Advertisement
২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২
Munawar Faruqui

Munawar Faruqui: তেলঙ্গানায় এলে মঞ্চ জ্বালিয়ে দেব, ফের বিজেপির হুঁশিয়ারি ফারুকিকে

রাজ্যের বিজেপি বিধায়ক টি রাজা সিংহের কথায়, “যেখানেই ফারুকি অনুষ্ঠান করবেন, সেখানেই তাঁকে মারধর করা।”

মুনাওয়ার ফারুকি।

মুনাওয়ার ফারুকি।

সংবাদ সংস্থা
হায়দরাবাদ শেষ আপডেট: ১১ অগস্ট ২০২২ ২০:৩৯
Share: Save:

আবারও বিজেপির রোষানলে কৌতুকশিল্পী মুনাওয়ার ফারুকি। চলতি মাসের ২০ তারিখ তেলঙ্গানায় অনুষ্ঠান করতে আসার কথা ফারুকির। সোশাল মিডিয়ায় সে কথা জানিয়েছিলেন শিল্পী নিজেই। এই আবহে ফারুকি তেলঙ্গানায় এলে তাঁকে ‘দেখে নেওয়া’র হুমকি দিলেন রাজ্যের বিজেপি বিধায়ক টি রাজা সিংহ।

হায়দরাবাদের গোসামহল কেন্দ্রের এই বিধায়কের অভিযোগ, মুনাওয়ার হিন্দু দেবদেবীদের নিয়ে মশকরা করেন, হিন্দু ধর্মকে নিয়ে কৌতুক করে দর্শকদের মনোরঞ্জন করতে চান। তাই গেরুয়া শিবিরের এই বিধায়ক প্রকাশ্য চ্যালেঞ্জ ছুড়ে জানিয়েছেন, রামচন্দ্রকে নিয়ে মজা করার জন্য ফারুকিকে ‘উচিত শিক্ষা’ দেওয়া হবে।

বিধায়কের নিজের কথায়, “ফারুকিকে যদি অনুষ্ঠান করার অনুমতি দেওয়া হয়, তবে ফারুকি আর অনুষ্ঠানের উদ্যোক্তারা দেখতেই পাবেন যে কী হতে চলেছে।” সঙ্গে তাঁর হুঁশিয়ারি, “যেখানেই ফারুকি অনুষ্ঠান করবেন, সেখানেই তাঁকে মারধর করা হবে। যেখানে ফারুকি অনুষ্ঠান করবেন, সেই জায়গা জ্বালিয়ে দেওয়া হবে।”

প্রসঙ্গত, এর আগেও একবার তেলঙ্গানায় অনুষ্ঠান করতে আসার ঘোষণা করে বিজেপির তোপের মুখে পড়েছিলেন এই তরুণ কৌতুকশিল্পী। সে বার অবশ্য কোভিডের জন্য অনুষ্ঠানটি বাতিল হয়ে যায়। সেই সময় রাজ্য বিজেপি সভাপতি বন্দি সঞ্জয়, তেলঙ্গানার যুবকদের ফারুকির অনুষ্ঠান বন্ধ করার জন্য উদ্যোগী হতে বলেছিলেন। রাজ্যের ডিজি মহেন্দ্র রেড্ডিকে চিঠি লিখেও ফারুকির অনুষ্ঠানের অনুমতি বাতিল করার আর্জি জানিয়েছিলেন সঞ্জয়। সেই সময় বিজেপির যুক্তি ছিল, নাগরিকত্ব আইন নিয়ে বিরুদ্ধ প্রচার, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে নিয়ে অবমাননাকর মন্তব্য করেছেন ফারুকি। তাই তাঁকে প্রকাশ্যে কোনও অনুষ্ঠান করতে দেবে না বিজেপি। সে সময় অবশ্য তেলঙ্গানার শাসকদল টিআরএস ফারুকির পাশে দাঁড়িয়েছিল। মুখ্যমন্ত্রী কে চন্দ্রশেখর রাওয়ের পুত্র, রাজ্যের মন্ত্রী কেটি রামা রাও সেই সময় দুই বিতর্কিত কৌতুকশিল্পী মুনাওয়ার ফারুকি এবং কুণাল কামরার পাশে দাঁড়িয়ে তাঁদের তেলঙ্গানায় অনুষ্ঠান করার জন্য আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন। এ বার অবশ্য এখনও তেলঙ্গানার শাসকদলের তরফ থেকে বিজেপির মন্তব্যের পাল্টা কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.