Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২১ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

Priyanka Gandhi: এ বার গোয়া যাচ্ছেন প্রিয়ঙ্কাও

নিজস্ব সংবাদদাতা
নয়াদিল্লি ০৯ ডিসেম্বর ২০২১ ০৮:১৬
গোয়ার পরে আগামী সপ্তাহে প্রিয়ঙ্কা মহারাষ্ট্রের গঢ়চিরৌলিতে যাবেন বলে কংগ্রেস সূত্রের খবর।

গোয়ার পরে আগামী সপ্তাহে প্রিয়ঙ্কা মহারাষ্ট্রের গঢ়চিরৌলিতে যাবেন বলে কংগ্রেস সূত্রের খবর।
ফাইল চিত্র।

মুম্বই থেকে গোয়া— মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে সক্রিয় দেখেই কি এ বার কংগ্রেসও তৎপর হয়ে উঠল!

আগামী সপ্তাহে তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় গোয়া যাচ্ছেন। তার আগেই শুক্রবার প্রিয়ঙ্কা গাঁধী বঢরা গোয়া যাচ্ছেন। আগামী ফেব্রুয়ারিতে পাঁচ রাজ্যের নির্বাচনের মধ্যে সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ উত্তরপ্রদেশের ভার প্রিয়ঙ্কার কাঁধে। সেই উত্তরপ্রদেশের বদলে প্রিয়ঙ্কার গোয়া সফর দেখে রাজনৈতিক শিবিরে প্রশ্ন উঠেছে, কংগ্রেস হাইকমান্ড কি দলের ভিতরে-বাইরে নিষ্ক্রিয়তার অভিযোগের জবাব দিতে চাইছে? তৃণমূল নেতারা বারবারই ইঙ্গিত দিচ্ছেন, আগামী সপ্তাহে মমতা-অভিষেকের গোয়া সফরে বড় মাপের কেউ তৃণমূলে যোগ দিতে পারেন। আজ কংগ্রেস নেতারা জানিয়েছেন, প্রিয়ঙ্কার উপস্থিতিতে শুক্রবার বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিত্ব কংগ্রেসে যোগ দেবেন।

গোয়ার পরে আগামী সপ্তাহে প্রিয়ঙ্কা মহারাষ্ট্রের গঢ়চিরৌলিতে যাবেন বলে কংগ্রেস সূত্রের খবর। এই প্রথম প্রিয়ঙ্কা মাওবাদী সমস্যায় জর্জরিত গড়চিরৌলিতে যাচ্ছেন। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এক সপ্তাহ আগেই মুম্বই সফর করে এসেছেন। রাহুল গাঁধীরও মুম্বই সফরসূচি চূড়ান্ত হচ্ছে বলে গত কালই শিবসেনার নেতা সঞ্জয় রাউত জানিয়েছিলেন। এ বার প্রিয়ঙ্কাও মহারাষ্ট্র সফরে যাচ্ছেন। কংগ্রেস নেতাদের অবশ্য দাবি, মমতার সফরের সঙ্গে রাহুল-প্রিয়ঙ্কার মহারাষ্ট্র-গোয়া সফরের সম্পর্ক নেই। রাহুল ইতিমধ্যেই গোয়ায় ঘুরে এসেছেন।

