Advertisement
০৪ মার্চ ২০২৪
Death News

সৎকারের অর্থ নেই, মায়ের দেহ আগলে এক বছর ঘরেই বসে দুই কন্যা!

দুই বোনকে জিজ্ঞাসাবাদ করে পুলিশ জানতে পেরেছে, তাঁদের মায়ের মৃত্যু হয়েছে ২০২২ সালের ৮ ডিসেম্বর। এত দিন ঘরেই দেহ রেখে দিয়েছিলেন তাঁরা। সৎকারের অর্থ ছিল না।

An image representing death

—প্রতীকী চিত্র।

আনন্দবাজার অনলাইন ডেস্ক
লখনউ শেষ আপডেট: ৩০ নভেম্বর ২০২৩ ১৬:৪০
Share: Save:

মায়ের দেহ আগলে প্রায় এক বছর বসে রইলেন দুই কন্যা। সৎকারের সামর্থ্য ছিল না তাঁদের। সেই কারণে মায়ের মৃত্যুর কথা কাউকে জানতেও দেননি। সুকৌশলে তথ্য গোপন করে রেখেছিলেন। প্রায় এক বছর পর তাঁদের কীর্তি ফাঁস হয়েছে। উদ্ধার করা হয়েছে তাঁদের মায়ের কঙ্কাল।

ঘটনাটি উত্তরপ্রদেশের বারাণসীর। মৃত মহিলার নাম উষা দেবী (৫৭)। পুলিশ জানিয়েছে, ওই মহিলার স্বামী কয়েক বছর আগে বাড়ি ছেড়ে চলে গিয়েছিলেন। স্ত্রীর মৃত্যুর খবর পেয়েও ফেরেননি। তাঁর দুই কন্যার বয়স যথাক্রমে ২৭ এবং ১৭। তাঁরা মায়ের দেহ সৎকার না করে, কাউকে খবর না দিয়ে দিব্যি দিন কাটিয়ে দিয়েছেন।

পুলিশ সূত্রে খবর, তাঁরা যে এলাকায় থাকতেন, সেখানকার বাসিন্দারা গত কয়েক দিন ধরে দুই বোনকে দেখতে পাচ্ছিলেন না। এতে তাঁদের সন্দেহ হয়। স্থানীয়েরাই তাঁদের আত্মীয়স্বজনকে খবর দেন। খবর পায় পুলিশও। তারা এসে বাড়িতে ঢোকে এবং দেখে, মায়ের কঙ্কালের পাশে বসে আছেন দুই মেয়ে। তাঁদের জিজ্ঞাসাবাদ করে জানা যায়, তাঁদের মায়ের মৃত্যু হয়েছে ২০২২ সালের ৮ ডিসেম্বর।

মৃতদেহের পচা গন্ধ কী ভাবে গোপন করলেন? দুই কন্যা পুলিশকে জানিয়েছেন, তাঁরা ধূপকাঠি ব্যবহার করতেন। ধূপ জ্বেলে ঘরের ভিতরের গন্ধ বাইরে যাওয়া আটকাতেন। তার ফলেই মহিলার মৃত্যু টের পাননি প্রতিবেশীরা। দুই বোনকেই পুলিশ আপাতত হেফাজতে নিয়েছে। তাঁদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। কী ভাবে তাঁদের মায়ের মৃত্যু হল, কেন কাউকে সে কথা জানালেন না, সে বিষয়ে আরও খুঁটিয়ে জানতে চান তদন্তকারী আধিকারিকেরা।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE