×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৮ মে ২০২১ ই-পেপার

দক্ষিণ ভারতে প্রথম চালু হল সুখোই-৩০ স্কোয়াড্রন

সংবাদ সংস্থা
তাঞ্জাভুর, তামিলনাড়ু ২০ জানুয়ারি ২০২০ ১৬:৪৪
সুখোই যুদ্ধবিমান। —ফাইল চিত্র

সুখোই যুদ্ধবিমান। —ফাইল চিত্র

দক্ষিণ ভারতে প্রথম ব্রহ্মস সুপারসনিক ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্র বহনকারী সুখোই-৩০ এমকেআই স্কোয়াড্রনের সূচনা হল তামিলনাড়ুর তাঞ্জাভুরে। চিফ অব ডিফেন্স স্টাফ বিপিন রাওয়াত এবং বায়ুসেনা প্রধান আরকেএস ভাদৌরিয়ার উপস্থিতিতে সোমবার এক অনুষ্ঠানে এর সূচনা হয়। এর ফলে ভারত মহাসাগরীয় অঞ্চলে দেশের জল ও আকাশসীমা আরও সুরক্ষিত হল।

ব্রহ্মস ক্ষেপণাস্ত্রের পাল্লা ৩০০ কিলোমিটার। সুখোই-৩০ এমকেআই থেকে ভারত মহাসাগরের অভ্যন্তরে অনেক দূর পর্যন্ত লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত করতে পারবে এই ক্ষেপণাস্ত্র। প্রাথমিক ভাবে পাঁচটি দিয়ে এই স্কোয়াড্রনের সূচনা হয়েছে। ধীরে ধীরে সংখ্যা বাড়িয়ে ২৮টি করা হবে বলে সেনা সূত্রে জানা গিয়েছে।

বায়ুসেনা প্রধান ভাদৌরিয়া সংবাদ সংস্থা এএনআই-কে বলেছেন, ‘‘কৌশলগত অবস্থানের জন্য তাঞ্জাভুরে সুখোই-৩০ এমকেআই মোতায়েন করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।’’ এই নিয়ে দক্ষিণ ভারতে বায়ুসেনার দ্বিতীয় যুদ্ধবিমান স্কোয়াড্রন তৈরি হল।

Advertisement

আরও পড়ুন: নির্ভয়া কাণ্ডের সময় নাবালক ছিল না, পবনের আর্জি খারিজ সুপ্রিম কোর্টে

আরও পড়ুন: পুলিশের চাকরি ছেড়ে জঙ্গি দলে, শোপিয়ানে এনকাউন্টারে নিহত যুবক-সহ ৩ হিজবুল সদস্য

দক্ষিণ ভারতে প্রতিরক্ষার ক্ষেত্রে তিরুঅনন্তপুরম বায়ুসেনা ঘাঁটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। সেই ঘাঁটির সম্প্রসারণের পরিকল্পনার কথাও এ দিন জানিয়েছেন বায়ুসেনা প্রধান। আরকেএস ভাদৌরিয়া বলেন, ‘‘সম্প্রসারণের প্রক্রিয়া চলছে। এই ঘাঁটির লাগোয়া এলাকায় অতিরিক্ত জমি অধিগ্রহণ করা হয়েছে। আগামী চার বছরের মধ্যে পুরো সম্প্রসারণের প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ হবে বলে আশা করা যায়।’’

Advertisement