×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২২ জুন ২০২১ ই-পেপার

কর্নাটকে নাবালিকাকে ৫ মাস ধরে লাগাতার ধর্ষণ, অভিযুক্ত কাকিমা-সহ ১৭

সংবাদ সংস্থা
বেঙ্গালুরু ০২ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ১১:১৭
প্রতীকী ছবি।

প্রতীকী ছবি।

এক নাবালিকাকে পাঁচ মাস ধরে লাগাতার ধর্ষণের পর বিক্রি করে দেওয়ার অভিযোগ উঠল কর্নাটকের চিকমাগালুরে। এই ঘটনায় ১৭ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের হয়েছে। এখনও পর্যন্ত গ্রেফতার ৮ জন। পুলিশ জানিয়েছে, এই ঘটনায় মূল অভিযুক্ত নাবালিকার কাকিমা। তিনিই নির্যাতিতাকে ধর্ষকদের হাতে তুলে দেন।

গত ৩০ জানুয়ারি চিকমাগালুরের স্রিঙ্গেরি থানায় অভিযোগ দায়ের করে জেলা শিশু কল্যাণ কমিটির চেয়ারম্যান। তার পরই পুলিশ তদন্তে নেমে এই ঘটনায় জড়িত ৮ জনকে গ্রেফতার করে। বাকিদের খোঁজে তল্লাশি চালাচ্ছে তারা।

জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার স্মৃতি জানিয়েছেন, পাথর খাদানে কাজ করত ওই নাবালিকা। গিরিশ নামে এক বাস চালকের সঙ্গে তার পরিচয় ছিল। অভিযোগ, গিরিশই তাকে প্রথমে ধর্ষণ করে। তার পর তারই এক বন্ধুকে মেয়েটির ফোন নম্বর দেয় সে। অভি নামে সেই ব্যক্তিও নাবালিকাকে ধর্ষণের পর তার ছবি, ভিডিয়ো তুলে ফাঁস করে দেওয়ার হুমকি দিতে থাকে। তার পর এক এক করে ১৭ জন মিলে নাবালিকাকে ৫ মাস ধরে ধর্ষণ করে বলে অভিযোগ। শুধু তাই নয়, তাকে বিক্রিও করে দেওয়া হয়। আর এই কাণ্ডের মূল পাণ্ডা নাবালিকার কাকিমা।

Advertisement

মা মারা যাওয়ার পর কাকিমার সঙ্গেই তাঁর বাড়িতে থাকত নাবালিকা। কাকিমার বিরুদ্ধে নাবালিকাকে অভিযুক্তদের হাতে তুলে দেওয়া এবং ধর্ষণে সাহায্য করার অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়েছে।

এই ঘটনা নিয়ে রাজনৈতিক তরজা শুরু হয়ে গিয়েছে। কর্নাটক কংগ্রেসের মুখপাত্র লাবণ্য বিজেপি-র বিরুদ্ধে আঙুল তুলেছেন। তাঁর অভিযোগ, এত বড় একটা কাণ্ডের পরও বিজেপি চুপ রয়েছে। শুধু তাই নয়, তাঁর আরও অভিযোগ, এই ঘটনায় যাদের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করা হয়েছে তাদের অনেকেই বিজেপি-র সঙ্গে যুক্ত। তিনি বলেন, “দেশের যেখানেই মহিলা বা শিশুরা অত্যাচারিত হচ্ছেন, সেই ঘটনায় বিজেপি-র বিধায়ক থেকে কর্মীদের জড়িয়ে থাকার ঘটনা সামনে আসছে।” যদিও লাবণ্যের এই অভিযোগের পর কোনও প্রতিক্রিয়া আসেনি কর্নাটক বিজেপি-র তরফে।

Advertisement