Advertisement
২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
Jaish-e-Mohammed

জম্মু-কাশ্মীরে গুলির লড়াই, নিহত ‘মোস্ট ওয়ান্টেড’ পাক জঙ্গি

জইশ-ই-মহম্মদ জঙ্গি সংগঠনের বিস্ফোরক বিশেষজ্ঞ হিসেবেই পরিচিত পাক নাগরিক মুন্না লাহোরি। দীর্ঘ দিন ধরেই তাকে খুঁজছিল জম্মু-কাশ্মীর পুলিশ।

গুলির লড়াইয়ে শোপিয়ানে নিহত জঙ্গি নেতা। ছবি: ফাইল চিত্র

গুলির লড়াইয়ে শোপিয়ানে নিহত জঙ্গি নেতা। ছবি: ফাইল চিত্র

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি শেষ আপডেট: ২৭ জুলাই ২০১৯ ১৪:১৬
Share: Save:

নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে গুলির লড়াইয়ে মারা গেল উপত্যকার অন্যতম মোস্ট ওয়ান্টেড জঙ্গি মুন্না লাহোরি। শনিবার জম্মু-কাশ্মীরের শোপিয়ানে বোনাবাজার এলাকায় দু’পক্ষের মধ্যে গুলির লড়াই শুরু হয়। সে সময় মৃত্যু হয় ওই পাক জঙ্গি নেতার। এমনটাই জানিয়েছে জম্মু-কাশ্মীর পুলিশ।

জইশ-ই-মহম্মদ জঙ্গি সংগঠনের বিস্ফোরক বিশেষজ্ঞ হিসেবেই পরিচিত পাক নাগরিক মুন্না লাহোরি। দীর্ঘ দিন ধরেই তাকে খুঁজছিল জম্মু-কাশ্মীর পুলিশ। বোনা বাজারে দলবল নিয়ে লুকিয়েছিল সে। সূত্র মারফত এ খবর পেয়ে তল্লাশি অভিযান শুরু করেন নিরাপত্তা বাহিনী। তাদের দেখে গুলি চালাতে শুরু করে জঙ্গিরা। শুরু হয় দু’পক্ষের লড়াই।

উপত্যকায় হিংসা ছড়ানোর লম্বা রেকর্ড রয়েছে মুন্নার। কাশ্মীর পুলিশের প্রধান দিলবাগ সিংহ বলেন, ‘‘গত ৩০ মার্চ বানিহালে নিরাপত্তারক্ষীদের কনভয়ে একটি গাড়ি বোমা বিস্ফোরণের পিছনে মুন্নার হাত ছিল। গত মাসেই আরিহাল পুলওয়ামায় আর একটি গাড়ি বোমা বিস্ফোরণ ঘটে। তাতেও জড়িত ছিল সে। কয়েক জন সাধারণ মানুষকে হত্যার অভিযোগও রয়েছে তার বিরুদ্ধে।’’

আরও পড়ুন: বিহারে আকাশ থেকে খসে পড়ল রহস্যজনক পাথর! তৈরি হল বিশালাকার গর্ত​

সম্প্রতি লোকসভায় একটি আলোচনায় কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী জি কিষেণ রেড্ডি দাবি করেন, ২০১৪ সাল থেকে চলতি বছরের জুন মাস পর্যন্ত জম্মু-কাশ্মীরে ৯৬৩ জন সন্ত্রাসবাদীকে হত্যা করা হয়েছে। তবে, অপারেশন চালাতে গিয়ে ৪১৩ জন নিরাপত্তা রক্ষীর মৃত্যুও হয়েছে।

আরও পড়ুন: জলে ডুবু ডুবু মুম্বই, ট্রেনে আটকে পড়া ৭০০ যাত্রীকে উদ্ধারে কপ্টার, বাতিল ১১ উড়ান​

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE