুত্ব অর্থমন্ত্রীর।

প্রতিরক্ষায় বাড়ল বরাদ্দ, মোদী সরকারের আত্মনির্ভরতার স্লোগানেই গুরুত্ব অর্থমন্ত্রীর। ফাইল চিত্র।

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি শেষ আপডেট: ০১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ১৬:৩৮
Share: Save:

বাজেট বক্তৃতায় প্রতিরক্ষা ক্ষেত্রে আত্মনির্ভরতার কথা বললেন অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন। তাঁর ঘোষণা, ২০২৩-২৪ অর্থবর্ষে প্রতিরক্ষা খাতে বাজেট বরাদ্দ ৫ লক্ষ ৯৪ হাজার কোটি টাকা। যার বড় অংশই ব্যয় হবে দেশে যুদ্ধাস্ত্র এবং সামরিক সরঞ্জাম নির্মাণের কাজে।

মোট বাজেট বরাদ্দের মধ্যে মূলধনী ব্যয়ের পরিমাণ ১ লক্ষ ৬২ হাজার কোটি টাকা। অস্ত্র এবং সামরিক সরঞ্জাম কেনা এবং সশস্ত্র বাহিনীর তিন শাখার আধুনিকীকরণের জন্য এই অর্থ ব্যয় করা হবে। প্রতিরক্ষা গবেষণা ও উৎপাদনে বেসরকারি সংস্থা এবং স্টার্ট আপ সংস্থাকে সহায়তার কথাও জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী।

২০২২ সালের বাজেট বক্তৃতায় প্রতিরক্ষা খাতে ৫ লক্ষ ৩৯ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দের কথা ঘোষণা করেছিলেন অর্থমন্ত্রী। সেই হিসাবে এ বার বরাদ্দের পরিমাণ বেড়েছে প্রায় ৫৫ হাজার কোটি টাকা। কিন্তু মুদ্রাস্ফীতির কথা মাথায় রাখলে এই বৃদ্ধি খুব বেশি নয় বলে সরকারের একটি সূত্র জানাচ্ছে।

তা ছাড়া, মোট বাজেট বরাদ্দের মধ্যে ২ লক্ষ ৭০ হাজার কোটি টাকারও বেশি বেতন, পেনশন এবং অন্যান্য খাতে বরাদ্দ হওয়ায় নয়া অস্ত্র আমদানি এবং আধুনিকীকরণের কাজ ব্যাহত হতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

সুইডেনের প্রতিরক্ষা সমীক্ষা সংস্থা স্টকহোম ইন্টারন্যাশনাল পিস রিসার্চ ইনস্টিটিউট (এসআইপিআরআই)-এর ২০২১ সালের পরিসংখ্যান অনুযায়ী সামরিক ব্যয়ে আমেরিকা এবং চিনের পরেই ভারতের অবস্থান। এ বারও ভারতের সেই অবস্থান বহাল থাকবে বলেই মনে করা হচ্ছে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE