Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০৬ জুলাই ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

বিক্ষোভ থেকে বন্দুক উঁচিয়ে পুলিশকে গুলি, ছবি প্রকাশ উত্তরপ্রদেশ পুলিশের

উত্তরপ্রদেশ পুলিশ যে ভিডিয়ো ও ছবি প্রকাশ করেছে, তাতে ভিড়ের মধ্যেই আগ্নেয়াস্ত্র হাতে কয়েক জনকে দেখা গিয়েছে।

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি ২৬ ডিসেম্বর ২০১৯ ১১:০৫
Save
Something isn't right! Please refresh.
এই ছবিই প্রকাশ করেছে উত্তরপ্রদেশ পুলিশ। টুইটার থেকে সংগৃহীত

এই ছবিই প্রকাশ করেছে উত্তরপ্রদেশ পুলিশ। টুইটার থেকে সংগৃহীত

Popup Close

স‌ংশ‌োধিত নাগরিকত্ব আইন (সিএএ)জাতীয় নাগরিক পঞ্জি (এনআরসি) নিয়ে বিক্ষোভে, ভিড় লক্ষ্য করে উত্তরপ্রদেশ পুলিশের গুলি চালানোর ভিডিয়ো শোরগোল ফেলে দিয়েছিল দেশ জুড়ে। এ বার বিক্ষোভকারীদের ভিড় থেকে গুলি চালানো হয়েছে বলে দাবি করে পাল্টা ছবি প্রকাশ করল যোগী-রাজ্যের পুলিশ। ওই ছবি মেরঠের বিক্ষোভের বলে দাবি করা হয়েছে।

পুলিশ দাবি করেছে, গত ১৯ থেকে ২১ ডিসেম্বরের মধ্যে সিএএ ও এনআরসি বিরোধী বিক্ষোভ এমন আকার ধারণ করেছিল যে, তাঁরা গুলি চালাতে বাধ্য হন। উত্তরপ্রদেশ পুলিশ যে ছবি প্রকাশ করেছে, তাতে ভিড়ের মধ্যেই আগ্নেয়াস্ত্র হাতে কয়েক জনকে দেখা গিয়েছে। নীল পোশাক পরা এক ব্যক্তিকে কালো কাপড়ে মুখ ঢেকে হাতে বন্দুক উঁচিয়ে এগিয়ে যেতে দেখা গিয়েছে। আরেকটি ছবিতে দেখা যাচ্ছে, কালো জ্যাকেট পরা এক ব্যক্তি হাতে আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে রয়েছেন। পুলিশের দাবি, ওই ছবি গত শুক্রবারের।

বিক্ষোভকারীদের ‘হিংসাত্মক’ কার্যকলাপের কথা বলতে গিয়ে উত্তরপ্রদেশের উপমুখ্যমন্ত্রী দীনেশ শর্মা বলেন, ‘‘২১টি জেলা জুড়ে বিক্ষোভের জেরে ২৮৮ জন পুলিশকর্মী জখম হয়েছেন। এর মধ্যে ৬২ জন পুলিশকর্মী গুলিতে জখম হয়েছেন।’’ বিক্ষোভস্থল থেকে পুলিশ প্রায় পাঁচশো বুলেটের খোল উদ্ধার করেছে বলেও দাবি করেছেন তিনি।

Advertisement

আরও পড়ুন: এনপিআর: স্বস্তি দিচ্ছে না আইন​

সিএএ এবং জাতীয় নাগরিক পঞ্জি (এনআরসি) নিয়ে বেশ কয়েক দিন ধরেই অগ্নিগর্ভ উত্তরপ্রদেশের বিভিন্ন এলাকা। সিএএ ও এনআরসি-র বিরোধিতায় নেমে এখনও পর্যন্ত মোট ১৬ জন বিক্ষোভকারীর মৃত্যু হয়েছে গোটা উত্তরপ্রদেশে। মৃতদের মধ্যে রয়েছে আট বছরের শিশুও। এর মধ্যে শুধুমাত্র মেরঠেই মারা গিয়েছেন ছ’জন। পুলিশ বিক্ষোভকারীদের উপর গুলি চালিয়েছে বলে অভিযোগ উঠলেও তা প্রাথমিক ভাবে অস্বীকার করেছিল যোগী-রাজ্যের পুলিশ। সম্প্রতি বিজনৌরে বিক্ষোভে গুলিতে এক সিভিল সার্ভিস পরীক্ষার্থীর মৃত্যু হয়। ওই ঘটনায় অবশ্য গুলি চালানোর কথা স্বীকার করে নেয় উত্তরপ্রদেশ পুলিশ। কানপুরের বিক্ষোভের যে ভিডিয়ো সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ে, তাতে উত্তরপ্রদেশ পুলিশের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করে।


এই ভিডিয়োই ছড়িয়ে পড়েছিল সোশ্যাল মিডিয়ায়।

আরও পড়ুন: বার বার প্রতিবাদ একই ধাঁচে, সঙ্কল্প সেই ছাত্রীর​

ভিডিয়োয় দেখা যায়, পুলিশ বিক্ষোভকারীদের হঠাতে কাঁদানে গ্যাসের সেল ফাটাচ্ছে। তার মধ্যেই বন্দুকের ‘সেফটি ক্যাচ’ খুলে সামনের দিকে ছুটে যাচ্ছেন এক অফিসার। পিছন থাকা পুলিশদের মধ্যে থেকে তখন মন্তব্য উড়ে আসে, ‘‘মেরে ফেল সবক’টাকে।’’ সে কথা কানে যেতেই ট্রিগারে চাপ দেন ওই পুলিশ অফিসার। সেই ভিডিয়ো ঘিরে এখনও বিতর্ক জারি রয়েছে। এর মধ্যেই এই ছবি প্রকাশ করল উত্তরপ্রদেশ পুলিশ।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)


Something isn't right! Please refresh.

Advertisement