×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৩ মে ২০২১ ই-পেপার

বালাকোটে ফের জঙ্গি তৎপরতা, হুঁশিয়ারি রাজনাথের

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ০৩:২৭
রাজনাথ সিংহ। ফাইল চিত্র।

রাজনাথ সিংহ। ফাইল চিত্র।

কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বিলোপ নিয়ে আন্তর্জাতিক স্তরে ভারতের বিরুদ্ধে তৎপর পাকিস্তান। এরই মধ্যে ভারতীয় গোয়েন্দাদের কাছে খবর পৌঁছেছে, বালাকোট অভিযানের সাত মাস পরে সেই জঙ্গি ঘাঁটিকে ফের গড়ে তুলতে নেমেছে জইশ-ই-মহম্মদের জঙ্গিরা। এবং এ সবের পুরোটাই চলছে পাক মদতে।

এই পরিস্থিতিতেই পটনায় আজ প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিংহের হুঁশিয়ারি, পাকিস্তান যেন ১৯৬৫ কিংবা ১৯৭১ সালের মতো যুদ্ধ করার ভুল আর না করে। কারণ, যত বারই যুদ্ধ হয়েছে, ভারতই জিতেছে। তবে রাজনাথের মতে, পাকিস্তানকে ধ্বংস করতে চেয়ে ভারতকে কিছুই করতে হবে না। যে ভাবে নিজেদের মাটিতে জঙ্গিদের মদত দিচ্ছে তারা, মানবাধিকার লঙ্ঘনের ঘটনা ঘটাচ্ছে, সে সবই পাকিস্তানকে ধ্বংসের দিকে টেনে নিয়ে যাচ্ছে। ইসলামাবাদকে চ্যালেঞ্জ করে রাজনাথের মন্তব্য, ‘‘দেখি কত জন জঙ্গিকে ওরা ভারতে পাঠাতে পারে! এক জনও ফিরে যাবে না।’’

২৭ ফেব্রুয়ারি পাকিস্তানে ঢুকে ভারতীয় বায়ুসেনা জইশের ঘাঁটিতে হামলা চালিয়েছিল। সাত মাস কেটে গিয়েছে। ৩৭০ অনুচ্ছেদ বিলোপের বিষয় নিয়ে এখন ভারত-পাকিস্তান মধ্যে টানাপড়েনের বেড়েছে। এরই মধ্যে ভারতীয় গোয়েন্দাদের কাছে খবর, পাক সরকারের মদতে জঙ্গি গোষ্ঠীগুলি ফের তৎপর হয়েছে। জইশের কমান্ডার আব্দুল রউফ আসগরের সঙ্গে পাক গুপ্তচর সংস্থা আইএসআইয়ের কর্তাদের সঙ্গে আলোচনা হয়েছে। শুধু কাশ্মীরই নয়, জঙ্গিরা গুজরাত, মহারাষ্ট্রেও হামলা করার ছক কষছে।

Advertisement

ভারতীয় বায়ুসেনার অভিযানের পরে এখন আবার নতুন করে মানসেরা, গুলপুর, কোটলির জঙ্গি শিবিরে প্রশিক্ষণ শুরু হয়েছে বলে গোয়েন্দারা জানতে পেরেছেন। খাইবার পাখতুনখোয়ার বিভিন্ন এলাকা থেকে জইশ নতুন করে জঙ্গি নিয়োগ করছে, তাদের প্রশিক্ষণ দিচ্ছে বলেও গোয়েন্দাদের কাছে খবর। তারা জানতে পেরেছেন, পুঞ্চ ও রাজৌরি সেক্টরের কাছে নীলুম, লিপা উপত্যকায় জইশের অন্তত ১০০ জন জঙ্গি এ-পারে আসার অপেক্ষায়। আবার আফগানিস্তান থেকেও জঙ্গিদের ধাপে ধাপে কাশ্মীরে পাঠাতে চাইছে মাসুদ আজহার।

Advertisement