Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৪ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

মুখোমুখি সংঘর্ষ এড়াল দুই বিমান

ঠিক এক মাসের ব্যবধান! ফের পূর্ব ভারতের আকাশে বড় মাপের দুর্ঘটনা এড়াল দু’টি যাত্রিবাহী বিমান। গত ১১ জুলাই বাগডোগরার আকাশে অল্পের জন্য মুখোমুখি

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ১২ অগস্ট ২০১৪ ০৩:২০
Save
Something isn't right! Please refresh.
Popup Close

ঠিক এক মাসের ব্যবধান! ফের পূর্ব ভারতের আকাশে বড় মাপের দুর্ঘটনা এড়াল দু’টি যাত্রিবাহী বিমান।

গত ১১ জুলাই বাগডোগরার আকাশে অল্পের জন্য মুখোমুখি সংঘর্ষ এড়িয়েছিল এয়ার ইন্ডিয়া এবং ইন্ডিগোর দু’টি বিমান। সোমবার সকাল আটটায় ঘটনাটি ঘটেছে জামশেদপুরের আকাশে। কলকাতা বিমানবন্দর সূত্রের খবর, ইউনাইটেড বাংলাদেশ বিমানসংস্থার এক চালক ভুল করে বিমানের উচ্চতা অনেকটা কমিয়ে আনছিলেন। যার ফলে সৌদি আরবের একটি বিমানের সঙ্গে সেটির সংঘর্ষ হতে পারত। তবে উচ্চতা কমানোর কিছু ক্ষণের মধ্যেই বিপদসঙ্কেত পান দুই বিমান চালক এবং কলকাতায় এয়ার ট্রাফিক কন্ট্রোলের (জামশেদপুরের আকাশ এই এটিসি-র অধীনেই) অফিসারেরা। তিন পক্ষই তৎপর হয়ে ওঠায় শেষ পর্যন্ত দুর্ঘটনা এড়ানো গিয়েছে। তবে তদন্ত শুরু করেছে ডিরেক্টরেট জেনারেল অফ সিভিল অ্যাভিয়েশন (ডিজিসিএ)।

বিমানবন্দর সূত্রের খবর, গত ১১ জুলাই দুপুর সাড়ে ১২টা নাগাদ ইন্ডিগোর একটি বিমান বাগডোগরা বিমানবন্দর থেকে উড়েছিল। সে সময়ই দিল্লি থেকে আসা এয়ার ইন্ডিয়ার একটি বিমান বাগডোগরায় নামার কথা ছিল। ইন্ডিগোর বিমানটি ওড়ার কিছু ক্ষণের মধ্যেই বিপদসঙ্কেত পান দু’টি বিমানের চালকই। তাঁদের তৎপরতায় বিপদ ঘটেনি সে দিন।

Advertisement

এ দিন কী ভুল করেছেন ইউনাইটেড বাংলাদেশ বিমানসংস্থার চালক?

বিমানবন্দর সূত্রের খবর, এ দিন সকালে এমিরেটস-এর একটি বিমান (ই কে ৫৮২) দুবাই থেকে ঢাকা যাচ্ছিল। বিমানটি রাজশাহীর কাছাকাছি পৌঁছলে, তাকে ২৯ হাজার ফুট উচ্চতায় উড়তে বার্তা পাঠায় এটিসি। সে সময়ই জামশেদপুরের আকাশ দিয়ে দু’টি বিমান উড়ছিল।

ঢাকাগামী ইউনাইটেড বাংলাদেশের একটি বিমান (ইউ বি ৫৮৪) মাটি থেকে ৩৩ হাজার ফুট দিয়ে উড়ছিল। ৩২ হাজার ফুট উচ্চতা দিয়ে উড়ে যাচ্ছিল হংকং থেকে রিয়াধগামী সৌদি আরবের একটি বিমান। এটিসি-র নিয়ম অনুযায়ী, দু’টি বিমানের মধ্যে অন্তত ১ হাজার ফুটের উচ্চতার ফারাক থাকতে হবে। এমিরেটস-এর পাইলটকে দেওয়া বার্তা নিয়মমাফিক শুনতে পেয়েছিলেন ইউনাইটেড বাংলাদেশের পাইলটও। সেখানেই ভুল করেন তিনি। এমিরেটস-এর পাইলটকে দেওয়া বার্তা নিজের মনে করে উচ্চতা কমাতে শুরু করেন তিনি।

বিমানবন্দর সূত্রের খবর, উচ্চতা কমতে শুরু করায় বাংলাদেশ ও সৌদি আরব দু’টি বিমানের পাইলটই ককপিটে বিপদসঙ্কেত পান। বিপদসঙ্কেত আসে এটিসি-র কাছেও। সঙ্গে সঙ্গে এটিসি বাংলাদেশের পাইলটকে ফের উচ্চতা বাড়িয়ে নিজের পুরনো অবস্থানে ফিরে যেতে নির্দেশ দেয়। সেই নির্দেশ মেনে উচ্চতা বাড়ান ওই পাইলট। শেষ পর্যন্ত নির্বিঘ্নেই গন্তব্যে পৌঁছয় দু’টি বিমান।



Something isn't right! Please refresh.

আরও পড়ুন

Advertisement