১০ হাজার বছর পুরনো চিউইং গামে মানুষের ডিএনএ খুঁজে পেলেন পুরাতাত্ত্বিকরা। এই ডিএনএ বিশ্লেষণ করে মানুষের ইতিহাসের অনেক অজানা তথ্য মিলবে বলে মনে করছেন বিজ্ঞানীরা।পুরাতাত্ত্বিকরা জানিয়েছেন, সুইডেনের পশ্চিম উপকূলে এই চিউইং গামটি ১৯৯০ সালে খুঁজে পাওয়া যায়। সম্প্রতি সেটি থেকে তিনটি মানুষের ডিএনএ পাওয়া গিয়েছে, দু’জন মহিলা ও একজন পুরুষের।

আগেকার দিনে সুইডেনের পশ্চিম উপকূলের এই জায়াগায় মেসোলিথিক শিকারিরা মাছ ধরতেন। তার জন্য যে তির তৈরি হত সেগুলির ফলাটিকে আটকানোর জন্য এক ধরনের আঠা ব্যবহার করতেন শিকারিরা। সেই আঠা একটি গাছের ছাল থেকে বেরনো রস থেকে তৈরি হত। সেগুলি মানুষ চিউইং গাম হিসেবেও ব্যবহার করত।

বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, এই চিউইং গাম ও তার থেকে পাওয়া ডিএনএ থেকে অনেক মিসিং লিঙ্ক খুঁজে পাওয়া যাবে। সেই কাজই চলছে স্টকহলম বিশ্ববিদ্যালয়ের পুরাতাত্ত্বিক গবেষণাগারে। যে তিন জনের ডিএনএ মিলেছে তাদের সঙ্গে সুইডেনের মেসোলিথিক জনজাতির মানুষের সঙ্গে মিল পাওয়া গিয়েছে।

আরও পড়ুন : সন্তানকে জোর করে নিরামিষ খাওয়ালে এবার জেল হতে পারে

আরও পড়ুন : ঘরের ভেতর ৫০ হাজার মৌমাছি, আপনি কী করতেন?

এই ডিএনএ যুক্ত চিউইং গাম থেকে জানা যাবে, সে যুগের মানুষ কী খেত, তাঁদের দাঁতে কী ধরনের ব্যাকটেরিয়া ছিল।