Advertisement

আজ সংসদীয় দলের বৈঠকে কংগ্রেস সভানেত্রী সনিয়া গাঁধী মোদী সরকারকে কৃষক আন্দোলনে চাষিদের মৃত্যু, মূল্যবৃদ্ধি, বেসরকারিকরণ, কোভিড মোকাবিলা নিয়ে নিশানা করেন। সনিয়ার অভিযোগ, মোদী সরকার সীমান্তে চিনের সঙ্গে সংঘাত ও সেখানকার পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা এড়িয়ে যাচ্ছে। অর্থনীতি ঘুরে দাঁড়াচ্ছে বলে মোদী সরকারের দাবি নিয়েও প্রশ্ন তোলেন তিনি। সেন্ট্রাল হলের বৈঠকে সনিয়া বলেন, ‘‘কিছু বড় সংস্থা মুনাফা করছে বা শেয়ার বাজার চড়ছে, এর অর্থ এমন নয় যে অর্থনীতি ঘুরে দাঁড়াচ্ছে। যদি কর্মী ছাঁটাই করে মুনাফা করা হয়, তা হলে তার সামাজিক মূল্য কী?’’ তিন কৃষি আইন সংসদে পাশের মতো তা প্রত্যাহারও অগণতান্ত্রিক ভাবে করা হয়েছে বলে অভিযোগ তুলেছেন সনিয়া। কংগ্রেস নেতাদের যুক্তি, কংগ্রেস বিজেপির বিরুদ্ধে যথেষ্ট সক্রিয় নয় বলে তৃণমূল যতই প্রচার করুক, বাস্তবে সনিয়া-রাহুল-প্রিয়ঙ্কা নিয়মিত মোদী সরকারের নীতি নিয়ে প্রশ্ন তুলছেন। শুক্রবার প্রিয়ঙ্কা গোয়ায় গিয়ে কুয়েপেম বিধানসভা কেন্দ্রের একটি গ্রামে মহিলাদের সঙ্গে কথা বলবেন। মারগাঁওয়ে তরুণদের সঙ্গেও কথা বলবেন তিনি। যে ভবনে প্রিয়ঙ্কার অনুষ্ঠান হবে, ১৯৬৭-তে ইন্দিরা গাঁধী তার শিলান্যাস করেছিলেন।

মহারাষ্ট্রে শিবসেনা-এনসিপি-কংগ্রেস জোটের শিবসেনা, এনসিপি দুই দলই বলেছে, জাতীয় রাজনীতিতে বিরোধী জোট কংগ্রেসকে ছাড়া সম্ভব নয়। ‘কংগ্রেস ছাড়া বিরোধী জোট হবে না’ তত্ত্বের অন্যতম প্রবক্তা শিবসেনার নেতা সঞ্জয় রাউত গত কাল রাহুল গাঁধীর সঙ্গে বৈঠকের পরে আজ প্রিয়ঙ্কা গাঁধী বঢরার সঙ্গে বৈঠক করেছেন। তাঁর দাবি, মহারাষ্ট্রে শিবসেনা-কংগ্রেসের জোটকে এগিয়ে নিয়ে যেতে উত্তরপ্রদেশ, গোয়াতেও একসঙ্গে কাজ করার বিষয়ে তাঁদের মধ্যে কথা হয়েছে। শিবসেনা বিজেপির মতো রামজন্মভূমি আন্দোলনের অন্যতম শরিক হিসাবে সাফল্য দাবি করে। রাউতের বক্তব্য, তিনি রাহুলকে ইউপিএ-কে আরও সক্রিয় করার কথা বলেছেন। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মুম্বইতে শরদ পওয়ারের সঙ্গে বৈঠকের পরে ইউপিএ-র অস্তিত্ব নিয়েই প্রশ্ন তুলেছিলেন। শিবসেনা ইউপিএ-তে যোগ দেবে কি না, প্রশ্নের জবাবে রাউত বলেছেন, আমন্ত্রণ এলে শিবসেনা প্রধান উদ্ধব ঠাকরে তা বিবেচনা করবেন। তবে মহারাষ্ট্রের জোটে কংগ্রেস থাকলেও গাঁধী পরিবারের সদস্যদের খুব বেশি মহারাষ্ট্রে যেতে দেখা যায়নি। দু’বছর সরকার চলার পরে প্রিয়ঙ্কার গঢ়চিরৌলির অনুষ্ঠানে দলিত ছাত্রীদের ই-সাইকেল বিলি করা হবে বলে জানান রাজ্যের ত্রাণ-পুনর্বাসন মন্ত্রী, কংগ্রেস নেতা বিজয় ওয়াডেত্তিওয়ার। তাঁর কন্যা, যুব কংগ্রেসের নেত্রী শিবানীর আমন্ত্রণেই প্রিয়ঙ্কা সেখানে যাচ্ছেন।

আরও পড়ুন

Advertisement