Advertisement
০৭ ডিসেম্বর ২০২২

ছাদ দেবেন ‘রাহুল স্যার’, আশায় রয়েছে ২৩ পরিবার

বিধ্বংসী বন্যায় ওয়েনাড জেলার মানানতাবাডি তালুকের ২৪টা বাড়ি ধসে গিয়েছিল।

ওয়েনাডে রাহুলের পোস্টার।

ওয়েনাডে রাহুলের পোস্টার।

সন্দীপন চক্রবর্তী
সুলতান বাতেরি (ওয়েনাড) শেষ আপডেট: ১৭ এপ্রিল ২০১৯ ০৩:৩৩
Share: Save:

কোঝিকোড় থেকে পাহাড়ের গা বেয়ে মহীশূরের দিকে চলে গেল যে জাতীয় সড়ক, তার ধারে সদ্য লেগেছে বিলবোর্ডটা। ওয়েনাডের ক‌ংগ্রেস প্রার্থী কাছে টেনে নিয়েছেন মলিন চেহারার এক বৃদ্ধাকে। প্রার্থীকে কিছু বলছেন বৃদ্ধা। ছবির তলায় কংগ্রেসের ফ্রন্ট ইউডিএফের তরফে নির্বাচনী আবেদন। ছবির ওই বৃদ্ধার আবেদন অবশ্য নির্বাচনের সঙ্গে একেবারেই সংযুক্ত নয়। ওয়েনাডের জেলাশাসকের হাতে মনোনয়নপত্র তুলে দিয়ে কালপেট্টার রাস্তায় প্রার্থী রাহুল গাঁধী গাড়ি থেকে নেমে এই বৃদ্ধার কথা শুনেছিলেন। ভোটের ওয়েনাডে পৌঁছে সেই বৃদ্ধার খোঁজে বেরিয়েই হদিস মিলছে ২৩ পরিবারের দুর্ভাগ্যের কাহিনির। যারা ভাগ্য ফেরানোর আবেদন জানিয়ে বসে আছে ‘রাহুল স্যারের’ কাছে।

Advertisement

বিধ্বংসী বন্যায় ওয়েনাড জেলার মানানতাবাডি তালুকের ২৪টা বাড়ি ধসে গিয়েছিল। গত অগস্টের সেই বিপর্যয়ের পরে জেলা প্রশাসন ওই ২৪ পরিবারের জন্য পুনর্বাসনের পরিকল্পনা নিয়েছিল। কিন্তু জিয়োলজিক্যাল সার্ভে অফ ইন্ডিয়ার (জিএসআই) সমীক্ষায় আপত্তি আসে। তারা জানায়, ওই এলাকা এখন প্রবল ভাবে ধস-প্রবণ। সেখানে নতুন করে নির্মাণের অনুমতি দেওয়া সম্ভব নয়। সেই ২৪-এর মধ্যে মাত্র একটি পরিবারেরই পাকাপাকি ব্যবস্থা হয়েছে। বাকি ২৩-এর ভাগ্য ঝুলছে সুতোয়। তাদেরই তরফে বৃদ্ধা গৌরীদেবী কংগ্রেস সভাপতির দৃষ্টি আকর্ষণ করেছিলেন।

ওয়েনাডের জেলাশাসক এ আর অজয়কুমার জানাচ্ছেন, জিএসআই আপত্তি তোলার পরে তাঁরা বিশদ রিপোর্ট পাঠিয়েছেন কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে। কোঝিকোড়ের ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজির সাহায্যও নেওয়া হয়েছে। কিন্তু চূড়ান্ত ফয়সালা এখনও হয়নি। ওই ২৩ পরিবার কোথাও আত্মীয়ের বাড়িতে, কোথাও অন্যত্র দিন গুজরান করে। যাদের বাড়ি ভাড়া নিতে হয়েছে, তাদের ভাড়ার টাকা রাজ্য সরকার মিটিয়ে দিচ্ছে। কিন্তু এ ভাবে কত দিন?

দিল্লি দখলের লড়াই, লোকসভা নির্বাচন ২০১৯

Advertisement

রাহুলের নজরে আসার পরে কংগ্রেস নেতাদের কাছে ওই পরিবারগুলির লেখা দরখাস্ত রয়েছে। কংগ্রেস নেতা নন্দকিশোর ও ওয়েনাডের সিপিআই প্রার্থী পি পি সুনীর বলছেন, ‘‘কেন্দ্রের হস্তক্ষেপ প্রয়োজন। কিন্তু নরেন্দ্র মোদী তো কেরলে পাকিস্তান আবিষ্কারে ব্যস্ত!’’ মোদীর ছবি নিয়ে যিনি এনডিএ-র প্রার্থী হিসেবে ওয়েনাডে লড়ছেন, ভারতীয় ধর্ম জনসেনার (বিডেজেএস) সেই তুষার বেল্লাপল্লির যুক্তি, ভোট মিটলে সমস্যার সমাধান নিশ্চয়ই হবে। কালপেট্টা শহরে জনসেনার ‘কলসি’ প্রতীক কাঁধে নিয়ে তুষারের সমর্থনে মিছিল থেকে ‘ভারত মাতা’র জয়ই শোনা যাচ্ছে। ঘরহারাদের নিয়ে ভাবার সময় কোথায়!

কংগ্রেস প্রার্থী রাহুল আজ, বুধবার তিরুনেল্লির মন্দিরে রাজীব গাঁধীর চিতাভস্মে প্রণাম সেরে আসবেন এই সুলতান বাতেরিতে। ছোট শহরের এক প্রান্তে বাতেরি জৈন মন্দিরে টিপু সুলতানের বাহিনির গোপন অস্ত্র ভাণ্ডার ছিল বলে কথিত আছে। বাতেরি তখন থেকেই মুখে মুখে ‘সুলতান ব্যাটারি’। এলাকার কংগ্রেস নেতারা তাই বলেন, ‘‘ব্রিটিশদের বিরুদ্ধে টিপু সুলতানের লড়়াইয়ের ঐতিহ্য আছে এখানে। আর মোদী-অমিত শাহেরা এসে মুসলিম লিগের সবুজ পতাকায় চাঁদ-তারা দেখে পাকিস্তান বলে আক্রমণ করেন!’’

গৌরীদেবীদের অবশ্য ‘পাকিস্তান’ নিয়ে মাথাব্যথা নেই। তাঁরা শুধু মাথার উপরে ছাদ চান ‘রাহুল স্যারের’ কাছে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.