×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২০ জুন ২০২১ ই-পেপার

জন্মাতে দেখেছেন রাহুলকে, ভোটও দিলেন রাজাম্মা

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ০১ মে ২০১৯ ০১:১৩
ছবি: রয়টার্স।

ছবি: রয়টার্স।

সামনে থেকে দেখার সুযোগটা হাতছাড়া হয়েছিল শহরের বাইরে গিয়েছিলেন বলে। ভোটের দিন আর ‘মিস’ করেননি। জন্মের পরে বাবা-মায়ের আগেই কোলে নিয়েছিলেন যে শিশুকে, তার নামের পাশেই এ বার ভোটযন্ত্রের বোতামটা টিপে দিয়ে এসেছেন রাজাম্মা ভিভাতিল।

বয়স এখন ৭৪। কস্মিন কালেও ভাবেননি, তাঁদের ওয়েনাডে এক দিন প্রার্থী হবেন রাহুল গাঁধী। দিল্লির বেসরকারি হাসপাতালের সেই কেবিন থেকে কেরলের পাহাড়-জঙ্গল ঘেরা ওয়েনাড— এই দীর্ঘ সফরের মাঝে কখনও আর দু’জনের সাক্ষাৎ হয়নি যে! তবে রাজাম্মার পরিষ্কার মনে আছে, হাসপাতালের লেবার রুমে এক ‘ভিআইপি পেশেন্ট’-এর শিশু ভূমিষ্ঠ হওয়ার পরে তাকে দু’হাতে ধরেছিলেন তিনি। বাইরে অপেক্ষায় ছিলেন সাদা কুর্তা-পায়জামায় দুই ভদ্রলোক। তিন দিন পরে তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গাঁধী হাসপাতালে এসে নবজাতকের নাম রেখেছিলেন ‘রাহুল’। বাইরে অপেক্ষমাণ দু’জন ছিলেন রাজীব ও সঞ্জয় গাঁধী। কংগ্রেস সভাপতি রাহুলের নাগরিকত্ব নিয়ে কেন্দ্রের বিজেপি সরকার যখন নতুন করে সংশয় খুঁচিয়ে তুলেছে, ওয়েনাডের অবসরপ্রাপ্ত নার্স জানাচ্ছেন, তিনি রাহুলকে জন্মাতে দেখেছেন।

রাজাম্মা বলছেন, ‘‘তখন দিল্লিতেই থাকতাম। প্রধানমন্ত্রীর পুত্রবধূ সন্তানের জন্ম দেওয়ার জন্য আমাদের হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন, জানতাম। একটা টিম গড়ে দেওয়া হয়েছিল সনিয়া গাঁধীর দেখভালের জন্য। তবে প্রধানমন্ত্রীর পরিবার হলেও ইন্দিরা, সনিয়া থেকে রাজীব— সকলে হাসপাতালের নিয়ম মেনে চলতেন।’’ কর্মজীবন শেষ করে ওয়েনাডে ফিরে গিয়েছেন রাজাম্মা। তাঁর আক্ষেপ, ‘‘কোনও দিনই ভাবিইনি, আমাদের এলাকায় এসে রাহুল প্রার্থী হবেন! সুলতান বাতেরিতে রাহুলের সভার দিন দেখা করার ইচ্ছা ছিল। কিন্তু পারিবারিক অনুষ্ঠানে বাইরে চলে যাওয়ায় সে দিন থাকতে পারিনি। ভোটটা কিন্তু দিয়েছি! আমি চাই, রাহুল প্রধানমন্ত্রী হোন।’’

Advertisement

দিল্লি দখলের লড়াই, লোকসভা নির্বাচন ২০১৯

প্রিয়ঙ্কাও এসে সভা করেছিলেন ওয়েনাড কেন্দ্রের একাধিক জায়গায়। তাঁর কাছে যাওয়ার চেষ্টা করেছিলেন? রাজাম্মা বলছেন, ‘‘নাহ্! ওঁকে তো কখনও দেখিনি। রাহুলের ব্যাপারে অন্য আবেগ জড়িত। পরে আবার নিশ্চয়ই আসবেন। তখন রাহুলের সঙ্গেই দেখা করে দিল্লির গল্পটা বলব।’’



Tags:
Wayanad Lok Sabha Election 2019 Rahul Gandhiরাহুল গাঁধীলোকসভা নির্বাচন ২০১৯

Advertisement