Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২১ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

চিন্ময়ানন্দের বিরুদ্ধে প্রমাণ গায়েব, দাবি শাহজাহানপুরের তরুণীর বাবার

ওই মামলার তদন্তে নেমে ওই ছাত্রী ও তাঁর বাবাকে সঙ্গে নিয়ে ৯ সেপ্টেম্বর শাহজাহানপুরের হস্টেলে যায় তদন্তকারী দল।

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ১৮:১৫
Save
Something isn't right! Please refresh.
—ফাইল চিত্র।

—ফাইল চিত্র।

Popup Close

আইনের ছাত্রীকে ধর্ষণের মামলায় ফের নয়া মোড়।প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী স্বামী চিন্ময়ানন্দের ‘কুকীর্তি’র ভিডিয়ো রেকর্ড করা চশমাগুলি(ক্যামেরা বসানো) হস্টেলের বন্ধ ঘর থেকে লোপাট করাহয়েছে বলেঅভিযোগ করলেন শাহজাহানপুরের নির্যাতিতাওই ছাত্রীর বাবা। তবে এ বিষয়ে কোনও মন্তব্য করেননি তদন্তকারী আধিকারিকেরা।

বৃহস্পতিবার ওই তরুণীর বাবা বলেন, ‘‘আমার মেয়ে তার হোস্টেলের ঘরে একটি গোপন জায়গায় সমস্ত প্রমাণ লুকিয়ে রেখেছিল। আদালতের নির্দেশে ওই ঘর সিল করে দেওয়া হয়েছিল। তবে সোমবার বিশেষ তদন্তকারী দল (সিট) এর অফিসারেরা সিল ভেঙে ওই ঘরে ঢুকে দেখেন, বেশ কিছু প্রমাণ লোপাট হয়ে গিয়েছে।’’

ওই মামলার তদন্তে নেমে ওই ছাত্রী ও তাঁর বাবাকে সঙ্গে নিয়ে ৯ সেপ্টেম্বর শাহজাহানপুরের হস্টেলে যায় তদন্তকারী দল। এ দিন ছাত্রীর বাবা বলেন, ‘‘আমার মেয়ে দু’টো চশমায় গোপন ক্যামেরা লাগিয়ে তাতে চিন্ময়ানন্দের সমস্ত কুকীর্তি রেকর্ড করেছিল। সেই দু’টো চশমাই আর পাওয়া যাচ্ছে না।’’

Advertisement

আরও পড়ুন: সংযুক্তিকরণের প্রতিবাদে ধর্মঘট ২৬-২৭, টানা চার দিন ব্যাঙ্ক বন্ধে হয়রানির আশঙ্কা

এ দিন ওই তরুণীর বাবার অভিযোগ নিয়ে কোনও মন্তব্য না করলেও সিট-এর এক শীর্ষ আধিকারিক জানিয়েছেন, চিন্ময়ানন্দকে শীঘ্রই জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। নামপ্রকাশে অনিচ্ছুক ওই তদন্তকারী আধিকারিক আরও জানিয়েছেন, তিন দিন আগেই চিন্ময়ানন্দকে ডেকে পাঠানো হয়েছিল। তবে অসুস্থতার কারণে হাজিরা দিতে পারেননি তিনি।

