Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৬ অক্টোবর ২০২১ ই-পেপার

Mysuru Rape: অন্ধকারে নির্জন জায়গায় যাওয়ার কী দরকার? গণধর্ষণ কাণ্ডে মন্তব্য কর্নাটকের মন্ত্রীর, বিতর্ক

সংবাদ সংস্থা
বেঙ্গালুরু ২৭ অগস্ট ২০২১ ১৪:০১
প্রতীকী ছবি।

প্রতীকী ছবি।

প্রেমিক-প্রেমিকা হোন কিংবা নবদম্পতি, অন্ধকারের মধ্যে নির্জন জায়গায় যাওয়ার দরকার কী? মাইসুরু গণধর্ষণ-কাণ্ড নিয়ে এবার বেফাঁস কর্নাটকের পর্যটন মন্ত্রী আনন্দ সিংহ। বৃহস্পতিবার একই ধরনের মন্তব্য করেছিলেন সে রাজ্যের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আরাগা জনেন্দ্র। যার প্রেক্ষিতে বিজেপি সরকারের সমালোচনায় সরব হয়েছে বিরোধী কংগ্রেস। কর্নাটকের প্রদেশ সভাপতির দাবি, সূর্যাস্তের পর বাড়ির বাইরে বেরোতে মানা করছে সে রাজ্যের ক্ষমতাসীন বিজেপি সরকার।

ঘটনাটি ঘটেছিল ২৪ অগস্ট। ওইদিন রাতে মাইসুরুর চামুণ্ডী পাহাড়ে দুষ্কৃতীরা লুঠপাট করার জন্য একটি মোটরবাইক থামায়। বাইকে সওয়ার ছিলেন দুই তরুণ-তরুণী। তাঁরা টাকা দিতে অস্বীকার করায় শুরু হয় মারধর। তার পর এমবিএ পড়ুয়া তরুণীকে গণধর্ষণ করা হয় বলে অভিযোগ। গুরুতর আহত অবস্থায় তরুণ-তরুণীকে হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। ঘটনার জেরে তোলপাড় পড়ে যায় কর্নাটকে।

এবার ওই ঘটনায় তরুণ-তরুণীর উদ্দেশ্য নিয়ে প্রশ্ন তুললেন রাজ্যের মন্ত্রী। বৃহস্পতিবার কর্নাটকের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর মন্তব্য ছিল, এত রাতে মেয়েটির ওখানে যাওয়া উচিত হয়নি। তার ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আরাগা জনেন্দ্রর কথারই প্রতিধ্বনি কর্নাটকের পর্যটনমন্ত্রী আনন্দ সিংহের গলায়। তিনি বলেন, ‘‘কমবয়সী প্রেমিক-প্রেমিকা কিংবা নবদম্পতি, ওদের ওই রকম জায়গায় যাওয়া উচিত হয়নি। আমরা জনে জনে বারণ করতে পারি না। সব জায়গায় তো আর পুলিশ মোতায়েন করা যায় না।’’ সবমিলিয়ে, মাইসুরু গণধর্ষণের ঘটনা নিয়ে কর্নাটকে ক্রমেই চড়ছে রাজনীতির পারদ। ক্রমেই চড়া হচ্ছে শাসক এবং বিরোধীপক্ষের তরজা।

Advertisement

আরও পড়ুন

Advertisement