Advertisement
০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩

জৈব শৌচাগার

ট্রেনের বর্জ্য আর বাইরে আসবে না। দক্ষিণের রামেশ্বরম রুটে সব ট্রেনের সমস্ত কামরায় বায়ো টয়লেট বা জৈব শৌচাগার বসিয়ে এই বার্তা দিল রেল। ওটিই রেলের প্রথম ‘গ্রিন ট্রেন করিডর’।

শেষ আপডেট: ২৬ জুলাই ২০১৬ ০২:৫৮
Share: Save:

ট্রেনের বর্জ্য আর বাইরে আসবে না। দক্ষিণের রামেশ্বরম রুটে সব ট্রেনের সমস্ত কামরায় বায়ো টয়লেট বা জৈব শৌচাগার বসিয়ে এই বার্তা দিল রেল। ওটিই রেলের প্রথম ‘গ্রিন ট্রেন করিডর’। রবিবার চেন্নাইয়ে সবুজ পতাকা নেড়ে গ্রিন ট্রেন করিডর প্রকল্পের উদ্বোধন করেন রেলমন্ত্রী সুরেশ প্রভু। রামেশ্বরম থেকে মানামাদুরাই পর্যন্ত ওই করিডরের দৈর্ঘ্য ১১৪ কিলোমিটার। ওই রুটে ১০টি প্যাসেঞ্জার ট্রেনের মোট ২৮৬টি কামরাতেই দূষণমুক্ত বায়ো টয়লেট বসানো হয়েছে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.