আরও পড়ুন: নিশানা শুধুমাত্র মমতা, অনৈক্য সামলান: বঙ্গ বিজেপিকে হুঁশিয়ারি শাহের

গত মাসে ফেসবুকে একটি ভিডিয়ো পোস্টে বিজেপি নেতা চিন্ময়ানন্দের বিরুদ্ধেযৌন হেনস্থার অভিযোগ করেন শাহজাহানপুরের ওই তরুণী। এর পরের দিন থেকে তাঁর খোঁজ মিলছিল না।সে সময় চিন্ময়ানন্দের বিরুদ্ধে পুলিশে অভিযোগ করেন তাঁর বাবা। ওই অভিযোগের ভিত্তিতে গত ২৭ অক্টোবর উত্তরপ্রদেশ পুলিশ তাঁর বিরুদ্ধে খুনের উদ্দেশ্যে অপহরণ এবং ভয় দেখানোর মামলা রুজু করে। এর পর রাজস্থানের জয়পুর থেকে ওই তরুণীর খোঁজ মিলেছিল। ওই তরুণী জানিয়েছিলেন, চিন্ময়ানন্দের ভয়েই হোস্টেল ছেড়ে বন্ধুদের সঙ্গে পালিয়ে গিয়েছিলেন তিনি। এর পর গত সপ্তাহে চিন্ময়ানন্দের বিরুদ্ধে ফের অভিযোগ অভিযোগ করেন ওই তরুণী।। প্রথমে যৌন হেনস্থার অভিযোগ করলেও এ বার তাঁর বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ করেন তিনি। তবে গত মাসে প্রথম বার সে অভিযোগ করার পর বেশ কয়েক সপ্তাহ কেটে গেলে চিন্ময়ানন্দের বিরুদ্ধে পুলিশ এখনওএফআইআর করেনি বলে অভিযোগ ওই তরুণীর।

এই মামলায় উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের ঘনিষ্ঠ চিন্ময়ানন্দকে আড়াল করার চেষ্টা করা হচ্ছে বলেও প্রশাসনের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে। তবে এ দিন সিট-এর ওই আধিকারিক বলেন, ‘‘আমরা চিন্ময়ানন্দকে জিজ্ঞাসাবাদ করব না, এমন বললে ভুল হবে। তিন দিন আগেই তাঁকে জেরার জন্য ডেকে পাঠানো হয়েছিল। তবে তাঁর শারীরিক কারণে তা হয়ে ওঠেনি। আশা করছি, আগামী কয়েক দিনের মধ্যে চিন্ময়ানন্দকে জেরা করতে পারব।’’

আইনের পড়ুয়া শাহজাহানপুরের ওই তরুণী অভিযোগ, চিন্ময়ানন্দ গত এক বছর ধরেই তাঁকে ধর্ষণ করছেন। এমনকি, সেই ভিডিয়ো তুলে তাঁকে ব্ল্যাকমেলও করে চলেছেন। গত মাসের শেষে একটি ভিডিয়োতে চিন্ময়ানন্দের বিরুদ্ধে প্রথম মুখ খোলেন ২৩ বছরের ওই তরুণী। এমনকি, উত্তরপ্রদেশ পুলিশ তাঁর অভিযোগ নিতে চাইছে না বলে দাবি করে দিল্লি পুলিশের দ্বারস্থ হন তিনি। এর আগেই অবশ্য গত ৩ সেপ্টেম্বর এ নিয়ে সিট গঠনের জন্য যোগী সরকারকে নির্দেশ দিয়েছিল সুপ্রিম কোর্ট। ইলাহাবাদ আদালতের তত্ত্বাবধানে সেই তদন্ত চলবে বলেও জানিয়েছিল শীর্ষ আদালত। তবে সেই তদন্ত শুরু হলেও এখনও পর্যন্ত চিন্ময়ানন্দকে গ্রেফতার করেনি পুলিশ। যদিও ওই তরুণী সমস্ত অভিযোগ বরাবরই অস্বীকার করেছেন চিন্ময়ানন্দ। এ দিন সংবাদ সংস্থা পিটিআই-কে তিনি বলেন, ‘‘সিট-এর তদন্তে আমার পুরোপুরি ভরসা রয়েছে। তদন্ত শেষ হলেও সব কিছু স্পষ্ট হয়ে যাবে। এটা আসলে আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র ছাড়া আর কিছুই নয়।’’

উত্তরপ্রদেশ পুলিশ জানিয়েছে, আগামী ২৩ সেপ্টেম্বরের মধ্যে ইলাহাবাদ আদালতে এই মামলার স্টেটাস রিপোর্ট জমা দিতে হবে।



Something isn't right! Please refresh.

আরও পড়ুন

Advertisement