Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৭ অক্টোবর ২০২১ ই-পেপার

Khalistani Protest: মোদীর ঘুম কেড়ে নেব! প্রধানমন্ত্রীর আমেরিকা সফর নিয়ে হুমকি দিল নিষিদ্ধ জঙ্গি গোষ্ঠী

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১ ১৬:০৩
জো বাইডেন প্রেসিডেন্ট হওয়ার পর প্রথমবার আমেরিকা যাচ্ছেন নরেন্দ্র মোদী।

জো বাইডেন প্রেসিডেন্ট হওয়ার পর প্রথমবার আমেরিকা যাচ্ছেন নরেন্দ্র মোদী।
ফাইল ছবি।

রাজধানী দিল্লির উপকণ্ঠে চলমান কৃষক আন্দোলনের পক্ষ নিয়ে এ বার আমেরিকায় বিক্ষোভ দেখানোর পরিকল্পনা নিয়েছে খালিস্তান সমর্থক নিষিদ্ধ জঙ্গি গোষ্ঠী ‘শিখস ফর জাস্টিস’ (এসএফজে)। এ জন্য বেছে নেওয়া হয়েছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর আসন্ন আমেরিকা সফরের সময়কে। সেই সময় হোয়াইট হাউসের সামনেও বিক্ষোভ দেখানোর পরিকল্পনা রয়েছে ওই খালিস্তানপন্থী জঙ্গি গোষ্ঠীর। কৃষকদের বিরুদ্ধে দেশ জুড়ে সন্ত্রাস চালাচ্ছে কেন্দ্রীয় সরকার, এই অভিযোগে নরেন্দ্র মোদীর ‘রাতের ঘুম কেড়ে নেওয়া’র হুমকি দিয়েছে নিষিদ্ধ সংগঠনটি।

২০১৯ সালের ১০ জুলাই ‘শিখস ফর জাস্টিস’ সংগঠনকে ইউএপিএ-আইনের আওতায় নিষিদ্ধ ঘোষণা করে ভারত সরকার। নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞরা বলছেন, রাজনৈতিক নয় বরং সম্পূর্ণরকম ব্যবসায়িক ভিত্তিতে চলে এই সংগঠনটি। শিখ সম্প্রদায়ের মানুষের মধ্যে শিখস ফর জাস্টিস-এর প্রতি সমর্থন ক্রমশ কমছে, পঞ্জাবী তরুণদের মধ্যেও প্রভাব প্রায় নেই বললেই চলে। গোয়েন্দা সূত্রে খবর, এই সংগঠনের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে পাকিস্তান, বিশেষ করে আইএসআই এজেন্টদের ছড়াছড়ি। ভারত-বিরোধী কার্যকলাপে আর্থিক মদত যোগায় এই নিষিদ্ধ সংগঠন। এমনকি নেটমাধ্যমে ভারত বিরোধী পোস্ট দিতে পারলে বিদেশের কোনও দেশে নাগরিকত্ব জোগাড় করে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে তরুণদের প্রভাবিত করে এই নিষিদ্ধ সংগঠন।

জো বাইডেন আমেরিকার প্রেসিডেন্ট হওয়ার পর প্রথমবার সে দেশে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী মোদী। আগামী ২৪ সেপ্টেম্বর আমেরিকার প্রেসিডেন্টের আয়োজনে জাপানের প্রধানমন্ত্রী ইয়োশিহিদে সুগা ও অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসনের সঙ্গেই কোয়াড বৈঠকে হাজির থাকবেন প্রধানমন্ত্রী মোদীও। রাষ্ট্রপুঞ্জের সাধারণ অধিবেশনেও অংশ নেওয়ার কথা নরেন্দ্র মোদীর।

এই পরিস্থিতিতে এসএফজে-এর হুমকিকে যথেষ্ট গুরুত্ব দিচ্ছেন নিরাপত্তা আধিকারিকরা। সূত্রের খবর, সম্প্রতি দিল্লিতে নিরাপত্তা আধিকারিকদের সঙ্গে গোপন বৈঠক সেরেছেন পঞ্জাব পুলিশের উচ্চপদস্থ আধিকারিকরা। তাতে এসএফজে-কে নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়েছে। সেই অনুযায়ী কাজও শুরু হয়ে গিয়েছে।

Advertisement

আরও পড়ুন

Advertisement