Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৮ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

গোরক্ষপুরের ইউএফও কি ফটোশপের কারসাজি?

ঠিক যেন একটা বড়সড় ফ্লাইং সসার। কিছুটা সাদা, কিছুটা ধূসর রঙের মিশেল। গত শনিবার গোরক্ষপুরের আকাশে এমন কিছু দেখেই চমকে উঠেছিলেন স্থানীয়রা।

সংবাদ সংস্থা
০১ ডিসেম্বর ২০১৫ ১৩:০৪

ঠিক যেন একটা বড়সড় ফ্লাইং সসার। কিছুটা সাদা, কিছুটা ধূসর রঙের মিশেল। গত শনিবার গোরক্ষপুরের আকাশে এমন কিছু দেখেই চমকে উঠেছিলেন স্থানীয়রা। বিশালাকার ধূসর বস্তুটি দেখে অনেকেরই মনে হয়েছিল ওটা হয়তো ইউএফও। এক প্রত্যক্ষদর্শী বস্তুটির ছবিও তুলেছিলেন। আর তার পরই তা সোশাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে যায়। সকলের হাতে হাতে মোবাইলে ঘুরতে থাকে সেই ছবি।

স্বাভাবিক ভাবেই এ নিয়ে নানা জল্পনাও ছড়িয়েছে। অনেকেই প্রশ্ন করছেন এটা কি ফটোশপের কারসাজি? যদি তা হয় সেক্ষেত্রে কোন ধরনের প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়েছে? এর আগে ব্রাজিল, দক্ষিণ আফ্রিকা এবং চিনের মতো দেশ থেকে এমন ভুয়ো ছবি ইন্টারনেটে ছড়িয়ে গুজব তৈরি করা হয়েছিল। আবার ২০০৬ সালে শিল্পী জুক্কা কোরহনেন এমনই ভুয়ো স্পেসশিপের ছবি তৈরি করেছিলেন। সে সময় মার্কিন একটি টেলিভিশন শোতে বেশ জনপ্রিয়ও হয়েছিলেন তিনি। গোরক্ষপুরের আকাশের বস্তুটি কি তেমনি কিছু?

দেখুন, ‘ইউএফও’র ভিডিও

Advertisement

সরকারি ভাবে ওটা ইউএফও কি না সে ব্যাপারে নিশ্চিত করে কিছু জানানো হয়নি। কিন্তু বিষয়টা ঠিক কী? এক এক জনের কাছে এর এক এক রকম ব্যাখ্যা। গোরক্ষপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের ভুগোল বিভাগের অধ্যাপক কে এন সিংহের ব্যাখ্যা, ‘‘ওটা মোটেই ইউএফও নয়। জমে যাওয়া কুয়াশা হতে পারে। আবার অনেক উচ্চতায় কার্বন ডি-অক্সাইড হলেও ওরকম দেখাতে পারে।’’ আবার স্থানীয় এসপি লব কুমার রঞ্জন জানিয়েছেন, পুরোটাই গুজব। অনেকে আবার বলছেন, মেঘ জমে গিয়ে ওইরকম দেখতে হয়েছিল। যদিও ছবিটি সোশাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়ার পর থেকে ঝড়ের বেগে গুজব ছড়িয়েছে। অনেক জায়গা থেকেই ইউএফও দেখার খবরও আসছে।

পড়ুন, গোরক্ষপুরের আকাশে ইউএফও?

আরও পড়ুন

Advertisement