Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৮ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

জামিন হায়দরাবাদের ছাত্রদের

ধর্ষণের হুমকি দেয় পুলিশই, দাবি রিপোর্টে

ছাত্রদের আন্দোলন তুলতে এসে ধর্ষণের হুমকি দিয়েছিল পুলিশ, আজ হায়দরাবাদ নিয়ে নিরপেক্ষ এক তদন্তকারী দলের রিপোর্টে দাবি করা হল এমনটাই। দলিত ছাত্র

সংবাদ সংস্থা
হায়দরাবাদ ২৯ মার্চ ২০১৬ ০৪:১০
Save
Something isn't right! Please refresh.
Popup Close

ছাত্রদের আন্দোলন তুলতে এসে ধর্ষণের হুমকি দিয়েছিল পুলিশ, আজ হায়দরাবাদ নিয়ে নিরপেক্ষ এক তদন্তকারী দলের রিপোর্টে দাবি করা হল এমনটাই। দলিত ছাত্র রোহিত ভেমুলার আত্মহত্যার প্রায় দু’মাস বাদে গত মঙ্গলবার উপাচার্য পদে আপ্পা রাও ফিরে এলে নতুন করে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে হায়দরাবাদ কেন্দ্রীয় বিশ্ববিদ্যালয় বিশ্ববিদ্যালয়। ছাত্রদের বিরুদ্ধে অভিযোগ, উপাচার্য ও বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্য অফিসারদের আটকে রেখে আপ্পা রাওয়ের ঘরে ভাঙচুর চালান তাঁরা। পরের দিন অশিক্ষক কর্মীদের একাংশের বিক্ষোভের জেরে ক্যাম্পাসে খাবার, জল, ইন্টারনেট পরিষেবা যখন ব্যাহত, তারই মধ্যে পুলিশ ঢুকে গ্রেফতার করে নিয়ে যায় ২৫ পড়ুয়া ও দু’জন শিক্ষককে। গত ছ’দিন ধরে চেরলাপল্লির জেলে বন্দি থাকার পর আজই মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেটের আদালত জামিন মঞ্জুর করেছে তাঁদের। তবে ধৃতদের প্রত্যেকের ৫ হাজার টাকার জামিনদারের বিনিময়ে ও স্থানীয় থানায় এক দিন করে হাজিরা দেওয়ার শর্তেই মিলেছে এই মুক্তি।

হায়দরাবাদে যে ভাবে ছাত্রদের উপর পুলিশ চড়াও হয়েছে, তা নিয়ে বিস্তর সমালোচনা হয়েছে গোটা দেশে। এরই মধ্যে পুলিশি অত্যাচার নিয়ে নতুন তথ্য সামনে আসায় নতুন করে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে আজ। মানবাধিকার কমিশনের সদস্য, অধ্যাপক ও আইনজীবীরা মিলে একটি তথ্য অনুসন্ধানকারী দল তৈরি করেছিলেন। সোমবার তাদের অন্তর্বতী রিপোর্টে দাবি করা হল, আন্দোলনকারী তরুণীদের ধর্ষণের হুমকি দিয়েছে পুলিশই। এমনকী, সংখ্যালঘু পড়ুয়াদের উদ্দেশে আইনের রক্ষকের কাছ থেকে উড়ে এসেছে ‘সন্ত্রাসবাদী’ তকমাও।

দাবি-পাল্টা দাবি, অশান্তির মধ্যেই আজ থেকে কিছুটা হলেও ছন্দে ফিরছে হায়দরাবাদ বিশ্ববিদ্যালয়। দ্বিতীয় দফায় আন্দোলনের জেরে ২৩ মার্চ থেকে বন্ধ ছিল ক্লাস। এ দিন নতুন করে ক্লাস বয়কটের ডাক দিয়েছিল আন্দোলনকারীরা। তবে তা উপেক্ষা করেই শুরু হয়েছে পঠন-পাঠন। আন্দোলন ছেড়ে ছাত্রদের পড়াশোনায় মন দেওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন উপাচার্যও। প্রতিবাদী পড়ুয়াদের সঙ্গে আলোচনায় বসার জন্য সাত সদস্যের একটি কমিটিও গড়েছেন তিনি।

Advertisement

পড়াশোনা চালু হলেও সমস্যার সুরাহা যে কবে হবে, তা নিয়ে অবশ্য দিশা দেখাতে পারেনি কোনও পক্ষই। ছাত্রদের দাবি, রোহিত ভেমুলার মৃত্যুর জন্য দায়ী উপাচার্যকে সরে যেতে হবে। আপ্পা রাওয়ের বিরুদ্ধে মামলা শেষ না হওয়া পর্যন্ত তাঁকে সাসপেন্ড করার সুপারিশ করেছে মানবাধিকার কমিশনের সদস্য, অধ্যাপক, আইনজীবীদের নিরপেক্ষ তদন্তকারী দলও। আজ একই দাবি জানিয়েছে কংগ্রেসও। প্রাক্তন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সুশীল কুমার শিন্দে সোমবার দেখা করেন ধৃত ছাত্রদের সঙ্গে। পরে তিনি জানান, উপাচার্যের পদত্যাগ ও হায়দরাবাদ বিশ্ববিদ্যালয়ে স্বাভাবিক পরিস্থিতি ফিরিয়ে আনার দাবিতে আগামী কাল রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়ের সঙ্গে দেখা করবেন তাঁরা।



Something isn't right! Please refresh.

Advertisement