×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১১ মে ২০২১ ই-পেপার

মৃত শিশুকে কবর দিতে গিয়ে মাটির নীচ থেকে জীবন্ত সদ্যোজাত উদ্ধার করলেন ব্যবসায়ী

সংবাদ সংস্থা
বরেলী ১৪ অক্টোবর ২০১৯ ১৩:৫৬
প্রতীকী ছবি।

প্রতীকী ছবি।

নিজের মৃত সন্তানকে কবর দিতে গিয়ে মাটি খুঁড়ে আর এক সদ্যোজাতকে উদ্ধার করলেন উত্তরপ্রদেশের এক ব্যবসায়ী।

বৃহস্পতিবার উত্তরপ্রদেশের বরেলীর ঘটনা। মাটি খুঁড়ে উদ্ধার করা সদ্যোজাত তখনও বেঁচে। আপ্রাণ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছিল বাঁচার জন্য।

ওই ব্যবসায়ীর নাম হিতেশ কুমার সিরোহি। তাঁর স্ত্রী বৈশালী বরেলীতে পুলিশের সাব-ইনস্পেক্টর। গত বুধবার রাতে প্রসব যন্ত্রণা শুরু হওয়ায় স্ত্রীকে বরেলীর একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করেছিলেন হিতেশ। বৃহস্পতিবার সকালে তাঁর স্ত্রী ৭ মাসের অপরিণত শিশুর জন্ম দেন। দুর্ভাগ্যবশত জন্মের কয়েক মিনিটের মধ্যেই সদ্যোজাতের মৃত্যু হয়।

Advertisement

আরও পড়ুন: ঝিমিয়ে পড়া অর্থনীতি নিয়ে হুঁশিয়ারি দিয়েই বৃদ্ধির পূর্বাভাস ছাঁটল বিশ্বব্যাঙ্ক

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় তিনি মৃত সদ্যোজাতকে কবর দিতে গিয়েছিলেন। মাটি খুঁড়তে গিয়ে তিনি লক্ষ করেন যে মাটির তিন ফুট নীচে একটা শক্ত কিছু রাখা রয়েছে। সেটা একটা মাটির পাত্র ছিল। পাত্রটাকে টেনে বাইরে বার করে তাজ্জব হয়ে যান তিনি। পাত্রের ভিতরে তখনও ছটফট করছে একটা তাজা প্রাণ। এক সদ্যোজাত কন্যাশিশু! ভীষণ জোরে শ্বাস নিচ্ছিল সে। তত্ক্ষণাত্ তাকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসেন তিনি। তাঁকে দুধ খাওয়ান।

বরেলীর এসপি অভিনন্দন সিংহ জানিয়েছেন, শিশুটির চিকিত্সা চলছে। আগের থেকে অনেকটা শারীরিক উন্নতি হয়েছে তার। তার বাবা-মার খোঁজ চলছে। জীবন্ত শিশুকে কবর দেওয়ার অপরাধে তাঁদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Advertisement