Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৮ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

পওয়ারকে রাষ্ট্রপতি হিসেবে চায় শিবসেনা

শিবসেনার নেতা সঞ্জয় রাউত বলেন, ‘‘শরদ পওয়ার প্রবীণ নেতা। রাষ্ট্রপতি পদের জন্য তাঁর নাম সব দলেরই বিবেচনা করা উচিত।”

নিজস্ব সংবাদদাতা
নয়াদিল্লি ০৭ জানুয়ারি ২০২০ ১০:৩০
শরদ পওয়ার। ফাইল চিত্র।

শরদ পওয়ার। ফাইল চিত্র।

রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের দু’বছরের বেশি সময় বাকি। আচমকাই রাষ্ট্রপতি প্রার্থী হিসেবে ‘মরাঠা স্ট্রংম্যান’ শরদ পওয়ারের নাম প্রস্তাব করে বসল শিবসেনা।

শিবসেনার নেতা সঞ্জয় রাউত বলেন, ‘‘শরদ পওয়ার প্রবীণ নেতা। রাষ্ট্রপতি পদের জন্য তাঁর নাম সব দলেরই বিবেচনা করা উচিত। রাষ্ট্রপতি পদে পছন্দের প্রার্থীকে জিতিয়ে আনার মতো সংখ্যা আমাদের রয়েছে।’’ মহারাষ্ট্রে পওয়ারের উদ্যোগেই কংগ্রেস-এনসিপির সঙ্গে মিলে মুখ্যমন্ত্রীর কুর্সিতে বসেছেন উদ্ধব ঠাকরে। সঞ্জয় রাউতই পওয়ারের সঙ্গে লাগাতার যোগাযোগ রেখে গিয়েছিলেন। যদিও এখন মন্ত্রক বণ্টনে এনসিপির হাতে অনেক গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রক এসেছে। আর এই সরকারে রোজকারের বিষয়ে নাক না গলালেও চাবি রয়েছে পওয়ারেরই হাতে।

এনসিপির নেতা মজিদ মেমনও বলেন, ‘‘পওয়ারকে রাষ্ট্রপতি প্রার্থী করলে অ-বিজেপি দলগুলি ২০২২ সালের আগে কাছাকাছি আসতে পারে। ২০২৪ সালের লোকসভা ভোটে বিজেপিকে পরাস্ত করতে হলে এই দলগুলির কাছাকাছি আসাটা দরকার।’’ প্রশ্ন হল, এত আগে কেন পওয়ারের নাম প্রস্তাব করল শিবসেনা? বাকি দলগুলির সঙ্গে কি আলোচনা করেছে? না কি মহারাষ্ট্রে আর এক শরিক কংগ্রেসের উপর চাপ বাড়াতেই এই কৌশল? দিল্লিতে কংগ্রেস নেতারা বলছেন, ‘‘অবিজেপি জোটের রাষ্ট্রপতি প্রার্থী কে হবেন, বাকি বিরোধী দলের সঙ্গে মিলে এ যাবৎ তা চূড়ান্ত করে এসেছে কংগ্রেস। আলোচনা ছাড়া একতরফা নাম প্রস্তাবের কী অর্থ? অশীতিপর পওয়ার নিজেও কি প্রার্থী হতে চাইছেন?’’ সঞ্জয় রাউত অবশ্য বলেন, ‘‘আমি তো শুধু নাম প্রস্তাব করেছি। অন্য দল অন্য কোনও নেতার নাম প্রস্তাব করতেই পারে। আমি বলতে চেয়েছি, রাষ্ট্রপতি স্থির করার সংখ্যা আমাদের রয়েছে।’’

Advertisement

আরও পড়ুন

Advertisement