Advertisement
০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩

৩৭৭র পক্ষে নয় মুসলিম ল বোর্ড-ও

শীর্ষ আদালতের নির্দেশে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩৭৭ ধারাটি যদি খারিজ হয়ে যায়, তা হলে অল ইন্ডিয়া পার্সোনাল মুসলিম ল বোর্ড তার বিরোধিতা করবে না।

ফাইল চিত্র।

ফাইল চিত্র।

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি শেষ আপডেট: ১৪ জুলাই ২০১৮ ০৪:৫১
Share: Save:

শীর্ষ আদালতের নির্দেশে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩৭৭ ধারাটি যদি খারিজ হয়ে যায়, তা হলে অল ইন্ডিয়া পার্সোনাল মুসলিম ল বোর্ড তার বিরোধিতা করবে না। ল বোর্ডের তরফে ইউসুফ হাতিম মুছালা আজ বলেন, ‘‘বিষয়টি পুরোপুরি সুপ্রিম কোর্টের হাতে ছেড়ে দিয়েছি। ৩৭৭ ধারা নিয়ে শুনানিতে আমরা অংশ নেব না।’’ ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩৭৭ ধারায় সমকামিতাকে অপরাধ বলা হয়েছে। ১৫৭ বছরের পুরনো এই ধারাটি খারিজ করা যায় কি না, কেন্দ্রীয় সরকারের অনুরোধে তা পর্যালোচনা করে দেখছে আদালত। এর আগে সুপ্রিম কোর্ট এবং দিল্লি হাইকোর্টে যত বারই ৩৭৭ খারিজের মামলা উঠেছিল, ধারাটি বহাল রাখার পক্ষেই সওয়াল করেছিল মুসলিম ল বোর্ড।

আজ ইন্ডিয়ান সায়কায়াট্রিক সোসাইটি (আইপিএস)-এর তরফেও এক বিবৃতি জারি করে বলা হয়েছে, ‘‘সমকামিতা কোনও মনোরোগ নয়। বিসমকামিতা বা উভকামিতার মতো যৌনতার একটি স্বাভাবিক ভিন্নতা মাত্র।’’ ৩৭৭ ধারা খারিজের পক্ষে সওয়াল করে আইপিএসের বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘‘১৯৭৩ সালে মার্কিন মনোরোগ সংস্থা এবং ১৯৯২ সালে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (হু)-র নির্ধারিত মনোরোগের তালিকা থেকে সমকামিতাকে বাদ দিয়েছে। আমরাও সেই মতটিকে সমর্থন করি।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.