দক্ষিণ চিন সাগরে তারা কাউকে এক ইঞ্চি জমিও ছাড়বে না, ফের বার্তা দিল চিন।

মার্কিন রণতরী কার্ল ভিনসনের দক্ষিণ চিন সাগর পেরিয়ে ভিয়েতনামে পৌঁছনো নিয়ে সম্প্রতি কড়া প্রতিক্রিয়া জানিয়েছিল বেজিং। কেন ওই বিদেশি যুদ্ধজাহাজ দক্ষিণ চিন সাগরে ঢুকেছে, সে প্রশ্ন তুলেছিল অসন্তুষ্ট বেজিং। এ দিকে দক্ষিণ চিন সাগরে চিনের একক আধিপত্য বিস্তার নিয়ে বহু দিন ধরেই আপত্তি তুলে আসছে ফিলিপিন্স, ভিয়েতনাম, তাইওয়ান, মালয়েশিয়া এবং ব্রুনেইয়ের মতো দেশ। তাতে আমল না দিয়েই দীর্ঘদিন এলাকায় নিজেদের আধিপত্য দেখিয়েছে চিন। কৃত্রিম দ্বীপ তৈরি করে সেখানে সামরিক ঘাঁটিও বানিয়ে রেখেছে বেজিং। আমেরিকা এবং অন্য শক্তিধর দেশগুলি যার বরাবর সমালোচনা করে এসেছে। বৃহস্পতিবার ওয়াং হুঁশিয়ারি দেন, ‘‘বিশ্বের কোনও শক্তিই ওই এলাকার শান্তি ভঙ্গ করতে পারবে না।’’ অনেকেই মনে করছেন, নাম না করে আমেরিকা, ব্রিটেনের মতো দেশকে ঠুকেছেন ওয়াং। বলেছেন, ‘‘কিছু বিদেশি শক্তি নিজেদের সামরিক শক্তি গোটা বিশ্বকে দেখানোর জন্য ওই এলাকায় সশস্ত্র রণতরী এনে হাজির করছে।’’ তার পরেই চিন বিদেশমন্ত্রীর হুঙ্কার, ‘‘আমরা কোনও বহিরাগতকে এক ইঞ্চি জমিও ছাড়ব না।’’