Advertisement
২৫ জুলাই ২০২৪
India Pakistan Conflict

রাতারাতি ডিগবাজি পাক মন্ত্রীর, ভারতকে ‘পরমাণু’ হুঁশিয়ারি দিয়ে চাপ সামলাতে পারলেন না!

বিলাবল ভুট্টোর আপত্তিকর মন্তব্যের পর পাকিস্তানের আর এক মন্ত্রী ভারতকে পরমাণু যুদ্ধের হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন। কিন্তু রাত পোহাতেই টুইট করে বক্তব্যের ব্যাখ্যা দিতে চেষ্টা করলেন তিনি।

ভারতকে পরমাণু হামলার হুমকি দিয়ে ‘ঢোক গিললেন’ পিপিপি নেত্রী সাজ়িয়া।

ভারতকে পরমাণু হামলার হুমকি দিয়ে ‘ঢোক গিললেন’ পিপিপি নেত্রী সাজ়িয়া। — ফাইল ছবি।

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি শেষ আপডেট: ১৮ ডিসেম্বর ২০২২ ১১:৪৪
Share: Save:

ভারতকে পরমাণু হামলার হুমকি দিয়েছিলেন। কিন্তু চাপে পড়ে সেই বক্তব্যের সপক্ষে যুক্তি সাজাতে হচ্ছে পাকিস্তানের মন্ত্রী তথা পিপিপি নেত্রী সাজ়িয়া মারিকে। তাঁর সাম্প্রতিক টুইটের নির্যাস, ‘‘পাকিস্তান পরমাণু শক্তিধর দায়িত্বশীল রাষ্ট্র।’’ পাক বিদেশমন্ত্রী বিলাবল ভুট্টো ভারতের প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে আপত্তিকর মন্তব্য করার পরে তাঁকে আড়াল করতে একের পর এক গরমাগরম বক্তব্য রেখে চলেছেন সাজ়িয়া। এ বার নিজের বলা বক্তব্য নিয়েই ঢোক গিললেন তিনি।

সাজ়িয়া টুইটে লিখেছেন, ‘‘পাকিস্তানের বিদেশমন্ত্রী ভারতের মন্ত্রীর প্ররোচনামূলক মন্তব্যের জবাব দিয়েছেন মাত্র। সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে পাকিস্তানকে ভারতের চেয়েও অনেক বেশি ত্যাগ স্বীকার করতে হয়েছে।’’ পাশাপাশি ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের একটি অংশের উপর ঘটনার দায় চাপিয়ে তাঁর সংযোজন, ‘‘পাকিস্তান একটি দায়িত্বশীল পরমাণু শক্তিধর রাষ্ট্র।’’ তাৎপর্যপূর্ণ বিষয় হল, ঠিক এক দিন আগে এই মন্ত্রীর মুখেই ভারতে পরমাণু হামলার হুমকি শোনা গিয়েছিল।

পাকিস্তানের সংবাদমাধ্যম বোল নিউজকে শনিবারই একটি সাক্ষাৎকার দিয়েছিলেন সাজ়িয়া। বোল নিউজকে উদ্ধৃত করে সংবাদসংস্থা এএনআই জানিয়েছিল তিনি বলেছেন, ‘‘ভারতের ভোলা উচিত নয়, পাকিস্তানের হাতে পরমাণু বোমা আছে।’’ পাকিস্তান পিপলস পার্টির (পিপিপি) নেত্রী সাজ়িয়া আরও বলেছিলেন, ‘‘আমাদের পরমাণু শক্তিধর তকমা চুপ করে বসে থাকার জন্য দেওয়া হয়নি। প্রয়োজন হলে আমরা চুপ করে বসে থাকব না।’’

পাক বিদেশমন্ত্রী বিলাবল শুক্রবার রাষ্ট্রপুঞ্জের নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠকে যোগ দিয়ে বলেন, ‘‘ওসামা বিন লাদেন নিহত হয়েছেন। কিন্তু গুজরাতের কসাই এখনও জীবিত। তিনি ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।’’ প্রধানমন্ত্রী মোদীকে ব্যক্তিগত আক্রমণ করার পরে বিদেশ মন্ত্রকের চটজলদি প্রতিক্রিয়া ছিল, ‘‘পাকিস্তানের কদর্যতার মানকে বিবেচনায় রাখলেও, এটা হীনতম ঘটনা।’’

এই মন্তব্যের জন্য বিদেশের মঞ্চে রীতিমতো চাপে পড়ে গিয়েছে পাকিস্তান। তার পরই বিলাবলের দলেরই অন্যতম নেত্রী তথা পাকিস্তানের মন্ত্রী সাজ়িয়ার পরমাণু হামলার হুমকি ঘিরে নতুন করে তরজা শুরু হয়ে গিয়েছে। এই প্রেক্ষিতে সাজ়িয়ার টুইট আসলে ‘এক পা পিছোনোর’ই কৌশল বলে মনে করা হচ্ছে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE